শনিবার , ১১ নভেম্বর ২০১৭

জাপানকে ৩-১ গোলে হারালো ব্রাজিল

  শনিবার , ১১ নভেম্বর ২০১৭

জাপানকে ৩-১ গোলে হারালো ব্রাজিল। ফ্রান্সের লিলে জাপানের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল রাশিয়া বিশ্বকাপের অন্যতম এই ফেভারিটরা। এশিয়ান জায়ান্টদের বিপক্ষে পূর্ণ শক্তির দল নিয়েই মাঠে নেমছিল নেইমার-মার্সেলোরা। খেলার প্রথমার্ধেই ওই ৩টি গোল করে ব্রাজিল। আজ শুক্রবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায় ম্যাচটি মাঠে গড়ায়। ম্যাচের দশম মিনিটেই লিড নেয় ব্রাজিল। পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে ১-০ তে এগিয়ে নেন পিএসজির তারকা নেইমার। আর ১৭ মিনিটের নিজের দ্বিতীয় গোলের সুযোগ হাতছাড়া করেন নেইমার। বার্সার সাবেক এই তারকা দ্বিতীয় পেনাল্টির সুযোগ নষ্ট করেন।
তবে এক মিনিট যেতে না যেতেই খেলার ১৭ মিনিটের মাথায় দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় ব্রাজিল। রিয়াল মাদ্রিদের তারকা মার্সেলোর গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ব্রাজিলিয়ানরা। দলকে ৩-০ গোলে এগিয়ে নিতে ম্যাচের ৩৬তম মিনিটে গোল করেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। আর এই স্কোরেই বিরতিতে যায় তিতের শিষ্যরা।
বিরতির আগে ৬৬ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রেখেছিল নেইমাররা। বিরতির পর ব্রাজিল কোচ তিতে গোলরক্ষক আলিসনকে তুলে নিয়ে মাঠে পাঠান ক্যাসিয়োকে। ৫৭ মিনিটের মাথায় নেইমার হলুদ কার্ড দেখেন। ৫৯ মিনিটে তিতে তৃতীয় গোলদাতা জেসুসকে তুলে নিয়ে দিয়েগো সৌজাকে মাঠে নামান। আর এক মিনিট পরেই দ্বিতীয় গোলদাতা মার্সেলোকে তুলে নিয়ে মাঠে নামান অ্যালেক্স সান্দ্রোকে।
ম্যাচের ৬৩ মিনিটের মাথায় ব্যবধান কমায় জাপান। কর্নার থেকে উড়ে আসা বলে লাফিয়ে হেড করেন মাকিনো। ব্রাজিল গোলরক্ষক ক্যাসিয়ো ঝাপিয়ে তা রুখতে গেলেও বলের নাগাল পাননি। ফলে ম্যাচের স্কোর দাঁড়ায় ৩-১। ৭১ মিনিটের মাথায় উইলিয়ানের বদলি হিসেবে মাঠে নামেন টাইসন। আর নেইমারের জায়গায় মাঠে আসেন দগলাস কস্তা। ৮০ মিনিটে গুইলিয়ানোর জায়গায় নামেন রেনাতো অগাস্টো। তবে, আর কোনো গোল না হলে ৩-১ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ব্রাজিল।
এই ম্যাচের মধ্যদিয়ে ব্রাজিল ১১ বার জাপানের মুখোমুখি হলো। এর আগে ব্রাজিল ৮বারই জয় পায়। বাকি দুটি ম্যাচ ড্র হয়। ২০০১ সালে ফিফা কনফেডারেশন্স কাপে ০-০ গোলে মাঠ ছাড়ে দুদল। আর ২০০৫ সালে ২-২ গোলের সমতা নিয়ে মাঠ ছাড়ে দল দুটি। তবে ২০০৬ সালে বিশ্বকাপ আসরে জার্মানির ডর্টমুন্ডে মেগা কোনো ইভেন্টে মুখোমুখি হয়েছিল জাপান-ব্রাজিল। সেই ম্যাচে ৪-১ গোলে জয় নিশ্চিত করে ব্রাজিল।
প্রসঙ্গত ব্রাজিল কোচ তিতের অধীনে দুর্দান্ত ফর্মে আছে হলুদ জার্সিধারীরা। বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলার টিকিট কাটতে কোনো বেগ পেতে হয়নি নেইমারদের। গ্রুপপর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়েই দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের শীর্ষে ছিল ব্রাজিল। ১৮ ম্যাচের একটিতে মাত্র হেরে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে ছিল তারা। জাপানের বিপক্ষে খেলার পর মঙ্গলবার ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ৫ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল।

 খেলাধূলা থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ