| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
   * রাম নাথ কোভিন্দকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন   * টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে : স্পিকার   * বিএনপির লন্ডন মার্কা সহায়ক সরকার জনগণ মানবে না : ওবায়দুল কাদের   * শিগগিরই বিচারকদের শৃঙ্খলা বিধির গেজেট: আইনমন্ত্রী   * নির্বাচন কমিশনের সচিব পরিবর্তন   * সরকার মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চায় : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   * চিকুনগুনিয়া রোগীর বাড়ি গিয়ে চিকিৎসা দেবে ঢাকা দক্ষিণ সিটি   * ‘আকাশ সংস্কৃতিতে যা ক্ষতিকর তা বর্জন করুন’   * সবার সহযো‌গিতায় দুর্যোগ মোকা‌বিলা : ত্রাণমন্ত্রী   * চিকিৎসার জন্য ভারতে যাচ্ছেন আল্লামা শফী  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   আইন শৃংখলা -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
দেশে ২৫শতাংশ বনাঞ্চল করতে পারলে অসম্ভব অর্জন হবে- গাজীপুরে র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ

মাহবুবুল আলম গাজীপুর প্রতিনিধিঃ

গাজীপুরে  র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেছেন, ৮০’র দশকে দেশের বনাঞ্চল কমতে কমতে ৫/৬ ভাগে (শতাংশে) চলে গিয়েছিল। বৃক্ষরোপন কর্মসূচীর মাধ্যমে আস্তে আস্তে তা প্রায় শতকরা ১৮ ভাগে উন্নীত হয়েছে। আমাদের দেশের এভায়রনমেন্টের জন্য ২৫ ভাগ (শতাংশ) বনাঞ্চল থাকা দরকার। আশা করি, যদি আমরা সবাই মিলে এভাবে বৃক্ষরোপন করি, তা হলে খুব শীঘ্রই আমরা দেশে যে ২৫ ভাগ (শতাংশ) বনাঞ্চল থাকা দরকার সেটা আমরা এচিভ করতে পারবো। এটা করতে পারলে কিন্তু আমি মনে করি একটা অসম্ভব অর্জন সম্ভব হবে। কারণ বাংলাদেশের জনংখ্যা বাড়ছে, শিল্পায়ন বাড়ছে, নগরায়ন বাড়ছে, কৃষি জমি কমছে। তারপরও যদি আমরা বনায়ন বাড়াতে পারি তা হলে বিশ্বের অনেক দেশের মতই একটা উদাহরণ সৃষ্টি করতে পারবো বলে আমি মনে করি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে গাজীপুরের পোড়াবাড়ি এলাকায় র‌্যাব-১-এর ট্রেনিং স্কুলের চত্বরে বিভিন্ন প্রজাতির ফুল-ফল-ঔষধি ও দূষ্প্রাপ্য বাগান উদ্বোধনশেষে সাংবাদিকদের ওইসব কথা বলেন। এসময় র‌্যাব-এর অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপস) কর্ণেল আনোয়ার লতিফ খান, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অ্যাডমিন) মো. জামিল আহমেদ, র‌্যাবের লিগ্যাল এন্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক মো. মুফতি মাহমুদ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

তিনি আরো জানান, এ বাগানে পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন প্রজাতির ১০হাজার বৃক্ষ রোপন করা হবে।

দেশে ২৫শতাংশ বনাঞ্চল করতে পারলে অসম্ভব অর্জন হবে- গাজীপুরে র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ
                                  

মাহবুবুল আলম গাজীপুর প্রতিনিধিঃ

গাজীপুরে  র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেছেন, ৮০’র দশকে দেশের বনাঞ্চল কমতে কমতে ৫/৬ ভাগে (শতাংশে) চলে গিয়েছিল। বৃক্ষরোপন কর্মসূচীর মাধ্যমে আস্তে আস্তে তা প্রায় শতকরা ১৮ ভাগে উন্নীত হয়েছে। আমাদের দেশের এভায়রনমেন্টের জন্য ২৫ ভাগ (শতাংশ) বনাঞ্চল থাকা দরকার। আশা করি, যদি আমরা সবাই মিলে এভাবে বৃক্ষরোপন করি, তা হলে খুব শীঘ্রই আমরা দেশে যে ২৫ ভাগ (শতাংশ) বনাঞ্চল থাকা দরকার সেটা আমরা এচিভ করতে পারবো। এটা করতে পারলে কিন্তু আমি মনে করি একটা অসম্ভব অর্জন সম্ভব হবে। কারণ বাংলাদেশের জনংখ্যা বাড়ছে, শিল্পায়ন বাড়ছে, নগরায়ন বাড়ছে, কৃষি জমি কমছে। তারপরও যদি আমরা বনায়ন বাড়াতে পারি তা হলে বিশ্বের অনেক দেশের মতই একটা উদাহরণ সৃষ্টি করতে পারবো বলে আমি মনে করি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে গাজীপুরের পোড়াবাড়ি এলাকায় র‌্যাব-১-এর ট্রেনিং স্কুলের চত্বরে বিভিন্ন প্রজাতির ফুল-ফল-ঔষধি ও দূষ্প্রাপ্য বাগান উদ্বোধনশেষে সাংবাদিকদের ওইসব কথা বলেন। এসময় র‌্যাব-এর অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপস) কর্ণেল আনোয়ার লতিফ খান, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অ্যাডমিন) মো. জামিল আহমেদ, র‌্যাবের লিগ্যাল এন্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক মো. মুফতি মাহমুদ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

তিনি আরো জানান, এ বাগানে পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন প্রজাতির ১০হাজার বৃক্ষ রোপন করা হবে।

রাণীনগরে সেনাবাহিনীর ফ্রি চিকিৎসা সেবা
                                  

নিজস্ব সংবাদদাতা:নওগাঁর রাণীনগরে বাংলাদেশ সেনা বাহিনীর ১১ পদাতিক ডিভিশনের বগুড়া এরিয়ার আর্মি মেডিকেল কোর ইউনিট ২৫ ফিল্ড এ্যাম্বুলেন্স এর সপ্তাহব্যাপী  জনসাধারণের জন্য ফ্রি চিকিৎসা সেবা শুর” করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার সকালে চিকিৎসা সেবার পঞ্চম দিনে কেন্দ্র পরিদর্শন করেন ডাইরেক্টর মেডিকেল সার্ভিস এর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কাজী আবুল কালাম আজাদ। জানা গেছে, উপজেলার ৩নং গোনা ইউনিয়নের ঘোষগ্রাম কফিলিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে গত ১৬ জুলাই রবিবার থেকে বাংলাদেশ সেনা বাহিনীর ১১ পদাতিক ডিভিশন বগুড়া এরিয়ার আর্মি মেডিকেল কোর ইউনিট ২৫ ফিল্ড এ্যাম্বুলেন্স এর ব্যবস্থাপনায় ৭ দিন ব্যাপী চিকিৎসা কেন্দ্রের মাধ্যমে অত্র এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণের ফ্রি চিকিৎসা সেবা ও বিনা মূল্যে ঔষুধ প্রদান করা হয়। উক্ত কেন্দ্রে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন, আর্মি মেডিকেল কোর ইউনিট ২৫ ফিল্ড এ্যাম্বুলেন্স এর সিও লেঃ কর্নেল মাসুদ উল ইসলাম, ক্যাপ্টেন জুবায়ের, ক্যাপ্টেন সুরাইয়া, ক্যাপ্টেন রেজোয়ানা, ক্যাপ্টেন আসাদ। কর্মসূচির পঞ্চম দিনে বৃহস্পতিবার সকালে চিকিৎসা কেন্দ্র পরিদর্শনে আসেন ডাইরেক্টর মেডিকেল সার্ভিস এর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কাজী আবুল কালাম আজাদ। কেন্দ্র পরিদর্শনকালে স্থানীয় পর্যায় থেকে সুধীজনের মধ্যে তার সাথে উপস্থিত ছিলেন, গোনা ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসনাত খান হাসান, রাণীনগর প্রেস ক্লাবের সভাপতি এসএম সাইফুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি অর”ন বোস প্রমুখ। ফ্রি চিকিৎসা কেন্দ্রে এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারনের বিভিন্ন রোগের বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৬ হাজার ৭ শ’ ৩৫ জন রোগীকে সুচিকিৎসা সহ বিনা মূল্যে ঔষুধ প্রদান করা হয়।

বরুড়ায় মাদক বিরোধী সভায় মাদক সেবীদের হামলায় আহত ৩
                                  

বরুড়া (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার মন্দুক গ্রামে মাদক বিরোধী সভায় মাদক সেবী সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত ৩ (তিন) জন। সর জমিনে জানা যায় যে, গত ১৩/০৭/২০১৭ইং তারিখে সন্ধ্যা ৬ টার দিকে আড্ডা বাজারের ফার্ণিচার দোকানদার জহির উক্ত এলাকায় মাদক বিক্রি করতে আসলে ঐ এলাকার আরেক মাদক ব্যবসায়ী আবদুর রাজ্জাক তার কাছে থেকে চল্লিশ হাজার টাকা কেড়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয় এবং এলাকায় মাইকিং করে মাদক বিরোধী সভার আয়োজন করা হয়। সভার কথা টের পেয়ে ১৪ জুলাই বিকাল ৩ টার দিকে মাদক সেবী আবদুর রাজ্জাক এর নেতৃত্বে কাউসার, আবু হানিফসহ চার পাঁচ জন মিলে সভায় হামলা করলে ঘটনার স্থলে মন্দুক গ্রামের শাহ আলম, আবুল কাসেম, আমির হোসেন আহত হয়। শাহ আলমের জখম গুরুতর হওয়ায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথেই ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ মামলা নেন। ১৫ জুলাই রাতে ৯ টার দিকে এসআই খন্দকার আবুল বাসার ও সঙ্গীয় ফোর্স অভিযান চালিয়ে মাদক সেবী আবদুর রাজ্জাককে তার এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। বাকী আসামিদের গ্রেফতারের অভিযান চলছে।

বেনাপোলে৭টি স্বর্নের বার সহ পাসপোর্ট যাত্রী আটক
                                  

এম এ রহিম,বেনাপোল:-স্থল বন্দর বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে ভারতে পাচারকালে প্রায়৩০লাখ টাকা মুল্যের ৭টি স্বর্নের বার সহ পারভেজ হোসেন নামে এক পাসপোর্ট যাত্রীকে আটক করেছে কাষ্টম শুল্ক গোয়েন্দা। সে নারানগজ্ঞ জেলার দক্ষিন লক্ষনপুর এলাকার মনির হোসেনের ছেলে।
বেনাপোল কাষ্টম গোয়েন্দা-সহকারি রাজস্ব কর্মকতা-চান মাহমুদ খানও রাজস্ব কর্মকর্তা-শাহজাহান সরকার জানান,
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন বুধবার সকালে বেনাপোল কাষ্টম চেকপোষ্ট দিয়ে ভারতে একটি সোনার চালান পাচার হচ্ছে। সন্দেহভাজন পারভেজকে আটক করা হয়। পরে তার শরীরে তল্লাশি করে ৭টি স্বর্নের বার জব্দ করা হয়।
আটক পারভেজ জানায়- ঢাকার এমএফ এন্টার প্রাইজের মালিক-মোতালেব হোসেন তাকে দিয়ে দীর্ঘদিন যাবত গেনজি সহ গার্মেন্ট পন্যের সাথে সোনার চালান ভারতে পাঠিয়ে আসছিল। বেনাপোল চেকপোষ্টের এক পুলিশ তাকে পাসপোর্টের ছিল মারার সহযোগিতা করেন বলে জানান তিনি।
আটক সোনা পাচারকারীকে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দসহ সোনা শুল্ক ষ্টেশনে জমা দেওয়া হবে বলে জানায় কাষ্টম

মাগুরায় মৃত্যুর ১ মাস পর লাশ উত্তোলন
                                  

 মাগুরা প্রতিনিধি ॥ মৃত্যুর ১ মাস পর মাগুরার শালিখা উপজেলার সাবলাট গ্রামে এক ব্যক্তির লাশ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য আজ (১০ জুলাই) দুপুরে সোমবার মাগুরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে শালিখা থানা পুলিশ। নিহত ব্যক্তির নাম কবির শিকদার (৪২)। সে ওই গ্রামের হাতেম আলী শিকদারের ছেলে। শালিখা থানা উপ পরিদর্শক (এসআই) আশিকুর রহমান জানান, গত ১৬ মার্চ সাবলাট গ্রামে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে গুরুতর জখম হন কবির হোসেন। আড়াই মাস মাগুরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার পর তিনি বাড়িতে ফিরে যান। সেখানে হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে ১১ জুন তিনি মারা যান। এ সময় স্থানীয় চেয়ারম্যান ও এলাকার লোকজনের উপস্থিতিতে তাকে দাফন করা হয়। পরবর্তীতে ১৯ জুন পরিবারের পক্ষ থেকে প্রতিপক্ষদের নামে মাগুরা আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। এই মামলায় বিজ্ঞ আদালত ময়নাতদন্তের নির্দেশ দিলে শালিখা থানা পুলিশ মাগুরার নেজারত ডেপুটি কালেক্টরেট দিপক কুমার শর্মা, মেডিক্যাল অফিসার মাসুদ কবিরের উপস্থিতিতে রবিবার কবির শিকদারের লাশ উত্তোলন করে ও গতকাল সোমবার ময়নাতদন্তের জন্য মাগুরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

বিচারের সাথে কাজের প্রতি আন্তরিকতা কাঙ্খিত ন্যায় বিচারের পূর্বশর্ত
                                  

স্টাফ রিপোর্টার: চট্টগ্রাম চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের উদ্যোগে ২০ মে, ২০১৭ খ্রিঃ তারিখ শনিবার সকাল ১০.৩০ ঘটিকায় চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সম্মেলন কক্ষে পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসী কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়। চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জনাব এ.কিউ.এ. নাছির উদদ্ীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত কনফারেন্সে অতিরিক্ত চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোহাম্মদ সাহাদাত হোসেন ভূইয়া, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট বেগম জাহানারা ফেরদৌস, র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক মিফতাহ উদ্দিন, ডিসি ডিবি উত্তর/দক্ষিণ, সিএমপি, চট্টগ্রাম জনাব হাসান মোঃ শওকত আলী, সিনিয়র অতিঃ পুলিশ সুপার র‌্যাব-৭ জনাব জালাল উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সিআইডি) জনাব কুতুব উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, পিবিআই জনাব মোঃ মঈন উদ্দিন, সকল মেট্রেপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট, ২য় অতিরিক্ত পারিবারিক আদালত সহকারী জজ আশরাফুন্নাহার রীটা, চমেক হাসপাতাল প্রতিনিধি ডা. রাজীব পালিত, ফরেনসিক বিভাগের প্রধান প্রফেসর ডাক্তার সৈয়দ মোঃ কাশেম, আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবু হানিফ, মেট্রো অঞ্চলের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শামীম আহমদ, এডিসি ট্রাফিক (দক্ষিণ) শচীন চাকমা, মহানগরীর ১৬ থানার অফিসার ইন-চার্জ এবং এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অন্যান্য আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ।
কনফারেন্সের শুরুতে চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জনাব এ. কিউ. এম নাছির উদদ্ীন বিগত সভার সিদ্ধান্তসমূহ বাস্তবায়নের অগ্রগতি তুলে ধরে চট্টগ্রাম চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বিচারাধীন মামলাসমূহের সুষ্ঠু বিচার প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন করার ক্ষেত্রে কার্যকর ভূমিকা পালনের জন্য বিচারক ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে বিভিন্ন ধরনের দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।
কনফারেন্সে গত এপ্রিল মাসের মামলার বিবরণ উপস্থাপন করে বিজ্ঞ চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বলেন যে, এপ্রিল মাসের শুরুতে ২২,০৯৭টি মামলা বিচারাধীন ছিল। নতুন দায়ের হয়েছে ২,৭৪০টি মামলা, নিষ্পত্তি হয়েছে ৩০৬৫ টি, বর্তমানে ২১,৭৭২ টি বিচারাধীন আছে।
চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তার বক্তব্য বলেন যে, সাজাপ্রাপ্ত বা বিচারাধীন মামলার আসামী আদালতের বাইরে থেকে একদিকে যেমন নতুন নতুন অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়ছে। অন্যদিকে, বিচার ব্যবস্থা ও সরকারের অন্যান্য সংস্থা সম্পর্কে মানুষের আস্থার সংকট দেখা দিচ্ছে। তাই, বিভিন্ন পরোয়ানা জারির ক্ষেত্রে আরও তৎপর হওয়ার জন্য তিনি বিভিন্ন থানা থেকে আগত থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের নির্দেশনা প্রদান করেন।
চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দ্রুততা ও দক্ষতার সাথে আইনের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তদন্ত কাজ সম্পন্ন করত: প্রতিবেদন দাখিল, যথাসময়ে মামলার সাক্ষী উপস্থাপন নিশ্চিত করতঃ তাদের নিরাপত্তা বিধান, গ্রেফতারের পর আইনের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আদালতে সোপর্দ করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে কার্যকর ভূমিকা পালনের অনুরোধ করেন।
কনফারেন্সে উপস্থিত পুলিশ কর্মকর্তা ও ম্যাজিস্ট্রেটগণসহ বক্তাগণ যথাসময়ে সাক্ষী উপস্থাপনে পুলিশ বিভাগ ও স্বাস্থ্য বিভাগের ইতিবাচক পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে সাক্ষীর উপস্থিতি পূর্বের তুলনায় বৃদ্ধি পাওয়ায় এবং মামলা নিষ্পত্তির হার বৃদ্ধি পাওয়ায় বিশেষতঃ পুরাতন মামলা অধিক হারে নিষ্পত্তি হওয়ার সন্তোষ প্রকাশ করেন। এছাড়াও বক্তাগণ দ্রুত গ্রেফতারী পরোয়ানা তামিল ও সমন জারীর ব্যবস্থা গ্রহণ, তদন্ত কার্যে বিদ্যমান সমস্যা সমাধান, তদন্তে দীর্ঘসূত্রিতা পরিহার, হয়রানী বন্ধ, চগ রিপোর্ট ও গঈ প্রদানের ক্ষেত্রে সর্তকতা অবলম্বন, নকলখানা হতে স্বল্পতম সময়ে নকল সরবরাহের ব্যবস্থা করা, মামলার আলামত সংরক্ষণ ও সঠিক নিয়মে নিষ্পত্তি, মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি ও নিষ্পত্তিকৃত নথি দ্রুত রেকর্ডরুমে প্রেরণ, আদালত ও বিচার সংশ্লিষ্ট সকলের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ সহ নানাবিধ বিষয়ে তাদের গুরুত্বপূর্ণ মতামতসমূহ কনফারেন্সে তুলে ধরেন।
বিভিন্ন থানা থেকে আগত থানার অফিসার ইনচার্জসহ অন্যান্য উপস্থিতি কর্র্তৃক উত্থাপিত বিভিন্ন সমস্যার আইনী সমাধান, প্রশ্নোত্তর প্রদান এবং পরবর্তী কর্মপন্থা নির্ধারণ করত: সমাপনী বক্তব্যে চীফ মেটোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব এ. কিউ. এম নাছির উদদ্ীন বলেন যে, ফৌজদারী বিচার ব্যবস্থায় বিচার প্রশাসন, নির্বাহী প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকল বিভাগ একে অপরের পরিপূরক। মানুষের শেষ আশ্রয়স্থল বিচার বিভাগের প্রতি জনগণের আস্থা বৃদ্ধি ও ন্যায় বিচার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আন্তরিকতা ও সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশে সংশ্লিষ্ট সকল বিভাগকে একযোগে ব্যক্তি স্বার্থের উর্ধ্বে উঠে বিচার প্রার্থী মানুষের কল্যাণে নিজ নিজ দায়িত্ব ও কর্তব্য সঠিকভাবে সম্পন্ন করতে হবে। এক্ষেত্রে কারও অবহেলা কাম্য নয়। নারীর অধিকার, কারাবন্দিদের অধিকার সর্বোপরি মানবাধিকার সমুন্নত রেখে বিচারপ্রার্থী জনগণের কাঙ্খিত ন্যায় বিচার দ্রুততম সময়ে নিশ্চিতকরণ ও আইনের শাসন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট সকল বিভাগের মধ্যে পারস্পরিক সমন্বয় ও সহযোগিতা বৃদ্ধির উপর তিনি গুরুত্বারোপ করেন। কনফারেন্সে আগত সংশ্লিষ্ট সকলের মধ্যে পারষ্পারিক তথ্য বিনিময়ের মাধ্যমে ও বিদ্যমান সমস্যাসমূহ আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করলে কাজের মুল্যায়ন হয় এবং পারষ্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধি পায়। সামনের দিনগুলোতে সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলোর পারষ্পরিক সমন্বয়ের মাধ্যমে ফৌজদারী বিচার ব্যবস্থায় আরো গতিশীলতা আসবে মর্মে আশাবাদ ব্যক্ত করে আগত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে কনফারেন্সের সমাপ্তি ঘোষণা করেন চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জনাব এ. কিউ. এম নাছির উদদ্ীন ।

হিযবুত তাহরীর
                                  

রাজধানীতে হিযবুত তাহরীর সদস্য গ্রেফতার

হিযবুত তাহরীর

 

অনলাইন ডেস্ক:

রাজধানী থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হিযবুত তাহরীরের সদস্য মো. তমাল উদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে‍ র‍্যাব-২। তিনি ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি।

মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর আদাবর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব-২ এর এএসপি ফিরোজ কাওসার বাংলা ট্রিবিউনকে এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, তমালের বিরুদ্ধে ২০১৪ সালে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মোহাম্মদপুর থানায় একটি মামলা হয়েছিলো। সে দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে মঙ্গলবার রাতে গ্রেফতার করা হয়েছে। এখন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

মহাখালী থেকে শুল্কমুক্ত সুবিধায় আনা আরও একটি গাড়ি আটক
                                  

মহাখালী থেকে শুল্কমুক্ত সুবিধায় আনা আরও একটি গাড়ি আটক

 
 
নিজেস্ব প্রতিবেদক:

উদ্ধার করা গাড়ি

শুল্ক গোয়েন্দারা মহাখালী ডিওএইচএস এলাকা থেকে শুল্কমুক্ত সুবিধায় (কারনেট) আনা একটি মার্সিডিজ জিপ গাড়ি আটক করছে। মঙ্গলবার দুপুরে মহাখালী ডিওএইচএস এলাকার ১৯ নম্বর রোডের সি ব্লকের ২২৮ নম্বর বাড়ির সামনে থেকে আটক করা হয়।  

শুল্ক গোয়েন্দার সহকারী পরিচালক ফেরদৌসি মাহবুব এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, গাড়িটি যে বাড়ির সামনে থেকে আটক করা হয়েছে সেই বাড়ির মালিক এসকে আবু বাকের। তার ছেলে এরিক মোরশেদ গাড়ির মালিক। 

তিনি বলেন, গাড়ির রেজিস্ট্রেশন নম্বর ঢাকা মেট্টো ঘ ১৪-৪৭২৭। বিআরটিএ-র সঙ্গে যোগাযোগ করে জানা যায় এই নম্বরটি ভুয়া। প্রাথমিক অনুসন্ধানে দেখা যায়, এই গাড়ি কারনেটের মাধ্যমে আনা হয়েছে। শর্ত অনুযায়ী এই গাড়ি ফেরত যায়নি।

রাজধানীর ২৫ পয়েন্টে বৃহস্পতিবার যান চলাচল বন্ধ
                                  

অনলাইন ডেস্ক:

বাংলাদেশ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ওলামা-মাশায়েখদের মহাসমাবেশ উপলক্ষে রাজধানীর ২৫টি পয়েন্টে যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

আজ বুধবার সকালে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মহাসমাবেশ উপলক্ষে রাজধানীর যান ব্যবস্থাপনা তুলে ধরা হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, রাজধানীর বিজয় সরণি, খামারবাড়ি, বাংলামোটর, মগবাজার, পরীবাগ, সাকুরাগলি, পুলিশ ভবন, সবজিবাগান, মিন্টো রোড পূর্ব প্রান্ত, অফিসার্স ক্লাব, কাকরাইল চার্চ, শিল্পকলা একাডেমির গলি, দুদক গলি, কার্পেট গলি, মৎস্য ভবন, কদম ফোয়ারা, হাইকোর্ট, শহীদুল্লাহ হল, বকশীবাজার, পলাশী, নীলক্ষেত, রুমান চত্বর, কাঁটাবন, শাহবাগ ও আজিজ সুপার মার্কেট এলাকায় দুপুর ১২টা থেকে যান চলাচল বন্ধ থাকবে। 

এ ছাড়া এদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে শাহবাগ হতে মৎস্য ভবন ক্রসিং পর্যন্ত উভয়মুখী এবং শাহবাগ থেকে টিএসসি হয়ে দোয়েল চত্বর ক্রসিং পর্যন্ত উভয়মুখী যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

এ সম্মেলনে বাংলাদেশ থেকে দুই লক্ষাধিক মুসল্লি এবং সেই সঙ্গে প্রায় আড়াই হাজার যানবাহন রাজধানীতে প্রবেশ করবে। এসব যান কোথায় থাকবে, তা-ও জানিয়ে দেওয়া হয় সংবাদ সম্মেলনে।

মুকসুদপুরে সাজা প্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার
                                  

মুকসুদপুর(গোপালগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ


গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে মাদক মামলার ৬ মাসের সাজা প্রাপ্ত আসামী হাসিবুল মিনা(২৩)কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
 
পুলিশ সূত্রে জানাযায়, জলিরপাড় বাজার পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এস আই শাহ্ জামাল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে পলাতক সাজা প্রাপ্ত আসামী হাসিবুলকে বুধবার সকাল ৬টার সময় নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে।
এ ব্যপারে মুকসুদপুর থানার জলিরপাড় বাজার পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এস আই শাহ্ জামাল জানান, মাদকদ্রব্য আইনে আদালতে ৬ মাসের সাজা প্রাপ্ত পলাতক আসামী হাসিবুল। মামলা মুক- জি,আর-২৮৫/১২, তাকে জেল হাজতে পেরণ করা হয়েছে।
 
গ্রেফতারকৃত আসামী মুকসুদপুর উপজেলার ননীক্ষির ইউনিয়নের পাথরঘাটা গ্রামের ছামাদ মিনার ছেলে।

শ্রীপুরের ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল থেকে আটক ৩
                                  

রাতুল মন্ডল, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:


কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহ-সাধারন সম্পাদক নুরুল ইসলাম নুরু হত্যার প্রতিবাদে শ্রীপুরের মাওনা চৌরাস্তায় বিক্ষোভ মিছিল করে গাজীপুর জেলা ছাত্রদল।
রোববার বেলা ১১টার দিকে মিছিল থেকে উপজেলা ছাত্রদলের প্রচার সম্পাদক আরিফুল ইসলাম সরকারসহ ৩জনকে আটক করা হয়। পরে মিছিলটি পন্ড হয়ে যায়।
শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক এসআই মাহমুদুল হাসান জানান, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে বেলা ১১টায় মাওনা চৌরাস্তায় ছাত্রদলের মিছিল বের হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে ছাত্রদল নেতা আরিফুল ইসলাম সরকার, মামুন, মুঞ্জুরুল হাসান মিন্টুকে আটক করা হয়।

দায়িত্বের প্রতিটি পর্বই যিনি আন্তরিকতা দিয়ে প্রতিপালন করেন
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট:

কাজী ওয়াজেদ। বর্তমানে কদমতলী থানার ওসি। সাধারণত কোনো দায়িত্বই তিনি স্বজ্ঞানে এড়িয়ে যাননা। এটি এই এলাকায় মোটামুটি সর্বজন জ্ঞাত। এরই ধারাবাহিকতায় গতকালের একটি ঘটনা এলাকায় দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। তাঁর নিজের ফেজবুকে দেওয়া স্ট্যাটাস থেকেই বিষয়টি পরিপূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে।
রাত্রকালীন ডিউটি তদারকিকালে হঠাৎ দেখছি দ্রুত পায়ে হেটে আসছেন এক দম্পতি। ভোর আনুমানিক পৌনে চারটার দিকে নিরব নিস্তব্ধ মেরাজনগর বাজারের রাস্তা দিয়ে অন্ধকারে এভাবে আসতে দেখে নিশ্চয় কোন সমস্যা বুঝতে পেরে গাড়ীটা স্লো করতেই এগিয়ে আসলেন দম্পতি। পুরুষ ভদ্রলোকের কোলে একটি শিশুকে দেখতে পেলাম। দেখেই বুঝলাম কোন বিপদ, সহযোগীতা দরকার। বললেন বাচ্চাটা খুব অসুস্থ। বুঝলাম শিশুটিকে জরুরী হাসপাতালে নেয়া প্রয়োজন। রাতের নির্জন রাস্তায় কোন রিক্সা বা গাড়ী নেই। ওনাদের কথা শেষ হবার আগেই গাড়ীর দরজা খুলে দিয়ে বললাম উঠে পড়েন। গাড়ীটা ঘুরিয়ে মাতুয়াইল হাসপাতালের দিকে নিলাম। আমার পাশেই বসেছে কোলে নিয়ে থাকা শিশুটির বাবা আর তার পাশে মা। শিশুটির প্রচন্ড খিচুনী আর গোঙানির শব্দ পাচ্ছিলাম অবিরত। সেইসাথে ঘনঘন নিশ্বাসের তপ্ত বাতাস গায়ে এসে পড়ছিল। আর মা বলে কথা!!!! ওর মায়ের দোয়া ইউনুসসহ বিভিন্ন দোয়া দরুদের ভিন্ন ভিন্ন রকমের উচ্চারন তো আছেই। মনটা ভারি হয়ে গেল, যেতে যেতে ভাবছি কত তাড়াতাড়ি হাসপাতালে পৌছাবো।
ডাক্তারদের সম্পর্কে অনেক নেতিবাচক কথা শুনি। কিন্তু আজ স্বচক্ষে যা দেখলাম তা ওনাদের সম্পর্কে শুধু প্রশংসাই যথেষ্ঠ হবে না। মাতুয়াইল শিশু-মাতৃ স্বাস্থ্য ইনস্টিটউটের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত তরুন ডাক্তার (নামটা জানা হয়নি) দ্রুত জান্নাতুল নূর নামের শিশুটির চিকিৎসা শুরু করলেন, অক্সিজেন দিলেন। অত্যন্ত আন্তরিক নাম না জানা এই ডাক্তার ভদ্রলোকের জরুরী চিকিৎসায় কিছুক্ষনের মধ্যেই শিশুটি অনেকটা সুস্থ হল। কিছুটা শেষ হল ওর মায়ের দাপাদাপি, স্বস্তি পেলাম আমরাও। এবার ভর্তি হবার পালা। দোতলায় যেয়ে আরেক তরুন ডাক্তার। এই ভদ্রলোক অনেকক্ষণ যাবত ধৈর্য্য সহকারে রোগী দেখে অনেক কথা জিজ্ঞেস করলেন। ভর্তির ব্যবস্থা করলেন। তবে বিনয়ের সাথে বললেন, কেবিনের ব্যবস্থা হয়েছে, কিন্তু দুঃখিত, বিছানার চাদর দিতে পারছি না। ওনাদের আচরন আর ব্যবহারে আমরা এত বেশী আপ্লুত যে, চাদরের চাহিদা আমাদের কাছে একেবারে তুচ্ছ মনে হল (পরে অবশ্য চাদর পাওয়া গেছে)। ডাক্তার ভদ্রলোক রোগ সম্পর্কে অনেক কথা বললেন, বললেন,এটা মেনিনজাইটিস হতে পারে বা অন্যকিছু। এই ডাক্তার সাহেবের তৎপরতা আর আচরনে সত্যিই ভিষন মুগ্ধ হলাম। ওনাদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা আর অফুরন্ত ভালবাসা। মনে মনে দোয়া করলাম, আল্লাহ, এই তরুন ডাক্তারদ্বয়ের মত দুনিয়ার সব ডাক্তাররা যেন হয়। কারন অসুখে পড়লে মানুষ কতটা অসহায় হয়ে যে ডাক্তারের কাছে যেয়ে সেবা চায়, তা কেবল ভুক্তভুগিরাই জানে। তখন আল্লাহপাক আর ডাক্তাররা ছাড়া কিছুই ভাল লাগে না।
ছয় মাস বয়সী জান্নাতুল নূরের বাবা ফার্নিচার ব্যবসায়ীর আরও দুটো ছেলে সন্তান আছে। একমাত্র মেয়ে হিসেবে ওর কদর যে একটু বেশী তা ওর বাবা-মায়ের আহাজারিতে বোঝা গেল। ওনাদের দেখে মনে হল মেয়ে আসলে শুধু মেয়ে নয়, মেয়ে মানে বাবা-মায়ের আত্মা, বাবা-মায়ের কলিজা, বাবা-মায়ের কান্না আর এক বর্ননাহীন ভাললাগা। হাসপাতালে এসব ভাবতে ভাবতেই মাইকে ভেসে উঠলো আজানের সুমধুর আওয়াজ, আস সালাতু খাইরুম মিনান নউম। এবার যে যাবার পালা, নুরের বাবাকে ফোন নম্বর দিয়ে বলে আসা, আর্থিকসহ যেকোন ধরনের সহযোগীতায় প্রয়োজনে যেন আওয়াজ পাই। দোয়া করি সবাই, ভাল থাকুক জান্নাতুল নূর, সুস্হ হয়ে উঠুক ও তাড়াতাড়ি, ওর হাসি মুখ দেখি সবাই।

সিফাত হত্যা মামলার রায় পুনর্বিবেচনার দাবি
                                  

রাজশাহী প্রতিনিধি:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী ওয়াহিদা সিফাত হত্যা মামলার রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। মামলার নিরপেক্ষ তদন্ত ও রায় পূর্নবিবেচনার দাবিতে মঙ্গলবার বেলা ১২টায় বিভাগের সামনে তারা এক মৌন মানববন্ধনে মিলিত হয়।

মানববন্ধনে বিভাগের সভাপতি ড. প্রদীপ কুমার পা-ে বলেন, ‘সিফাতের ময়নাতন্তের দ্বিতীয় প্রতিবেদন এটাকে হত্যাকা- বলা হয়েছে। কিন্তু আমরা রায়ে দেখছি, এটা আত্মহত্যার প্ররোচনার রায় হয়েছে। আদালতের প্রতি আমাদের আস্থা আছে, কিন্তু প্রত্যাশা পূরণ হয়নি। এজন্য আমরা এটার পুনর্তদন্ত ও পুনর্বিবেচনা করা যায় কি না সেটার জন্য আজকে আমরা মৌন মানববন্ধন করেছি।’

গত সোমবার দুপুরে ঢাকার ৩ নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল এ সিফাত হত্যা মামলার রায়ে আত্মহত্যা প্ররোচনার দায়ে স্বামী মো. আসিফ প্রিসলির ১০ বছরের কারাদ- এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদ- দেন আদালত। সিফাতের শ্বশুর-শ্বাশুড়ি ও ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসকের জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত তাদেরকে  খালাস দেন।

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সভাপতি ড. প্রদীপ কুমার পা-ের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. মশিহুর রহমান, সহকারী অধ্যাপক ড. মো. মোজাম্মেল হোসেন বকুল, প্রভাষক মো. মামুন আ. কাইয়ুম, সোমা দেব, মো. আব্দুলাহীল বাকীসহ বিভাগের শতাধিক শিক্ষার্থী।

উল্লেখ, ২০১৫ সালের ২৯ মার্চ সন্ধ্যায় রাজশাহী মহানগরের মহিষবাথান এলাকায় শ্বশুর বাড়ি থেকে ওয়াহিদা সিফাতের লাশ উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনার চার দিন পর ওয়াহিদার চাচা মিজানুর রহমান খন্দকার রাজপাড়া থানায় সিফাতের স্বামী আসিফ, শ্বশুর হোসেন রমজান ও শাশুড়ি নাজমুন নাহার নাজলীকে আসামি করে মামলা করেন। পরে পুলিশ মরদেহের প্রথম ময়নাতদন্তকারী রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক জুবায়দুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়। মামলাটি পরে ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালে স্থানান্তর করা হয়।

ধর্মীয় উসকানির মামলায় ১৯ মার্চ খালেদার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল
                                  

অনলাইন ডেস্ক:

ধর্মীয় উসকানি ও বিভিন্ন শ্রেণির মধ্যে বিরোধ সৃষ্টির অভিযোগের মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ১৯ মার্চ দিন ধার্য করেছেন আদালত। এ নিয়ে প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ ২৮ বার পেছাল।

রোববার  মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য ছিল। তবে তদন্ত কর্মকর্তা প্রতিবেদন দাখিল না করায় ঢাকা মহানগর হাকিম এস এম মাসুদ জামান প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নতুন এ দিন ধার্য করেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৪ সালের ১৪ অক্টোবর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে হিন্দু সম্প্রদায়ের শুভ বিজয়ার অনুষ্ঠানে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন খালেদা জিয়া। বক্তৃতার এক পর্যায়ে খালেদা জিয়া বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ধর্ম নিরপেক্ষতার মুখোশ পরে আছে। আসলে দলটি ধর্মহীনতায় বিশ্বাসী।’

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সব ধরনের মানুষের ওপর আঘাত করে। আর লোক দেখানো ধর্ম নিরপেক্ষতার কথা বলে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান দখল করে নেয়। ধর্ম নিরপেক্ষতার মুখোশ পরা এ জবর দখলকারী সরকারের হাতে কোনো ধর্মের মানুষই নিরাপদ নয়।’

এ বক্তব্যের মাধ্যমে দণ্ডবিধির ১৫৩ (ক) ও ২৯৫ (ক) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করায় খালেদার বিরুদ্ধে ঢাকা মহানগর হাকিম মোস্তাফিজুর রহমানের আদালতে ২০১৪ সালের ২১ অক্টোবর নালিশি মামলাটি করেন জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এবি সিদ্দিকী।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে ২০১৪ সালের ২১ অক্টোবর আদালত মামলাটি শাহবাগ থানার একজন পরিদর্শক পদমর্যাদার কর্মকর্তাকে তদন্তের নির্দেশ দেন।

ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে ডাকাতি
                                  

বিশেষ প্রতিবেদনঃ
মহাসড়কে আশঙ্কাজনক হারে ডাকাতি বৃদ্ধির কারণে জনসাধারনের মনে দেখা দিয়েছে ভীতি। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও, রুপগঞ্জ, আড়াই হাজার, সিদ্ধিরগঞ্জ, ডেমরা থানা এলাকার বিভিন্ন স্থানে আশঙ্কাজনক হারে ডাকাতির ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে বিভিন্ন থানা এলাকার আইনশৃঙ্খলার পাশাপাশি হাইওয়ে পুলিশের কর্মকান্ড নিয়েও জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। একটি সূত্র জানায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সোনারগাঁ থানার আওতাধীন কাঁচপুরের নয়ামাটি, বন্দরের দেওয়ানবাগ, জাঙ্গাল, ত্রিবর্দী, সাদীপুরের বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র, আফিয়া সিএনজি স্টেশন, চৌরাস্তা মেনিখালী সেতু, পিরোজপুরের কনকর্ডের সামনে ও মৃধাকান্দি এলাকায় ডাকাতির ঘটনাগুলো বেশি ঘটে। সূত্র মতে, গত একমাসে এ সমস্ত স্থানে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে অন্তত ২০ টি। মহাসড়কে বিভিন্ন যানবাহনে আটকে থাকা যাত্রী, বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের গাড়ী থামিয়ে লুটে নিচ্ছে সর্বস্ব এবং স্থানীয় এলাকার আশেপাশের এলাকা বসবাসকারী নানান শ্রেণী পেশার মানুষের বসত বাড়িতে হামলা চালচ্ছে ডাকাত দলেরা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পিরোজপুর এলাকার বেশ কয়েকজন জানান, গত ৩ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার ভোরে পিরোজপুরের মৃধাকান্দি এলাকায় এক সৌদি প্রবাসীকে বহনকারী গাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ৫/৬ জনের দেশীয় অস্ত্রধারী ডাকাত দল ওই প্রবাসীর কাছ থেকে ১৫ হাজার সৌদি রিয়েল ও বাংলা ৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়ার পাশাপাশি বিদেশ থেকে আনা বিভিন্ন পণ্যের ৪টি ব্যাগও নিয়ে যায়। ডাকাতির ঘটনার শিকার গাড়িতে থাকা ওই প্রবাসীর মেয়ে স্থানীয় এক ডাকাতকে চিনে ফেলায় পরের দিন শনিবার এ বিষয়ে স্থানীয় গ্রামবাসীদের নিয়ে শালিস বসলেও অজ্ঞাত কারণে কোন সুরাহা হয়নি ঘটনাটির। এমনকি ওই প্রবাসীর মেয়ে ছাড়া ডাকাতি শেষ করে চলে যাওয়ার সময় স্থানীয় এক দোকানদার ডাকাতদের চিনলেও নিজের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে সে নাম প্রকাশ করেনি। রুপগঞ্জের তারাব পৌরসভার গন্ধবপুর পর পর দুইটি বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। প্রথম দিন ডাকাত দল সফল হলেও পরের দিবাগত গভীর রাতে ডাকাত দলের উপস্থিতি টের পেয়ে মসজিদের মাইকে ঘোষনা দেওয়া হলে ডাকাত দল পিছু হটে বলে ভূক্ত ভোগীরা জানান। রুপগঞ্জ থানা পুলিশের নিরাপত্তা তদারকি আরও বৃদ্ধি করার জন্য দাবী জানান এলাকার জনসাধারন। ডাকাত দলের সদস্যরা নিরাপদে বাস করতে চনপাড়া পূনর্বাসন কেন্দ্রকে বেছে নিয়েছে। খোজ নিয়ে জানা গেছে ডাকাত সরদার নাজমুল এর নিয়ন্ত্রনে কয়েকটি ডাকাত দল রয়েছে। যাদের বসবাস রুপগঞ্জের কায়েতপাড়া ইউনিয়নের চনপাড়া পূর্নবাসন কেন্দ্রের ৩ নং ওয়ার্ডের কবরস্থান গলীর মাঝামাঝি রাজু ওরফে সিলেটি রাজুর শশুর বাড়িতে। প্রায় সময় তারা ডাকাতির লুট করা মালামাল বিক্রির জন্য এলাকায় ঘুরাঘুরি করতে দেখেছে এলাকা বাসি। থানা সূত্রে জানা যায়, নাজমুল ডাকাত সরদার সহ তার গ্রুপের সদস্যদের নামে সোনারগাঁও থানা এক ডর্জন ডাকাতি ছিনতাই এর মামলা রয়েছে। রুপগহ্জ থানায় ডাকাতি, ছিনতাই, মাদকের মামলাও প্রায় ডর্জন খানেক হবে। এলাকাবাসি জানাজানি হওয়াতে আড়ালে চলে যায় ডাকাত সরদার নাজমুল ও তার নিয়ন্ত্রিত একাধিক ডাকাত গ্রুপ। নাজমুলের বিশ্বস্ত ব্যাক্তি মাদক সম্রাজ্ঞী তাসলী বেগম ও তার ৪র্থ স্বামী বাবুল ওরফে গাঞ্জা বাবুল, হেলাল উদ্দিন ওরফে (ইয়াবা সম্রাট গিল্টি হেলাল) দিনের বেলায় মাদক বিক্রি করে থাকে নাজমুল ও তার গ্রুপের সদস্যদের দিয়ে। তাদের উপরে রয়েছে এখন ওয়ার্ড সদস্য বিউটি আক্তার কুট্টি। সূত্র জানায়, এর আগের বুধবার রাতেও একই স্থানে আরো একটি ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি চাপাতি ও একটি চাঁদর উদ্ধার করে। পরে উদ্ধারকৃত চাপাতি ও চাঁদর স্থানীয় দুইজন গ্রামবাসীকে ব্যবহার করতেও না-কি পুলিশ দিয়ে আসে। কিন্তু ডাকাতদের আটক করতে কোন পদক্ষেপ নেয়নি। এরআগেও অল্পকয়েক দিনের ব্যবধানে অন্তত ৭ বার পিরোজপুরের বিভিন্ন স্থানে পরিবহনে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে বলে সূত্রগুলো দাবি করে। অপরদিকে, চলতি মাসের ৬ ফেব্রুয়ারী চৌরাস্তা বাসস্ট্যান্ডের পাশে আফিয়া সিএনজি স্টেশনের সামনে ডাকাতির শিকার হোন কুমিল্লা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি। থানায় অভিযোগের পর পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালায়। ডাকাতরা পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে পুলিশের উপর হামলা করে। এসময় ডাকাতদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মানবাধিকার কর্মী পরিচয় দানকারী পুলিশের সোর্স রাব্বি রক্তাক্ত জখম হয়। এঘটনায় পুলিশ তাওহিদ নামে এক ডাকাতকে আটকের পাশাপাশি ডাতির কাজে ব্যবহৃত গাড়ি, চাঁপাতি ও ৬টি মোবাইল সেট উদ্ধার করে। তাছাড়া, গত ৮ ফেব্রুয়ারী মেঘনা নদীতে ককটেল ফাটিয়ে গরু বোঝাই একটি ট্রলারে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। অপরদিকে, সাদীপুরের বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র, আফিয়া সিএনজি স্টেশন ও ত্রিবর্দী এলাকায় শুধু জানুয়ারী মাসেই মহাসড়কে যানজটের সময় ডাকাতির শিকার হয়েছেন কমপক্ষে ১৫ জন। গাজী(বীরপ্রতিক)এমপি, নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে চনপাড়া পূনর্বাসন কেন্দ্রের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। প্রতিটি ওয়ার্ডে সুপ্রিয় পানির ব্যবস্থা করা, গলির সরু রাস্তা প্রশস্ত করা, মদজিদের উন্নয়ন করা থেকে শুরু করে স্কুল, মাদ্রাসা সকল ক্ষেত্রেই উন্নয়নমূলকাজ সাংসদের হাত ধরেই হয়েছে। প্রতিটি পরিবারের শিশুরা এখন স্কুলে যাচ্ছে,পূনর্বাসন কেন্দ্রের শিক্ষার্থীরা ঢাকায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালযের মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়া লেখা করতে পারছে। সাংসদের সদইচ্ছার প্রতিফন হিসেবে বর্তমান সরকারের আমলে উন্নয়ন যা বাস্তবায়ন হয়েছে বলেন চনপাড়া বাসিরা। কিন্তু সাংসদের চোখ ফাকি দিয়ে পূর্বে একই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য বজলুর রহমান ওরফে মাদক ডিলার ওরফে সন্ত্রাসী বজলুকে বর্তমান সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড সদস্য বিউটি আক্তর কুট্টি সেল্টার দিয়ে নিয়ন্ত্রন করছে বলে জানা যায়।

খালেদার বিরুদ্ধে ৫ মার্চ গ্যাটকো মামলায় অভিযোগ গঠন
                                  

অনলাইন ডেস্ক:

গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য আগামী ৫ মার্চ দিন ধার্য করেছেন আদালত।

রোববার আসামিপক্ষের সময়ের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩ এর বিচারক আবু আহমেদ জমাদার এ দিন ধার্য করেন।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী সাবেক চারদলীয় জোট সরকারের প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া, তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় এ মামলা করেন। মামলার পরদিন খালেদা জিয়া ও কোকোকে গ্রেফতার করা হয়।

ওই বছরেরই ১৮ সেপ্টেম্বর মামলাটি অন্তর্ভুক্ত করা হয় জরুরি ক্ষমতা আইনে। পরের বছর ১৩ মে খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র দেয়া হয়। অভিযোগপত্রে বলা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গ্যাটকোকে ঢাকার কমলাপুর আইসিডি ও চট্টগ্রাম বন্দরের কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের কাজ পাইয়ে দিয়ে রাষ্ট্রের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৬ টাকার ক্ষতি করেছেন।

পরে মামলাটি জরুরি ক্ষমতা আইনের অন্তর্ভুক্ত করার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে এবং বিচারিক আদালতে মামলার কার্যক্রমের উপর স্থগিতাদেশ চেয়ে ২০০৭ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টে আলাদা দুটি রিট আবেদন করেন খালেদা জিয়া ও আরাফাত রহমান কোকো। এর তিনদিন পর খালেদা ও কোকোর বিরুদ্ধে মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে রুল দেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে মামলাটি জরুরি ক্ষমতা আইনের অন্তর্ভুক্ত করা কেন ‘বেআইনি ও কর্তৃত্ব বহির্ভূত’ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চাওয়া হয় রুলে। তবে হাইকোর্টের দেয়া স্থগিতাদেশ পরে আপিল বিভাগে বাতিল হয়ে যায়।

দুদক আইনে গ্যাটকো মামলা দায়েরের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ২০০৮ সালে আরেকটি রিট আবেদন করেন খালেদা জিয়া। তার আবেদনে হাইকোর্ট আবারও মামলার কার্যক্রমের উপর স্থগিতাদেশ দেন এবং মামলাটি কেন বাতিলের নির্দেশ দেয়া হবে না- এ মর্মে রুল জারি করেন।

মামলার উল্লেখযোগ্য অন্য আসামিরা হলেন- বিগত চারদলীয় জোট সরকারের মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন, এম শামসুল ইসলাম, এম কে আনোয়ার, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী এবং জামায়াতের সাবেক আমির মতিউর রহমান নিজামী।

মামলার ২৪ আসামির মধ্যে খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকো, সাবেক অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমান, বিএনপির সাবেক মহাসচিব আব্দুল মান্নান ভূঁইয়া ও সাবেক মন্ত্রী মতিউর রহমান নিজামী মারা যাওয়ায় এখন আসামির সংখ্যা ২০।


   Page 1 of 13
     আইন শৃংখলা
দেশে ২৫শতাংশ বনাঞ্চল করতে পারলে অসম্ভব অর্জন হবে- গাজীপুরে র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ
.............................................................................................
রাণীনগরে সেনাবাহিনীর ফ্রি চিকিৎসা সেবা
.............................................................................................
বরুড়ায় মাদক বিরোধী সভায় মাদক সেবীদের হামলায় আহত ৩
.............................................................................................
বেনাপোলে৭টি স্বর্নের বার সহ পাসপোর্ট যাত্রী আটক
.............................................................................................
মাগুরায় মৃত্যুর ১ মাস পর লাশ উত্তোলন
.............................................................................................
বিচারের সাথে কাজের প্রতি আন্তরিকতা কাঙ্খিত ন্যায় বিচারের পূর্বশর্ত
.............................................................................................
হিযবুত তাহরীর
.............................................................................................
মহাখালী থেকে শুল্কমুক্ত সুবিধায় আনা আরও একটি গাড়ি আটক
.............................................................................................
রাজধানীর ২৫ পয়েন্টে বৃহস্পতিবার যান চলাচল বন্ধ
.............................................................................................
মুকসুদপুরে সাজা প্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার
.............................................................................................
শ্রীপুরের ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল থেকে আটক ৩
.............................................................................................
দায়িত্বের প্রতিটি পর্বই যিনি আন্তরিকতা দিয়ে প্রতিপালন করেন
.............................................................................................
সিফাত হত্যা মামলার রায় পুনর্বিবেচনার দাবি
.............................................................................................
ধর্মীয় উসকানির মামলায় ১৯ মার্চ খালেদার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল
.............................................................................................
ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে ডাকাতি
.............................................................................................
খালেদার বিরুদ্ধে ৫ মার্চ গ্যাটকো মামলায় অভিযোগ গঠন
.............................................................................................
১ মার্চ খালেদা-গয়েশ্বরের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল ধার্য
.............................................................................................
গাজীপুরে গৃহবধূকে হত্যার ঘটনায় ফাঁসির আদেশ
.............................................................................................
খালেদা জিয়া সময় চান
.............................................................................................
বিশেষ আদালতে খালেদা জিয়া হাজির হন
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা : তদন্ত কর্মকর্তাকে জেরার তারিখ পিছিয়েছে
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তি’র মামলায় পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের চেয়ারম্যান মাগুরার আদালতে হাজির হয়ে জামিন নিলেন
.............................................................................................
এমবিএ শিক্ষার্থী পুলিশের নির্যাতনের শিকার ॥ জগন্নাথ ক্যাম্পাসে ক্ষোভ
.............................................................................................
‘বাঙালি দুষ্কৃতকারী’র ব্যাখ্যা দিতে গাইবান্ধার ডিসি আদালতে
.............................................................................................
মাগুরায় সাজাপ্রাপ্ত আসামীর আদালতে আত্মসমর্পন
.............................................................................................
ইনেস্পেক্টর অপারেশন হিসাবে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় যোগ দিয়েছেন নাসির উদ্দিন সরকার
.............................................................................................
বরিশালে নিষিদ্ধ জালসহ ২৭ জেলে আটক
.............................................................................................
কমলগঞ্জ উপজেলার শহীদনগর বাজার থেকে আগ্নেয়াস্ত্র সহ আটক-০২
.............................................................................................
গোলাপগঞ্জে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা
.............................................................................................
গাইবান্ধায় নির্বাচনী আচরণ বিধি লংঘনের দায়ে প্রার্থীসহ ৫ প্রার্থীর জরিমাণা
.............................................................................................
নড়িয়ার পদ্মায় অভিযানে ৩৫ জেলে আটক
.............................................................................................
মুন্সীগঞ্জে অস্ত্রসহ শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রেফতার
.............................................................................................
শ্রীমঙ্গলে ডাকাতি
.............................................................................................
মতিঝিলে ফরমা পাকড়াও তৎপরতা ॥ এ্যাচিভমেন্ট প্রায় শুন্যের কোঠায়
.............................................................................................
খিলগাঁও সোর্স পাকড়াও অভিযান স্থবির ; তবুুুও পুলিশ বিপাকে
.............................................................................................
সাটুরিয়ায় গুলি করে লক্ষ টাকা ছিনতাই, আটক তিন
.............................................................................................
ভোলা লালমোহনে ওসিকে দুই লাক্ষ টাকা ঘুষ না দিয়ে কপালে জুটছে চুরির মামলা
.............................................................................................
চাঁপাইনবাবগঞ্জে এক জেএমবি সদস্যকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ
.............................................................................................
বেনাপোলে ২৮হাজার ডলার সহ যাত্রী আটক-
.............................................................................................
প্রতারক চক্রের ২ বিদেশিসহ ৫ সদস্য আটক
.............................................................................................
ডিবি হেফাজতে তিন নারী জঙ্গি
.............................................................................................
ফতুল্লায় সন্ত্রাসীর সঙ্গে পুলিশের গোলাগুলি, অস্ত্রসহ আটক ১
.............................................................................................
সৈয়দপুরে বাবা-ছেলে আটক হেরোইনসহ
.............................................................................................
আদালত ৫৪ ধারা থেকে তাহমিদকে অব্যাহতি দিয়েছে!
.............................................................................................
কালিয়াকৈরে ডাকাত জুবায়ের ইয়াবা সহ গ্রেফতার
.............................................................................................
গোপালগঞ্জের রঘুনাথপুরে দূর্ধর্ষ ডাকাতি : ১৫ লক্ষ টাকা ও ১৪ ভরি স্বর্ণালংকার লুট
.............................................................................................
কমলনগরে জামায়াতের আমিরসহ আটক ৪
.............................................................................................
তথ্য দাতাই হলেন আসামি !
.............................................................................................
কালীগঞ্জে দেশীয় অস্ত্রসহ এক যুবক আটক
.............................................................................................
কুষ্টিয়ায় শিশু অর্পা হত্যা মামলায় ফাঁসির আদেশ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
[ সম্পাদক মন্ডলী ]
2, RK Mission Road (5th Floor) Motijheel, Dhaka - 1203.
মোবাইল: ০১৭১৩৫৯২৬৯৬, ০১৯১৮১৯৮৮২৫ ই-মেইল : deshkalbd@gmail.com
   All Right Reserved By www.deshkalbd.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]