| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
   * শ্রীপুরে ট্রেনের নিচে বাবা-মেয়ে আত্মাহুতির ঘটনায় গ্রেফতার-১   * রাম নাথ কোভিন্দকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন   * টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে : স্পিকার   * বিএনপির লন্ডন মার্কা সহায়ক সরকার জনগণ মানবে না : ওবায়দুল কাদের   * শিগগিরই বিচারকদের শৃঙ্খলা বিধির গেজেট: আইনমন্ত্রী   * নির্বাচন কমিশনের সচিব পরিবর্তন   * সরকার মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চায় : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   * চিকুনগুনিয়া রোগীর বাড়ি গিয়ে চিকিৎসা দেবে ঢাকা দক্ষিণ সিটি   * ‘আকাশ সংস্কৃতিতে যা ক্ষতিকর তা বর্জন করুন’   * সবার সহযো‌গিতায় দুর্যোগ মোকা‌বিলা : ত্রাণমন্ত্রী  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   তথ্য-প্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
বিশ্বের ৯৯ দেশে একযোগে সাইবার হামলা

অনলাইন ডেস্ক:

বিশ্বজুড়ে ৯৯টি দেশে একযোগে বড় ধরনের সাইবার হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে আক্রান্ত হয়েছে স্বাস্থ্য ও টেলিকমসহ বিভিন্ন খাতের বেশ কিছু বড় প্রতিষ্ঠানের নেটওয়ার্ক। এটি এক ধরনের র‌্যানসমওয়্যার (ম্যালওয়্যার) মাধ্যমে করা হয়েছে। খবর বিবিসির। 

আক্রমণের শিকার এসব দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ‘র‍্যানসমওয়্যার’ ছড়িয়ে কম্পিউটারের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়া হয়েছে। নিয়ন্ত্রণ ফিরে পেতে ডিজিটাল মুদ্রা ‘বিট কয়েনের’ মাধ্যমে ৩০০ ডলার করে চাওয়া হয়েছে।

জানা যাচ্ছে, ৯৯টি দেশের কম্পিউটার এই হামলা শিকার হয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, চীন, রাশিয়া, স্পেন, ইটালি আর তাইওয়ান।

আবার অনেক দেশের স্বাস্থ্য, টেলিকম বা যোগাযোগের মতো গুরুত্বপূর্ণ খাত এই হামলার শিকার হয়েছে। বিশেষ করে বড় ধরণের হামলার মুখে পড়েছে যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস। দেশটির হাসপাতালে জরুরি চিকিৎসা সেবা বন্ধ করে রাখতে হয়।

স্পেনের টেলিকম ও জ্বালানি কোম্পানি, যুক্তরাষ্ট্রের পণ্য ডেলিভারি কোম্পানি ফেডএক্স এই হামলার শিকার হয়েছে।

সাইবার নিরাপত্তা সংস্থা অ্যাভাস্ট বলছে, ওয়ানাক্রাই এবং ভ্যারিয়্যান্ট নামের র‍্যানসমওয়্যারের শিকার ৭৫ হাজার কম্পিউটার আক্রান্ত হওয়ার তথ্য পেয়েছে তারা। সংস্থাটির ম্যালওয়্যার বিশেষজ্ঞ জ্যাকব ক্রুসটেক বলছেন, এটা বিশাল একটা ব্যাপার।

‘র‍্যানসমওয়্যার’ হচ্ছে এমন এক ধরণের ম্যালওয়্যার বা ভাইরাস, যা কম্পিউটারের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ব্যবহারকারীর এক্সেসে বাধা দেয়। অনেক সময় হার্ডডিস্কের অংশ বা ফাইল পাসওয়ার্ড দিয়ে এক্সেস বন্ধ করে দেয় এবং পরে ওই কম্পিউটারের নিয়ন্ত্রণ ফেরত দেয়ার জন্য মুক্তিপণ বা অর্থ দাবি করা হয়। ‘ট্রোজান ভাইরাসের’ মতো এ ধরণের ম্যালওয়্যার এক কম্পিউটার থেকে অন্য কম্পিউটারে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অনেক ক্ষেত্রে মিল দেখা গেলেও, নির্দিষ্ট করে কোন লক্ষ্যবস্তুতে এই হামলা চালানো হয়নি।

ধারণা করা হচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা সংস্থা এনএসএর তৈরি করা একটি টুল ব্যবহার করে এই সাইবার হামলা চালানো হয়। গত এপ্রিলে শ্যাডো ব্রোকারস নামের হ্যাকাররা ওই প্রযুক্তিটি চুরি করে এবং ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়। গত মার্চে এটি ঠেকাতে একটি নিরাপত্তা প্যাচ ছাড়ে মাইক্রোসফট, কিন্তু অনেক কম্পিউটার তাতে আপডেট করা হয়নি।

সূত্র: বিবিসি

বিশ্বের ৯৯ দেশে একযোগে সাইবার হামলা
                                  

অনলাইন ডেস্ক:

বিশ্বজুড়ে ৯৯টি দেশে একযোগে বড় ধরনের সাইবার হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে আক্রান্ত হয়েছে স্বাস্থ্য ও টেলিকমসহ বিভিন্ন খাতের বেশ কিছু বড় প্রতিষ্ঠানের নেটওয়ার্ক। এটি এক ধরনের র‌্যানসমওয়্যার (ম্যালওয়্যার) মাধ্যমে করা হয়েছে। খবর বিবিসির। 

আক্রমণের শিকার এসব দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ‘র‍্যানসমওয়্যার’ ছড়িয়ে কম্পিউটারের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়া হয়েছে। নিয়ন্ত্রণ ফিরে পেতে ডিজিটাল মুদ্রা ‘বিট কয়েনের’ মাধ্যমে ৩০০ ডলার করে চাওয়া হয়েছে।

জানা যাচ্ছে, ৯৯টি দেশের কম্পিউটার এই হামলা শিকার হয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, চীন, রাশিয়া, স্পেন, ইটালি আর তাইওয়ান।

আবার অনেক দেশের স্বাস্থ্য, টেলিকম বা যোগাযোগের মতো গুরুত্বপূর্ণ খাত এই হামলার শিকার হয়েছে। বিশেষ করে বড় ধরণের হামলার মুখে পড়েছে যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস। দেশটির হাসপাতালে জরুরি চিকিৎসা সেবা বন্ধ করে রাখতে হয়।

স্পেনের টেলিকম ও জ্বালানি কোম্পানি, যুক্তরাষ্ট্রের পণ্য ডেলিভারি কোম্পানি ফেডএক্স এই হামলার শিকার হয়েছে।

সাইবার নিরাপত্তা সংস্থা অ্যাভাস্ট বলছে, ওয়ানাক্রাই এবং ভ্যারিয়্যান্ট নামের র‍্যানসমওয়্যারের শিকার ৭৫ হাজার কম্পিউটার আক্রান্ত হওয়ার তথ্য পেয়েছে তারা। সংস্থাটির ম্যালওয়্যার বিশেষজ্ঞ জ্যাকব ক্রুসটেক বলছেন, এটা বিশাল একটা ব্যাপার।

‘র‍্যানসমওয়্যার’ হচ্ছে এমন এক ধরণের ম্যালওয়্যার বা ভাইরাস, যা কম্পিউটারের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ব্যবহারকারীর এক্সেসে বাধা দেয়। অনেক সময় হার্ডডিস্কের অংশ বা ফাইল পাসওয়ার্ড দিয়ে এক্সেস বন্ধ করে দেয় এবং পরে ওই কম্পিউটারের নিয়ন্ত্রণ ফেরত দেয়ার জন্য মুক্তিপণ বা অর্থ দাবি করা হয়। ‘ট্রোজান ভাইরাসের’ মতো এ ধরণের ম্যালওয়্যার এক কম্পিউটার থেকে অন্য কম্পিউটারে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অনেক ক্ষেত্রে মিল দেখা গেলেও, নির্দিষ্ট করে কোন লক্ষ্যবস্তুতে এই হামলা চালানো হয়নি।

ধারণা করা হচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা সংস্থা এনএসএর তৈরি করা একটি টুল ব্যবহার করে এই সাইবার হামলা চালানো হয়। গত এপ্রিলে শ্যাডো ব্রোকারস নামের হ্যাকাররা ওই প্রযুক্তিটি চুরি করে এবং ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়। গত মার্চে এটি ঠেকাতে একটি নিরাপত্তা প্যাচ ছাড়ে মাইক্রোসফট, কিন্তু অনেক কম্পিউটার তাতে আপডেট করা হয়নি।

সূত্র: বিবিসি

ফেইজবুক এখন প্রতারক ও মাাদক সন্ত্রাসীদের নিরাপত্তা আশ্রয়
                                  

কামরুজ্জামান মিল্টন:  ফেইজবুকের অপব্যবহার নতুন নয়। বরাবরই ফেইজবুকের মাধ্যমে একটি শ্রেনী হীনস্বার্থ চরিতার্থ করে আসছে বা করার চেষ্টা করেছে। আর এতে সরকারিভাবে ফেইজবুক ব্যবহারের ওপর বিভিন্ন রকম নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে। কিন্তু তার পর ও থেমে এর নেই অপব্যবহার। ইদানিং আবার এর সাথে অপব্যবহারের নতুন কায়দায় ও মাত্রায় যুক্ত হয়েছে। একদিকে যেমন কতিপয় সুশীল শ্রেনী  নির্বিঘ্নে ফেইজবুক পেইজের মাধ্যমে রমরমা প্রতারনা বানিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে।অন্যদিকে তেমনি একশ্রেনীর ছদ্মবেশী মাদক সন্ত্রাসীরা অপরাধমুলক কর্মকান্ডে জড়িত থেকেও নিজেকে নিরাপরাধী বা প্রভাবশালী বলে জাহির করার নিপুন সুযোগ নিচ্ছে বলে ফেইজবুক ব্যবহারকারী ইউনিট (fuu) নামের একটি সংগঠন এ তথ্য দিয়েছে। যদিও ওই সংগঠনের কর্ম পরিধি ও সাংগঠনিক তৎপরতা সম্পর্কে স্পষ্ঠ কোন তথ্য উপাত্য পাওয়া যায়নি। তবুও তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বেশ কয়েকটি ফেইজবুক আইডির মালিকের খোজ খবর নিয়ে এর সত্যতা পাওয়া যায়। ওই সব আইডির মালিকদের বেশীর ভাগ সোর্স কথিত গনমাধ্যমকর্মী ও ছদ্মবেশী মাদক কারবারী। তারা সবার চোখে ধুলা দিয়ে বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকান্ডের ছবি ফেইজবুক পেইজে আপ-লোড করে সুশীল সমাজের কাতারে নির্বিঘ্নে দাড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছে। আর অন্যদিকে বাস্তব ক্ষেত্রে এদের পেশা ও জীবন যাত্রার সব কিছু অস্পষ্ঠ। তবে এদের বেশীর ভাগই বিভিন্ন ধরনের অপরাধ প্রবনতায় সক্রিয় থেকে ও ফেইজবুককে ঢাল হিসাবে ব্যবহার করে সম্পূর্ন নিরাপদ থাকছে। fuu ওই সব আইডির মালিকদের মধ্যে wahiduzzaman k@gmail.com razaul islam razu সাথে যুক্ত ১০টি আইডির মালিকের খোজ খবর নিয়ে তাদের কর্মকান্ড জীবনযাত্রার মান ও সামাজিক অবস্থান সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত বিবরনী তুলে ধরে। সেখানে বলা হয় উল্লেখিত দুটি আইডির মালিকের সম্পর্কে বলা হয় ওয়াহিদুজ্জামান ও রেজাউল ইসলাম রাজু পেশাগত ভাবে তুখোড় গনমাধ্যমকর্মী হিসাবে নিজেদেরকে জাহির করলে ও আদৌ গনমাধ্যমের কোন কর্মকান্ডের সাথে তারা সম্পৃক্ত নাই। দুজনের একজন মারাত্বকভাবে মাদকাসক্ত। বিগত সময়ে নানা প্রকার অপরাধমুলক কর্মকান্ডে জড়িয়ে আইনের চোখের তিনি একজন অপরাধী। আর তাই তিনি নিজের নিরাপত্তার কথা ভেবে এক অভিনব কৌশল রপ্ত করেছেন। আর তা হলো ফেইজবুক পেইজে সরকার দলীয় প্রভাবশালী লোকজনের সাথে ছবি তুলে তা আপ-লোড করা। এভাবে তিনি বেশ কিছু দিন ধরে বেশ নিরাপদে রয়েছেন। তবে গতানুগতিক অপরাধমুলক কর্মকান্ড থেকে নিরাপদ দুরত্বে আছেন কিনা-তা নিয়ে ভিন্ন মত রয়েছে। আর দ্বিতীয়জন রেজাউল ইসলাম অন-লাইন সংবাদ পত্রের সংগঠনের চেয়ারম্যান। তিনি ও আদৌ কখনও কোন সংবাদ পত্রের সাথে কাজ করেন নি। ওই সংগঠনের কথিত চেয়ারম্যান বনে গিয়ে তিনি সারা দেশের একজন প্রখ্যাত সাংবাদিক বলে নিজের পেইজে নিজেই লিখে ফায়দা হাসিলে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। তিনি সারা দেশে প্রতি ১০দিন অন্তর একবার প্লেন দিয়ে সফর করেন। জেলায় জেলায় মোটা অংকের ডোনেশন দিয়ে কমিটি দেন। সাথে দুই দুইজন পিএস এপিএস থাকে। আবার প্লেন থেকে নামার সময় একবার প্লেনে ওঠার সময় একবার ছবি তুলে তা পেইজে লোড ও করা হয় যখন তখন। কিন্তু তিনি যে সংগঠনের কমিটি দিয়ে বেড়াচ্ছেন- তার কোন কার্যক্রম পর্যন্ত নাই। অথচ তিনি নির্বিঘ্নে মফস্বল অঞ্চলের সহজ-সরল লোকদেরকে বোকা বানিয়ে রাজকীয় হালে চলছে। তার এসব প্রতারনার মুল হাতিয়ার হলো ফেইজবুক। এমপি মন্ত্রীসহ ক্ষমতাশীল লোকদের সাথে ছবি তুলে ও এক এলাকায় প্লেন দিয়ে যাওয়া আসা করে সেই ছবি আপ-লোড করে মানুষ ঠকানোর ব্যবসায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। নিছক প্রতরনার মাধ্যমে উক্ত রেজাউল ইসলাম এভাবে সুশীল কাতারে দাড়ানোর সুযোগ নিচ্ছে। তার কর্মকান্ড ও পেশাদারিত্ব বিবেচনায় এটা ঠকবাজি বলে উল্লেখ করেছে-fuu । আর এদুটি আইডির সাথে অধিকতর  সম্পর্কযুক্ত ৩০উর্ধ্ব বয়সী আর একটি   আইডির মালিকের খোজ খবর নিয়ে তার সম্পর্কে উদ্বেগজনক কিছু তথ্য তুলে ধরা হয়। সেখানে উল্লেখ করা হয় ওই আইডির মালিক মতিঝিল ও আশ-পাশ এলাকার  ওয়ান ইলেভেনের পুর্বভাগের কুখ্যাত সন্ত্রাসী। সে ওই সব এলাকায় ওই সময়ের একাধিক অস্ত্র মাদক ও হত্যা মামলার আসামি। দীর্ঘদিন গা ঢাকা দিয়ে থেকে বর্তমানে ও তিনি একজন প্রভাবশালী মাদক ব্যবসায়ী হলে ও সুশীল সমাজের লোক ও সম্পুর্ন নিরাপদ ও  বটে। আর তার এসব জাদুকরি কৌশলের মুল ভিত্তি হলো ফেইজবুক পেইজ। সেখানে এলাকা ভিত্তিক প্রভাবশালী লোক এমপি এমন কি পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সাথে ছবি তুলে তা নিয়োমিত আপ-লোড করছে। যাতে অনেকে ধারনা করছে এত ভাল ও ক্ষমতাশালী সাথে যার ওঠাবসা সে অবশ্যই ক্ষমতাধর। আর fuu মতে এভাবেই এরা প্রত্যেকেই অপরাধী হয়ে ও ফেইজবুক পেইজের মাধ্যমে নিজেকে নিরাপরাধী হিসাবে জাহির করার নতুন বেছে নিয়েছ। ফলে এসব অপরাধী নিরবে ধরাছোয়ার বাইরে থেকে দেশ ও জাতির মারাত্বক ক্ষতি করে যাচ্ছে। 

 

 

লাল আইফোন বিক্রির অর্থ এইডস রোগীদের জন্য ব্যয় হবে
                                  

অনলাইন ডেস্ক:

আইফোন ৭ মডেলের ফোনটি বিশ্বের বাজারে খুব জনপ্রিয়তা পেয়েছে। সম্প্রতি টেক জায়ান্ট অ্যাপল তাদের আইফোন ৭ মডেলে লাল রংয়ের সংস্করণ নিয়ে এসেছে। উজ্জ্বল রেটিনার ডিসপ্লে নিয়ে ৯ দশমিক ৭ ইঞ্চির এই আইপ্যাড বাজারে আনা হয়েছে।

লাল রংয়ের নতুন এই ডিভাইস আইফোন ৭ এবং ৭ প্লাস হিসেবে উন্মুক্ত করা হয়েছে। আইফোন ৭ মডেলে ওয়্যারলেস চার্জার বা গ্লাস কেসিংয়ের পরিবর্তে লাল রংয়ের সংস্করণ নিয়ে এসেছে।

লাল এই আইফোন নিয়ে চমক তো থাকছেই। তবে সবচেয়ে বড় আশার কথা হচ্ছে নতুন এই আইফোনের বিক্রিত অর্থ এইডস রোগীদের সহায়তার জন্য ব্যয় করা হবে। প্রতিষ্ঠানটির তরফ থেকে এমন ঘোষণাই দেয়া হয়েছে।

অ্যাপলের দীর্ঘদিনের সহযোগী সংস্থা রেড বিশ্বব্যাপী এইডস আক্রান্তদের জন্য ফান্ড জমা করে থাকে। নতুন এই আইফোনের বিক্রিত অর্থ এইচআইভি ও এইডস আক্রান্তদের চিকিৎসা সহায়তার জন্য রেডের ফান্ডে জমা করা হবে।

অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টিম কুক মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘আমরা যখন ১০ বছর আগে রেডের সঙ্গে কাজ শুরু সেসময় অনেকেই ছিলেন যারা এইডস আক্রান্ত হয়েছিলেন। তারা ক্রমাগত এই রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করছিলেন। আমাদের গ্রাহকরা আমাদের পণ্য কিনে এইডস রোগীদের লড়াইয়ে সহায়তা করেছে। এ ক্ষেত্রে  গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন চোখে পড়েছে। এবারও সেই ধারা অব্যাহত রাখা হবে।

বিশ্বব্যাপী এইডস রোগীদের জন্য অর্থ সহায়তা দানকারী সবচেয়ে বড় কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান অ্যাপল। তারা ১৩০ মিলিয়ন ডলারের বেশি অর্থ সহায়তা দিচ্ছে।

দৃষ্টিহীনরা হাতঘড়ির মাধ্যমে যেভাবে যোগাযোগ করতে পারবেন
                                  

অনলাইন ডেস্ক:

দৃষ্টিহীনদের চলাফেরার সুবিধার্থে এবার হাতঘড়ি তৈরি করেছে দক্ষিণ কোরীয় সংস্থা ‘ডট’। এই স্মার্টওয়াচের সাহায্যে দৃষ্টিহীনরা সহজেই মানুষদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন এবং রাস্তাঘাটের নির্দেশনা পাবেন।

এই স্মার্টওয়াচ দিয়ে ম্যাসেঞ্জারের মতো যে কোনও অ্যাপের সাহায্যে কথাবার্তা চালানো যাবে। এমনকী গুগল ম্যাপের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করে পাওয়া যাবে বিভিন্ন রাস্তার নির্দেশনাও।

ব্লুটুথের সাহায্যে এই ঘড়ি কানেক্ট করা যাবে যে কোনও স্মার্টফোনের সঙ্গে। ফলে সেই ফোন থেকে ম্যাসেঞ্জারের মতো অ্যাপের সাহায্যে সহজেই ম্যাসেজ ঢুকবে এই ঘড়িতে। এই ঘড়ির উপরে রয়েছে চারটি ব্রেল সেল। প্রতিটিতে ছয়টা করে বল রয়েছে। ওই বলগুলি আসলে ব্রেল-এর এক একটি অক্ষর। এবার ওই বলগুলিই ঘুরিয়ে ফিরিয়ে অপরকে মেসেজ পাঠানো যাবে। কতটা দ্রুতগতিতে তা করা যাবে তা-ও নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন ব্যবহারকারী। ঘড়ির পাশের বাটনগুলি দিয়েও ম্যাসেজ পাঠানো যাবে।

প্রাথমিকভাবে আগামী মার্চ থেকে এই স্মার্টওয়াচ বিক্রি হবে লন্ডনের বিভিন্ন দোকানে। চলতি বছরেই এ ধরনের ১ লাখ ঘড়ি তৈরির লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে ডট। ইতিমধ্যেই ২০১৮-র জন্য ৪০ হাজার ঘড়ি তৈরি করে ফেলেছে ‘ডট’।

উল্লেখ্য, দৃষ্টিহীনদের জন্য বাজারে আগেই বিভিন্ন ধরনের ডিজিটাল ডিভাইস ছিল। তবে তাতে মেসেজ আসত অডিও-তে। ফলে তা শোনার জন্য কানে দিতে হত হেডফোন।

বিশ্বসেরা ৫ ক্যাটাগরিতে সেরা ৫ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের নাম তুলে ধরা হলো
                                  

অনলাইন ডেস্ক:

বিশ্বে বর্তমানে প্রযুক্তিবিষয়ক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সবচেয়ে সেরা ১০টির তালিকা তৈরি করেছে নিউইয়র্কভিত্তিক খ্যাতনামা ম্যাগাজিন ফরচুন। ম্যাগাজিনটির তালিকা অনুযায়ী পাঁচ ক্যাটাগরিতে সেরা পাঁচটি প্রতিষ্ঠানের নাম তুলে ধরা হলো।

৫ ক্যাটাগরির বিশ্বসেরা ৫ প্রতিষ্ঠান

১. কম্পিউটার সফটওয়্যার
বিল গেটসের মাইক্রোসফট এই ক্যাটাগরিতে সবার শীর্ষে। এ ক্যাটাগরিতে দ্বিতীয় তালিকায় রয়েছে অ্যাডোবি সিস্টেম, তৃতীয় সেলসফোর্স ডটকম এবং চতুর্থ, পঞ্চম স্থান দখল করেছে যথাক্রমে ইনটুইট, এসএপি।

২. ইনফর্মেশন টেকনোলজি সার্ভিস
ডাবলিনভিত্তিক অ্যাক্সেনটুর প্রতিষ্ঠানটি এ ক্যাটাগরিতে প্রথম স্থানে রয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে  আইবিএম, তৃতীয় বুজ অ্যালেন হামিলটন হোল্ডিং, চতুর্থ  গার্টনার, ও পঞ্চম স্থানে রয়েছে কগনিজ্যান্ট টেকনোলজি সল্যুশন। এসবের মধ্যে ফরচুনের রেটিংয়ে ৭ দশমিক ৩৭  পয়েন্ট পেয়েছে অ্যাক্সেনটুর।

৩. ইন্টারনেট সার্ভিস ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান
ইন্টারনেট সার্ভিস সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে প্রথম স্থানে রয়েছে অ্যালফাবেট। এরপরে তালিকায় রয়েছে যোগাযোগ মাধ্যমের জনপ্রিয় সাইট ফেসবুক,  তৃতীয় অ্যামাজন ডটকম, চতুর্থ প্রিন্সিলাইন গ্রুপ এবং পঞ্চম স্থানে রয়েছে এক্সপিডিয়। এদের মধ্যে  ৭ দশমিক ৮৯ পয়েন্টে এগিয়ে রয়েছে অ্যালফাবেট।

৪. নেটওয়ার্ক ও অন্যান্য যোগাযোগ সরঞ্জাম
এ ক্যাটাগরিতে শীর্ষে উঠে এসেছে ডিয়াগোভিত্তিক প্রতিষ্ঠান কোয়ালকম। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে সিসকো সিস্টেমস, তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে রয়েছে যথাক্রমে কর্নিং, জুনিপার নেটওয়ার্কস ও সিয়েনা। এদের মধ্যে ৭ দশমিক ৮৩ পয়েন্টে এগিয়ে রয়েছে সান কোয়ালকম।

৫. টেলিকমিউনিকেশন
ডালাসভিত্তিক প্রতিষ্ঠান এটি অ্যান্ড টি টেলিযোগাযোগ ক্যাটাগরিতে এগিয়ে রয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে ভেরাইজন, তৃতীয় টেলিফোনিকা, চতুর্থ ভোডাফোন গ্রুপ এবং পঞ্চম স্থানে রয়েছে চায়না টেলিকমিউনিকেশনস। ৭ দশমিক ২৪ পয়েন্ট পেয়ে সবার আগে রয়েছে এটি অ্যান্ড টি।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের ৭৫ শতাংশ কাজ সম্পন্ : তারানা হালিম
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

শিগগিরই বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। 
তিনি বলেন, ইতোমধ্যে প্রকল্পের ৭৫ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। পরিকল্পনা মোতাবেক ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে নির্ধারিত সময়ে এটি উৎক্ষেপণ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। অবৈধ ভিওআইপি ব্যবসা ৯ শতাংশ কমে এসেছে। দ্রুতই এটা শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনা হবে।  
আজ শনিবার দুপুরে টাঙ্গাইলের ঘাটাইলের পাকুটিয়ার সৎসঙ্গ আশ্রমে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি। শ্রীশ্রী অনুকুল চন্দ্র ঠাকুরের ১২৯তম জন্মতিথী উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।  
সৎসঙ্গ বাংলাদেশের সভাপতি শ্রীকুঞ্জ বিহারী আদিত্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পাট কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান মো. কফিল উদ্দিন, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম প্রধান মো. জাকির হোসেন, সার্ক কালচার সোসাইটির কার্যকরী সভাপতি এটিএম মমতাজুল করিম, টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. এস আকবর খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল কাশেম মোহাম্মদ শাহীন, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক শহিদুল ইসলাম লেবু ও ঘাটাইল পৌরসভার মেয়র শহিদুজ্জামান খান। 

ইউটিউব লাইভ স্ট্রিমিং ফিচার এখন মোবাইলেও করা যাবে
                                  

অনলাইন ডেস্ক:

ইউটিউব ব্যবহারকারীরা এখন থেকে মোবাইলের মাধ্যমেও লাইভ স্ট্রিমিং করতে পারবেন। ইউটিউবের মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের সাহায্যেই এই লাইভ স্ট্রিমিং করা যাবে। তবে মোবাইলে ইউটিউব লাইভ স্ট্রিমিং করতে ন্যূনতম ১০ হাজার ফলোয়ার থাকতে হবে।

ইউটিউবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে বর্তমানে লাইভ স্ট্রিমিংয়ের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাওয়ায় এবার মোবাইল থেকে স্ট্রিমিং ফিচার চালু করলো ইউটিউব।

মোবাইল অ্যাপের সঙ্গে সরাসরি লাইভ স্ট্রিমিংয়ের সুবিধা যুক্ত করা হয়েছে। শুধু অ্যাপ খুলে ক্যাপচার বাটনে ক্লিক করলেই স্ট্রিমিং শুরু হয়ে যাবে। এর আগে ২০১৫ সালে ফেসবুকে রিয়েল টাইম লাইভ স্ট্রিমিং ফিচার চালু করা হয়।

লাইভ স্ট্রিমিংয়ের পাশাপাশি ‘সুপার চ্যাট’ নামে আরেকটি ফিচারও চালু করেছে ইউটিউব। এই ফিচারের মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা ম্যাসেজ চ্যাট বাক্সে ওপরের দিকে দেখতে পারবেন। আর এই মেসেজ পাঁচ ঘণ্টা পর্যন্ত ওপরে পিন করে রাখা যাবে।

আজ ফেসবুকের ১৩তম জন্মদিন
                                  

অনলাইন ডেস্ক:

জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ১৩তম জন্মদিন আজ। এ উপলক্ষে ১ দশমিক ৮৬ বিলিয়ন ব্যবহারকারীর জন্য ফ্রেন্ডস ডে ভিডিও তৈরি করেছে ফেসবুক।

বেশ কয়েকদিন ধরেই ব্যবহারকারীদের ওয়ালে ফেসবুকের এই ফ্রেন্ডস ডে ভিডিও শোভা পাচ্ছে। প্রত্যেক ব্যবহারকারীর ফেসবুক বন্ধুদের নিয়ে এই ভিডিও তৈরি করা হয়েছে। সেখানে বন্ধুদের সঙ্গে কাটানো বিশেষ মুহূর্তগুলো তুলে ধরা হয়েছে। ফেসবুকের অন্যান্য পোস্টের মত এই ভিডিওতেও লাইক, কমেন্ট বা শেয়ার দেয়া যাচ্ছে।  

ফেসবুক ওপেন করলেই নিউজফিডে একেবারেই ওপরের দিকে এই ভিডিওটি চোখে পড়বে। ব্যবহারকারীর বন্ধুদের ছবি নিয়ে এই ড্যান্সিং ভিডিও তৈরি করা হয়েছে। অন্য বন্ধুদের ফ্রেন্ডস ডে ভিডিওতে গিয়ে ওয়াচ ইয়োরস-এ ক্লিক করলেই নিজের ফ্রেন্ডস ভিডিও দেখা যাবে।

ভিডিও এডিট করে কোন বন্ধুদের ছবি থাকবে সেটা ঠিক করে দিতে পারবেন ব্যবহারকারী। এতে করে ব্যবহারকারী যে ছবি অন্যদের কাছে প্রকাশ করতে চান না সেটা কেউ দেখতেও পাবে না।

অবশ্য ২০১৫ সালে ফেব্রয়ারির ৪ তারিখে ফেসবুকের ১১তম জন্মবার্ষিকীতে ফ্রেন্ডস ডে ভিডিওর আইডিয়ার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ। নিজের ফেসবুক পেজে ফেসবুকের জন্মদিন উপলক্ষে একটি পোস্ট শেয়ার করেছেন তিনি।

উদ্বোধন করেছে স্যামসাং ইলেকট্রনিক্সের নতুন এক্সক্লুসিভ জোন
                                  

অনলাইন ডেস্ক:

স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স মধ্য বাড্ডা এবং পার্শ্ববর্তী এলাকার গ্রাহকদের জন্য নতুন এক্সক্লুসিভ জোন উদ্বোধন করেছে।
 
মঙ্গলবার জোনটি উদ্বোধন করেন স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর স্যাংওয়ান ইউন। জোনটি ট্রান্সকম ডিজিটাল পরিচালিত বাড্ডার জিএ ৯১, মধ্য বাড্ডা, ঢাকা- ১২১২-এ অবস্থিত।
 
মধ্য বাড্ডার ৮০০ স্কয়ার ফুটের এই ব্র্যান্ড শপে গ্রাহকরা ক্রয় করতে পারবেন টেলিভিশন, রেফ্রিজারেটর, এয়ার কন্ডিশনার, মাইক্রোওয়েভ ওভেন, ওয়াশিং মেশিন এবং স্মার্টফোনসমূহ।
 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে স্যামসাং ইলেকট্রনিক্সকের হেড অব বিজনেস ফিরোজ মোহাম্মদ, ট্রান্সকম গ্রুপের ডিরেক্টর এরশাদ ওয়ালিউর রহমান, ট্রান্সকম ইলেকট্রনিক্স লিমিটেডের। বিস্তারিত জানতে www.facebook.com/SamsungBangladesh/ যোগাযোগ করা যেতে পারে।
 

চলছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

রাজধানীতে শুরু হয়েছে স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট নিয়ে সবচেয়ে বড় প্রদর্শনী। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাজধানীর  বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) শুরু হওয়া তিন দিনব্যাপী এ মেলা চলবে শনিবার পর্যন্ত। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত। প্রবেশমূল্য ২০ টাকা। তবে স্কুলশিক্ষার্থীরা ইউনিফর্ম পরে অথবা পরিচয়পত্র দেখিয়ে বিনামূল্যে প্রবেশ করতে পারবেন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হতে শুরু করে মেলা প্রাঙ্গণ।
এরই মধ্যে বেশ কিছু ব্র্যান্ড মেলায় তাদের অফারগুলো ঘোষণা করতে শুরু করেছে, যা তিন দিন পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। মেলার আহ্বায়ক ও মেকার কমিউনিকেশনের পরিচালনা বিভাগের প্রধান নাহিদ হাসনাইন সিদ্দিকী বলেন, এবারের মেলায়ও নামিদামি সব দেশি-বিদেশি স্মার্টফোন ব্র্যান্ড অংশ নিয়েছে। সঙ্গে রয়েছে ব্র্যান্ডগুলোর নানা ধরনের অফার এবং ডিসকাউন্ট, উপহার আর কুইজে পুরস্কার জেতার সুযোগ।
মেলায় এডাটা, স্যামসাং, হুয়াওয়ে, লিনেক্স মোবাইল, অপ্পো, সিম্ফনি, উই, লাভা, শাওমি, মাইসেল, মাইক্রোম্যাক্স, লেনোভো, গ্যাজেট গ্যাং সেভেন, সেলস্ট্রিম, কুলপ্যাড, ম্যাংগো, মেইজু, কিকশা ডটকম, আজকের ডিলের মতো প্রতিষ্ঠান ও ব্র্যান্ড অংশ নিয়েছে।
বৃহস্পতিবার সকাল থেকে মেলা শুরু হলেও আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয় বিকাল ৪টায়।
আনুষ্ঠানিকভাবে মেলার উদ্বোধন করেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান। এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এছাড়া গেস্ট অব অনার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার ও বিডিওএসএনের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান বলেন, ২০০৯ সালে আমরা যখন ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের কাজ শুরু করি তখন থেকেই যুবসমাজের উদ্ভাবন ও তাদের সংযোগের আওতায় নিয়ে আসাটাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য ছিল; যাতে করে যুব সমাজকে উৎপাদনশীলতামুখী করতে পারি। স্মার্ট ডিভাইস বা অত্যাধুনিক মুঠোফোনই দূর যোগাযোগের মূল মাধ্যম হয়ে উঠছে আজ।
স্মার্টফোনের ব্যবহার বৃদ্ধিতে স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপোর গুরুত্ব উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, সাধারণ মানুষের কাছে অত্যাধুনিক পণ্যের ব্যবহার ও জনপ্রিয়করণের এক্সপো মেকারের মেলা আজ আমাদের বার্ষিক উপলক্ষ হয়ে উঠেছে। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, আজকে দেশে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা কমপক্ষে ২ কোটি ৭৫ লাখ। অত্যাধুনিক মুঠোফোন ব্যবহারের জন্য বিষয়বস্তু তৈরির জন্য উদ্যোগ নিয়েছি আমরা। মাতৃভাষায় কন্টেন্ট উন্নয়নের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের মাঝে স্মার্টফোন এবং স্মার্ট ডিভাইস ব্যবহার বাড়বে বলে আশা করছি। আমাদের হিসাব অনুযায়ী, ২০২০ সালে বাংলাদেশে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা দাঁড়াবে ৫ কোটি।
এছাড়াও আয়োজক প্রতিষ্ঠান এরই মধ্যে মেলার ফেসবুক পেজে একটি কুইজ প্রতিযোগিতারও আয়োজন করেছে। স্মার্ট ব্যাটল ২০১৭ নামের ওই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে জিতে নেয়া যাবে স্মার্টফোনসহ অন্যান্য পুরস্কার।

সিটিসেলের মনোপলি ভাঙায় মোবাইলের বিপ্লব ঘটেছে
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় যাওয়ার পর সিটিসেলের মনোপলি ভেঙে দেন, আর তখন থেকেই দেশে মোবাইলের বিপ্লব ঘটেছে।’ 

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তিন দিনব্যাপী স্মার্টফোন ও ট্যাবমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘দেশে মোবাইল, ট্যাবলেটের আমদানিনির্ভরতা কমিয়ে বরং উৎপাদন সক্ষমতা তৈরির লক্ষ্যে একটি ইকোসিস্টেম তৈরির পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘স্মার্টফোন মেলায় বেশকিছু আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডের সঙ্গে দেশীয় ব্র্যান্ড সমভাবে রয়েছে। আমরা চাই, এসব ব্র্যান্ড আর অন্য দেশ থেকে শুধু স্মার্টফোন আমদানি করবে না। তারা নিজেরাই দেশে এর জন্য হার্ডওয়্যার তৈরি করবে। এ জন্য ইতোমধ্যে দেশের ৩৮টি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষায়িত ল্যাব করা হচ্ছে। যেখানে হার্ডওয়্যার তৈরির ওপর জোর দেওয়া হবে। দেশেই মোবাইলের চিপ তৈরি হবে।’

ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছয় কোটি ছাড়িয়েছে জানিয়ে পলক বলেন, ‘এর অধিকাংশ মোবাইল ইন্টারনেট। তবে এ জন্য দরকার নিজেদের কন্টেন্ট। সেটা করার জন্য ইতোমধ্যে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ মোবাইল অ্যাপস ও কন্টেন্ট তৈরির প্রকল্প হাতে নিয়েছে।’

অনুষ্ঠানে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান বলেন, ‘আজকের বাংলাদেশ যেভাবে দিন দিন প্রযুক্তিতে এগিয়ে যাচ্ছে তার অন্যতম কারণ মোবাইল ফোন। একসময় আমরা যখন ডিজিটাল বাংলাদেশের স্লোগান নিয়ে বেশ কিছু লক্ষ্য সামনে রেখে কথা বলা ও কাজ শুরু করেছিলাম সেসময় অনেকেই হাসিঠাট্টা করতেন। কিন্তু সেই দিন এখন আর নাই।’

মন্ত্রী বলেন, ‘সে সময় আমি মোবাইল অপারেটরদের প্রতিনিধিদের ডেকে বলেছিলাম, তারা যেন শুধু এসএমএস এবং ভয়েস থেকে বের হতে হবে। এখন ধীরে ধীরে অ্যাপের দিকে যেতে হবে। আসলে সবাই মিলেই ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কাজ করতে হবে।’

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘বিদেশি মোবাইর প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি দেশীয় প্রতিষ্ঠান যেভাবে প্রতিযোগিতা করছে তা অভাবনীয়। এমন কি সেসব প্রতিষ্ঠানকে তিনি দেশে কারখানা স্থাপন করে পাশের দেশগুলোতেও রপ্তানির কথা বলেন। এজন্য দেশে বেসরকারি পর্যায় থেকে সহযোগিতা করা হবে।’

স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান, গ্লোবাল ব্র্যান্ড লিমিটেডের চেয়ারম্যান আব্দুল ফাত্তাহ, স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স বাংলাদেশের জেনারেল ম্যানেজার ইয়াং উ লি, হুয়াওয়ের হেড অব মার্কেটিং মাশরুর হাসান মিম।

এছাড়াও সিম্ফনি মোবাইল মার্কেটিং বিভাগের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মো. আসাদুজ্জামান, অপ্পো বাংলাদেশ কমিউনিকেশন ইকুইপমেন্ট কো. লিমিটেডের হেড অব মার্কেটিং ব্রুস লি, লিনেক্স মোবাইলের এজিএম (সেলস) নেছারউদ্দিন, গ্লোবাল ব্র্যান্ডের চেয়ারম্যান আব্দুল ফাত্তাহ ও এক্সপো মেকারের হেড অব অপারেশনস নাহিদ হাসনাইন সিদ্দিকী।

জিমেইল ব্যবহারকারীরা সাবধান
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

বার্তা আদান-প্রদানের মাধ্যম জিমেইল ব্যবহারকারীদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। নতুন একটি অনলাইন স্ক্যাম বা প্রতারণার ফাঁদ থেকে বাঁচার জন্যই এ পরামর্শ। অনলাইন এ স্ক্যামকে বলা হচ্ছে, জি-মেইল ফিশিং। অনেক প্রযুক্তিদক্ষ ব্যক্তিদেরও ধোঁকায় ফেলছে এ ফাঁদ।
ওয়ার্ডপ্রেস নিরাপত্তাসেবা ওয়ার্ডফেন্সের প্রধান নির্বাহী মার্ক মন্ডার এ স্ক্যামটির খোঁজ পান।
তার মতে, স্ক্যামটি অভিজ্ঞ কারিগরি ব্যবহারকারীদেরও ধোঁকা দিতে সক্ষম হচ্ছে। জি-মেইল ছাড়াও অন্যান্য সেবাতেও এ ফাঁদ পাতার বিষয়টি লক্ষ করা যাচ্ছে।
এ ফাঁদ পাততে দুর্বৃত্তরা জিমেইল ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্টে একটি মেইল পাঠায়। পরিচিত কোনো উৎস বা বন্ধুর ছদ্মবেশে ওই মেইল পাঠানো হয়, যাতে তার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়ার কথা বলা হয়। এতে একটি অ্যাটাচমেন্ট থাকতে পারে, যা ওই ব্যক্তিকে বা অ্যাকাউন্টে আগে কোনো কিছু পাঠিয়ে থাকলে হুবহু তার মতো দেখা যাবে।
ওই অ্যাটাচমেন্টে ক্লিক করলে কোনো প্রিভিউ দেখায় না, বরং আরেকটি নতুন ট্যাব খুলে যায় এবং আবার গুগলে লগইন করতে বলে। যখনই আপনি তাতে সাইন-ইন করবেন, আপনি ওই দুর্বৃত্তের ফাঁদে পড়ে যাবেন। কিন্তু এ হ্যাকের ঘটনা সহজে বোঝা যায় না। কারণ, ব্রাউজারের লোকেশন বারে যথারীতি accounts.google.com দেখা যায়।
যেভাবে রক্ষা পাবেন : যখনই কোনো সেবার জন্য সাইন-ইন করবেন, তখনই ব্রাউজার লোকেশন পরীক্ষা করুন ও প্রটোকল ঠিক আছে কিনা তা খেয়াল করুন। এরপর হোস্টনেমের দিকেও তাকান। ‘accounts.google.com’ হোস্টনেমের আগে ‘https://’ ও তালার চিহ্ন ছাড়া অন্য কিছু আছে কিনা তা দেখুন। আরও খেয়াল করুন, এ দুইটির রঙ সবুজ কিনা। বাঁ দিকে এ দুইটি জিনিসের রঙ সবুজ না থাকলে বিপদ। যদি নিশ্চিত হতে না পারেন, তবে যেখানে সাইন-ইন করতে যাচ্ছিলেন, সেটি আসল পেজ কিনা, সে সম্পর্কে সন্দেহ করতে পারেন। পারলে টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন চালু করুন। এতে হ্যাকারের পক্ষে পাসওয়ার্ড চুরি করা সম্ভব হলেও অ্যাকাউন্টে ঢোকা সহজ হবে না। সূত্র : গ্যাজেটস নাউ।

২০২১ সালের মধ্যে সকলের জন্য ইন্টারনেট : পলক
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

২০২১ সালের মধ্যে দেশের সকল জনগণকে ইন্টারনেটের আওতায় নিয়ে আসা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি বলেন, দেশের সকল ইউনিয়নকে সংযুক্ত করতে ইনফো-৩ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে, গৃহিত হয়েছে এস্টাবলিশিং ডিজিটাল কানেকটিভি প্রকল্প। দুর্গম এলাকাগুলোকে সংযুক্ত করতে কানেক্ট বাংলাদেশ প্রকল্প হাতে নিয়েছি। মঙ্গলবার রাতে (সুইজারল্যান্ডের স্থানীয় সময় বিকাল) সুইজারল্যান্ডের দাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম এর ৪৭তম বার্ষিক সভার ইনোভেশনস টু কানেক্ট দ্যা আনকানেক্টেড শীর্ষক এক ফোকাস গ্রুপ ডিসকাসনে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, দেশের সকল মানুষকে নেটওয়ার্কের আওতায় নিয়ে আসতে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে ইতোমধ্যেই বাংলাগভনেট ও ইনফো সরকার-২ প্রকল্পের মাধ্যমে উপজেলাগুলোকে উচ্চগতির ফাইবার অপটিক কেবলের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে।
 
প্রতিমন্ত্রী এ সময় বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ কার্যক্রম ঘোষণার পর থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অত্যন্ত সময়োপযোগী ও বাস্তবমুখী পদক্ষেপের মাধ্যমে দেশের মানুষকে সাশ্রয়ী মূল্যে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ সহজলভ্য করার প্রয়াস অব্যাহত রেখেছি বলেই ইতোমধ্যে ৪০ শতাংশ মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। এ সংখ্যা উত্তরোত্তর বাড়ছে।

আগামী ৫ বছরে এ সংখ্যা শতভাগে নিয়ে যেতে আমরা নতুন নতুন উদ্ভাবন নিয়ে কাজ করছি। ইনোভেশন ফান্ডের মাধ্যমে এখন এই উদ্ভাবনগুলোকে সার্বিক সহযোগিতা করছি। স্টার্ট-আপদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতাসহ মেনটরিং করা, তাদেরকে বৈশ্বিক পরিমন্ডলে পৌঁছে দেয়াও আমাদের উদ্দেশ্য। এ জন্য ইনোভেশন ডিজাউন এন্ড অন্ট্রাপ্রেনিওরশীপ একাডেমী প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। প্রসঙ্গত গত বছরের ১২ মার্চ ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম জুনাইদ আহমেদ পলককে ইয়ং গ্লোবাল লিডার মনোনীত করে।

চাঁদের বয়স জানা গেল
                                  

অনলাইন ডেস্ক:

পৃথিবীর একমাত্র প্রাকৃতিক উপগ্রহ চাঁদ। কিন্তু আপনি যদি বলেন চাঁদের বয়স কত? তাহলে এ নিয়ে অনেক মতভেদ রয়েছে। বলা হয়ে থাকে, পৃথিবীর সঙ্গে থেইয়া নামক গ্রহগত পদার্থের প্রচণ্ড সংঘর্ষের ফলে চাঁদের সৃষ্টি হয়েছে। তাই পৃথিবীতে জীবের অবস্থান কতদিন ধরে বিষয়টি জানতেও এই সংঘর্ষ কতদিন আগে হয়েছিল জানা জরুরি।

সম্প্রতি বিজ্ঞানীদের একটি গবেষণায় বলা হয়েছে, চাঁদের বয়স ৪.৫১ বিলিয়ন বছর। বর্তমান হিসাব যদি সঠিক হয়ে থাকে তাহলে চাঁদের বয়স নিয়ে আগে যে হিসাব করা হয়েছিল তা ভুল। কারণ তখন প্রকাশিত চাঁদের বয়সের চেয়ে এটি প্রায় ৪০-১৪০ মিলিয়ন বছর বেশি। জিরকনস নামক চাঁদের এক খনিজ পদার্থের ওপর গবেষণায় এ তথ্য পাওয়া গেছে।

১৯৭১ সালে অ্যাপোলো-১৪ মিশনে এই খনিজ পদার্থটি আনা হয়েছিল। এর ওপর ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া-লস অ্যাঞ্জেলেসের পক্ষ থেকে করা একটি গবেষণায় তথ্যটি জানা যায়।

চাঁদের প্রকৃত বয়স কত-এ নিয়ে অনেকদিন ধরেই গবেষণা চালাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। কিন্তু এখন পর্যন্ত এ নিয়ে অনেক তর্ক-বিতর্ক হয়েছে। এ বিষয়ে ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া লস অ্যাঞ্জেলেসের আর্থ, প্লানেটারি অ্যান্ড স্পেস সায়েন্স বিভাগের রিসার্চ জিওকেমিস্ট মেলানি বারবোনি বলেন, ‘আমরা অবশেষ চাঁদের একটি সর্বনিম্ন বয়স স্থির করেছি।’ নতুন এই গবেষণায় বলা হয়েছে সৌরজগত সৃষ্টির ৬০ মিলিয়ন বছর পর চাঁদ সৃষ্টি হয়েছিল।

গবেষণার সহকারী কেভিন ম্যাককীগান বলেন, ‘জিরকন সময় নির্ধারণের একটি সেরা প্রাকৃতিক উপদান। এদের সৃষ্টি কোথায় হয়েছিল এটি জানানোর জন্য এটি চমৎকার একটি খনিজ উপাদান।’

চাঁদের বয়স নির্ধারণের ব্যাপারে আগের পরীক্ষাগুলোতে সেখানকার পাথরের উপর গবেষণা চালানো হয়েছিল এবং বলা হয়েছিল, কতগুলো সংঘর্ষের ফলে এগুলো তৈরি। এ বিষয়ে অনেক মতভেদ থাকলেও বেশির ভাগ বিজ্ঞানীরাই মনে করেন, পৃথিবী এবং থেইয়ার সংঘর্ষের ফলেই চাঁদের সৃষ্টি।

ওয়ালটনের নতুন প্রিমো এক্স ফ্ল্যাগশিপ এক্স-ফোর প্রো মোবাইল
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বাজারে এলো ওয়ালটনের নতুন স্মার্টফোন প্রিমো ‘এক্স ফোর প্রো’। এটি প্রিমো ‘এক্স’ সিরিজের নতুন ফ্ল্যাগশিপ সেট। উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন এবং মাল্টি টাস্কিং স্মার্টফোনটিতে রয়েছে সুপার ফাস্ট ফিঙ্গার প্রিন্ট স্ক্যানার। যা ফোনে সংরক্ষিত ব্যক্তিগত সকল তথ্যের সুরক্ষা নিশ্চিত করবে।
বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি, ২০১৭) ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটনের মেগা প্যাভিলিয়নে নতুন এই ফোনের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের পাশাপাশি সারাদেশে সকল ওয়ালটন প্লাজা ও ব্র্যান্ডেড আউলটলেটে থেকে পাওয়া যাচ্ছে নতুন এই সেট।
বৃহস্পতিবার সকালে মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক এসএম জাহিদ হাসান (পলিসি, এইচআরএম এন্ড এডমিন), মো. হুমায়ুন কবীর (পিআর এন্ড মিডিয়া), অপারেটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম ও এসএম রেজোয়ান আলম, এডিশনাল ডিরেক্টর আসিফুর রহমান খান (সেল্যুলার ফোন), ফার্স্ট সিনিয়র ডেপুটি ডিরেক্টর মাহমুদুল হাসান হেলাল, মিডিয়া উপদেষ্টা এনায়েত ফেরদৌসসহ অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সিএনসি (কম্পিউটার নিউমেরিক্যালি কন্ট্রোল) মেশিনে প্রক্রিয়াজাতকৃত ৮.২মিমি পুরুত্বের স্লিম এই সেটের হোম বাটনে সুপার ফাস্ট রেসপন্স ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারের সংযোজন করা হয়েছে। যা ০.৩ সেকেন্ডের মধ্যে সেটটি আনলক করতে সক্ষম। এই সেন্সরের মাধ্যমে খুব সহজেই সেটে সংরক্ষিত তথ্য সুরক্ষা পাবে।
চিলড্রেন মোড সুবিধা এই স্মার্টফোনটির আরেকটি বিশেষত্ব। এর ফলে গেমস বা অন্যান্য মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট ব্যবহারে ছোটদের হাতে গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপস, ফাইল বা ছবি মুছে যাওয়ার আশংকা থাকবে না। চিলড্রেন মোডে শুধু শিশুদের উপযোগী বিভিন্ন মাল্টিমিডিয়া অ্যাপস রাখার সুবিধা থাকায় গুরুত্বপূর্ণ ফাইলগুলো থাকবে নিরাপদ।
জানা গেছে, মাল্টি টাস্কিং সুবিধা ও উন্নত পারফরম্যান্স নিশ্চিতে প্রসেসর হিসেবে ’এক্স-ফোর প্রো’ তে ব্যবহার করা হয়েছে উচ্চ ক্ষমতার ৬৪বিট সম্পন্ন ২ গিগাহার্জের শক্তিশালী অক্টা-কোর প্রসেসর। স্বাচ্ছন্দ্যে বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার, ইন্টারনেট ব্রাউজিং, থ্রিডি গেমিং এবং দ্রুত ভিডিও লোড ও ল্যাগ-ফ্রি ভিডিও স্ট্রিমিং সুবিধা দিতে রয়েছে দ্রুতগতির ৪ জিবি র‌্যাম। গেমিংয়ে ব্যবহৃত হয়েছে মালি টি-৮৬০ গ্রাফিক্স। এক্স ফোর প্রো’তে আরো রয়েছে ৬৪ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি। ফলে অনেক বেশি ভিডিও, ছবি, মিউজিক, অ্যাপসসহ অসংখ্য ফাইল সংরক্ষণ করা যাবে। ১২৮জিবি পর্যন্ত এক্সটারনাল মেমোরি সাপোর্ট করবে।
এটি সম্পূর্ণ মেটালিক বডি। রয়েছে সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লের ৫.৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি স্ক্রীন। ডিসপ্লে ২.৫ডি কার্ভড (বাঁকানো) গ্লাস হওয়ায় ছবি হবে জীবন্ত। ডিসপ্লেতে আঘাত ও আঁচর প্রতিরোধের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে চতুর্থ প্রজম্মের কর্নিং গরিলা গ্লাস।
ওয়ালটনের নতুন এই সেটে দুর্দান্ত ছবি তোলার জন্য রয়েছে দ্রুতগতির পিডিএএফ প্রযুক্তির অটোফোকাস ও এলইডি ফ্ল্যাশ সুবিধাসহ বিএসআই সেন্সরযুক্ত ১৬ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা, যার অ্যাপারচার সাইজ এফ ২.০। পাশাপাশি আছে এফ ২.২ অ্যাপারচার সাইজের বিএসআই সেন্সরের ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। ক্যামেরায় নরমাল মোড ছাড়াও ফেস বিউটি, এইচডিআর, টাইম ল্যাপস, প্যানোরামা, স্মার্ট সিন, প্রফেশনাল ক্যামেরা মোড, নাইট মোড এবং জিফের মতো আকর্ষণীয় মোডে ছবি তোলা যায়। থঅকছে প্রফেশনাল ক্যামেরা মোড অপশন। ডিটিএস মিউজিক সিস্টেম থাকায় সাউন্ড নিঁখুত। কানেক্টিভিটির জন্য আছে ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ভার্সন ৪, ওয়্যারলেস ডিসপ্লে শেয়ারিং, ওয়াই-ফাই হটস্পট, ওটিএ এবং ওটিজি সুবিধা। ইউএসবি কিবোর্ড, গেমিং কনসোল ও পেন ড্রাইভ ব্যবহার করা যাবে।
‘প্রিমো এক্স-ফোর প্রো’ ফোরজি সাপোর্ট করবে। ডুয়াল সিম স্লটে ফোরজি এবং থ্রিজি নেটওয়ার্কের সিম ব্যবহার করা যাবে। অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে জিপিএস ও এ-জিপিএস সুবিধা, রেকর্ডিং সুবিধাসহ এফএম রেডিও, ফুল এইচডি ভিডিও প্লেব্যাক, ডাবল টেপ টু ওয়্যাক অ্যান্ড স্লিপ (স্ক্রিনে দুবার টোকা দিয়ে স্ক্রিন অন/অফ করা), স্মার্ট রিমোট কন্ট্রোল, স্পিøট স্ক্রিন, ডাটা ক্লোনসহ আরও অনেক সুবিধা।
দীর্ঘস্থায়ী ব্যাকআপ দেবে ৫০০০এমএএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। এই স্মার্টফোনেটি একবার ফুল চার্জ দিয়ে ১২ ঘণ্টা পর্যন্ত এইচডি ভিডিও দেখা যাবে। এক্সপ্রেস ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজী থাকায় ২ ঘণ্টায় ফোনটি ফুল চার্জ হয়ে যাবে।
‘প্রিমো এক্স-ফোর প্রো’র মূল্য মাত্র ২৮ হাজার ৯৯০ টাকা। সহজ কিস্তি ও ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে ইএমআই সুবিধাতেও কিনতে কেনা যাবে। নতুন বছর উপলক্ষ্যে এই স্মার্টফোনের সঙ্গে গ্রাহকরা উপহার পাবেন কফি মগ, টি-শার্ট ও ওয়্যালেট (মানিব্যাগ)। তবে, বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়ন থেকে কিনলে অতিরিক্ত উপহার হিসেবে ক্রেতারা পাবেন ওয়ালটন ব্র্যান্ডের একটি পাওয়ার ব্যাংক। যেকোনো মোবাইল থেকে ১৬২৬৭ অথবা ল্যান্ডফোন থেকে ০৯৬১২৩১৬২৬৭ নম্বরে কল করে ওয়ালটন কাস্টমার কেয়ার প্রতিনিধিদের কাছ থেকে প্রিমো এক্স-ফোর প্রো’ সম্পর্কে তথ্য জঅনা যাবে।

ডাক বিভাগে ই-কমার্স সেবা চালু
                                  

অনলাইন ডেস্ক :

এখন থেকে অনলাইনে কেনাবেচার ক্ষেত্রে গ্রাহকের কাছে পণ্য পৌঁছে দেবে বাংলাদেশ ডাক বিভাগ। আর এর মাধ্যমে তথ্য প্রযুক্তির উন্নতির সঙ্গে তাল রেখে আরেক দফা এগিয়ে গেল এই বিভাগটি। 

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর বাংলাদেশ পোস্ট বক্সের (জিপিও) সদর দপ্তরে এই পোস্ট ই-কমার্স সেবার উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

সম্প্রতি এ বিষয়ে বাংলাদেশ ডাক বিভাগ এবং ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ই-ক্যাব) মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছিল। ই-ক্যাবের সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলো ডাক বিভাগের মাধ্যমে তাদের ই-কমার্স পার্সেল ডেলিভারি করবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তারানা হালিম জানান, এতে গ্রাহকরা যেমন কম খরচে আরো উন্নত সেবা পাবেন, তেমনি পাল্টে যাবে পোস্ট অফিসের চেহারাও। এই খাত হবে পোস্ট অফিসের আয়ের অন্যতম উৎস।

তিনি বলেন, ‘আমি দায়িত্ব নেওয়ার পরে বলেছিলাম, ই-কমার্স হবে ডাক বিভাগের আয়ের প্রধান খাত। কারণ, ডাক বিভাগের চেয়ে দ্রুত কেউই কাজ করতে পারবে না। আমাদের পোস্ট অফিসের ৯ হাজার ৮৮৬টি শাখা অলরেডি প্রস্তুত হয়েই আছে। এগুলো দিয়েই অনেক ভালো সেবা দেওয়া সম্ভব।’

তিনি আরো বলেন, ‘পোস্ট অফিসগুলোর অপটিমাম ইউটিলাইজেশন হলে আমরা অনেক এগিয়ে যাব। আমাদের গ্রামে যে ১১ কোটি জনসংখ্যা আছে তাদেরকে আমরা এ পোস্ট অফিসের মাধ্যমে সেবা দিতে পারি। ঢাকা শহের মোট ১১টি পয়েন্টে এ সার্ভিস দেওয়া হবে। জিপিও ঢাকা, শান্তিনগর, গুলশান, বনানী, মোহাম্মাদপুর, মিরপুর, নিউমার্কেট, উত্তরা এবং তেজগাঁও পয়েন্টে এ সার্ভিস দেওয়া হবে। আমরা স্বপ্ন দেখছি, একদিন অ্যামাজান, আলিবাবার চেয়েও আমরা এগিয়ে যাব।’

ডাক বিভাগের মহাপরিচালক প্রভাস চন্দ্র সাহা বলেন, ‘আমাদের টার্গেট ছিল ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই ডাক বিভাগে ই-কমার্সের পণ্য ডেলিভারি সেবা চালু করা। আজ এই সেবার উদ্বোধনের মাধ্যমে আমাদের লক্ষ্য পূরণ হলো। ২০১০ সালে ডাক বিভাগ প্রথম মোবাইল মানি অর্ডার সেবা চালু করে। শিগগিরই বিভিন্ন দোকান এবং সেন্টারে এজেন্সি দেওয়া হবে।’

ডাক বিভাগের মহাপরিচালক জানান, এই সেবা দিতে নতুন গাড়িও কেনা হবে।

ই-ক্যাবের উপদেষ্টা শমী কায়সার, সভাপতি রাজীব আহমেদ, ডাক বিভাগের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা) শুধাংশু শেখর ভদ্র প্রমুখ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।


   Page 1 of 7
     তথ্য-প্রযুক্তি
বিশ্বের ৯৯ দেশে একযোগে সাইবার হামলা
.............................................................................................
ফেইজবুক এখন প্রতারক ও মাাদক সন্ত্রাসীদের নিরাপত্তা আশ্রয়
.............................................................................................
লাল আইফোন বিক্রির অর্থ এইডস রোগীদের জন্য ব্যয় হবে
.............................................................................................
দৃষ্টিহীনরা হাতঘড়ির মাধ্যমে যেভাবে যোগাযোগ করতে পারবেন
.............................................................................................
বিশ্বসেরা ৫ ক্যাটাগরিতে সেরা ৫ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের নাম তুলে ধরা হলো
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের ৭৫ শতাংশ কাজ সম্পন্ : তারানা হালিম
.............................................................................................
ইউটিউব লাইভ স্ট্রিমিং ফিচার এখন মোবাইলেও করা যাবে
.............................................................................................
আজ ফেসবুকের ১৩তম জন্মদিন
.............................................................................................
উদ্বোধন করেছে স্যামসাং ইলেকট্রনিক্সের নতুন এক্সক্লুসিভ জোন
.............................................................................................
চলছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা
.............................................................................................
সিটিসেলের মনোপলি ভাঙায় মোবাইলের বিপ্লব ঘটেছে
.............................................................................................
জিমেইল ব্যবহারকারীরা সাবধান
.............................................................................................
২০২১ সালের মধ্যে সকলের জন্য ইন্টারনেট : পলক
.............................................................................................
চাঁদের বয়স জানা গেল
.............................................................................................
ওয়ালটনের নতুন প্রিমো এক্স ফ্ল্যাগশিপ এক্স-ফোর প্রো মোবাইল
.............................................................................................
ডাক বিভাগে ই-কমার্স সেবা চালু
.............................................................................................
ইয়াহু অ্যাকাউন্ট হ্যাক হলে করণীয়
.............................................................................................
কারো ব্যক্তিগত তথ্য প্রকাশ করবে না সরকার : তারানা হালিম
.............................................................................................
গুগলের নতুন অ্যাপ জরুরি মুহূর্তে তথ্য দেবে
.............................................................................................
ভাইবার-ইমো আবারো বন্ধ হতে পারে
.............................................................................................
আবার জুকারবার্গের অ্যাকাউন্ট হ্যাক
.............................................................................................
১০০ কোটি টাকা শোধ করলো সিটিসেল
.............................................................................................
এক হলো রবি-এয়ারটেল
.............................................................................................
মহেষখালী হবে ডিজিটাল দ্বীপ : পলক
.............................................................................................
ডিসেম্বরে পোস্ট অফিসে ই-কমার্স সেবা চালু : তারানা হালিম
.............................................................................................
খুলে দেয়া হলো সিটিসেল
.............................................................................................
দেশের প্রত্যন্ত গ্রামে তথ্য প্রযুক্তি সেবা পৌঁছে দেয়া হবে : পলক
.............................................................................................
বিশেষ শিশুদের যোগাযোগের দক্ষতা বাড়াতে অ্যাপ
.............................................................................................
ইন্টারনেটে সংযুক্ত হোম ডিভাইস ব্যবহার করে ব্যাপক সাইবার আক্রমণ
.............................................................................................
আবারো বিমানে গ্যালাক্সি-৭ ফোনে আগুন
.............................................................................................
পুরস্কার পেয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন জয়
.............................................................................................
কৃষাণীদের স্মার্টফোন দেওয়া হবে : পলক
.............................................................................................
অতিরিক্ত চাপে জিমেইল সেবা বিঘ্ন
.............................................................................................
দেশে কমেছে মোবাইল গ্রাহকের সংখ্যা
.............................................................................................
গোপনীয়তা রক্ষায় ‘আলাপন’ অ্যাপস উদ্বোধন
.............................................................................................
নেটওয়ার্ক খাতে রবি’র বিনিয়োগ ৫৬০ কোটি টাকা
.............................................................................................
অ্যাপসের মাধ্যমে অভিযোগ করতে পারবে নির্যাতিত নারী-শিশু
.............................................................................................
কম্পিউটার ভাইরাস : আতঙ্কিত নয়, সচেতন হোন
.............................................................................................
সারা রাত মোবাইলে চার্জ দেওয়া কি ঠিক?
.............................................................................................
ভুয়া সিম: ৭ দিনের মধ্যে অপারেটরদের জরিমানা : তারানা হালিম
.............................................................................................
আরো সাত দিন সময় পেলেন সিটিসেল গ্রাহকরা
.............................................................................................
কার্যক্রম শুরু করলো দেশের বৃহত্তম বিপিও প্রতিষ্ঠান ডিজিকন টেকনোলজিস
.............................................................................................
সিটিসেল বন্ধে সরকারই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে: বিটিআরসি
.............................................................................................
২০২১ সালের মধ্যে গার্মেন্টসকে ছাড়িয়ে যাবে আইসিটি খাত : জয়
.............................................................................................
অনলাইন পেমেন্টের বাধা অপসারণ শিগগিরই: অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
ঢাকা দক্ষিণের জন্য ৩২০০ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা
.............................................................................................
৪.৮৩ বিলিয়ন ডলারে ইয়াহুকে কিনে নিল ভেরিজন
.............................................................................................
২০২১ সালের মধ্যে আইসিটি থেকে আয় হবে ৫ বিলিয়ন ডলার
.............................................................................................
এবার টুইটার অ্যাকাউন্টও হবে ভেরিফায়েড
.............................................................................................
প্রতি ইউনিয়নে অনলাইন স্কুল : পলক
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
[ সম্পাদক মন্ডলী ]
2, RK Mission Road (5th Floor) Motijheel, Dhaka - 1203.
মোবাইল: ০১৭১৩৫৯২৬৯৬, ০১৯১৮১৯৮৮২৫ ই-মেইল : deshkalbd@gmail.com
   All Right Reserved By www.deshkalbd.com Developed By: Dynamicsolution IT [01686797756]