রবিবার , ১২ নভেম্বর ২০১৭

টস জিতে বোলিং নিলেই ভালো হত। তাতে অন্তত লড়াইটা করা যেতে পারত। ম্যাচ শেষে এভাবে কিছুটা আক্ষেপই করতে দেখা গেল রংপুর রাইডার্সের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে। কোচ টম মুডি বলেছিলেন টস জিতলে বোলিং নিতে। কিন্তু মাশরাফি বুঝেছেন ব্যাটিংয়ের কথা বলেছেন কোচ। রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে আট উইকেটের হারের পেছনে এটাকে বড় কারণ হিসেবেই দেখছেন মাশরাফি।

জয় দিয়ে এবারের বিপিএল শুরু হয়েছিল রংপুর রাইডার্সের। কিন্তু সিলেটে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাওয়া ওই জয়ের পর যেন খেই হারিয়ে বসেছে মাশরাফির দল। পরপর দুই হার। চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে হারের পর শনিবার রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে বাজেভাবে হেরেছে রংপুর। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এদিন লড়াই-ই করতে পারেনি মাশরাফির দল। ১৩৪ রান করে পরে বল হাতেও সুবিধা করতে পারেনি তারা।  

রাজশাহী কিংসের দুই ওপেনার মুমিনুল হক ও লেন্ডল সিমন্স উদ্বোধনী জুটিতেই যোগ করেছেন ১২২ রান। তবে টস জিতে বোলিং নিলে এমন চিত্র দেখতে হত না বলে ধারণা মাশরাফির। ভুল মেনে নিয়ে রংপুর অধিনায়ক বলছেন, ‘ব্যাটিং নিয়ে মনে হয়েছে বোলিং নিলে ভাল হতো। কোচের সঙ্গে এটা নিয়ে কথা হয়েছে। তিনি বলেছিলেন ফিল্ডিং নিতে, আমি মনে করেছি ব্যাটিং নিতে। আমাদের কমিউনিকেশনে একটু ভুল ছিল।’

তবে শুধু টস জিতে ব্যাটিং নেওয়াকেই কারণ বানাচ্ছেন না মাশরাফি। ব্যাটিংয়ে যে তারা সাবলীল ছিলেন না, সেটাও মেনে নিলেন। এমন স্কোর নিয়ে লড়াই করাটা কঠিন বলে মনে করেন রংপুর অধিনায়ক। বলছেন, ‘শুরুতে একটা ক্যাচ নিতে পারলে ম্যাচে ফিরতে পারতাম। মুমিনুল প্রথম ছয় ওভারে বড় কিছু করতে চাইবে জানতাম। তখন তাকে আউট করতে পারলে ভাল হতো। এছাড়া আমাদের ১৫-২০ রান তো কম ছিলই।’

জয়ে শুরু হলেও টানা দুই ম্যাচে হারতে হল। ছন্দে ফেরাটা এখন কতটা কঠিন? মাশরাফি বলেন, ‘আমাদের জন্য এখন কামব্যাক করা খুবই কঠিন। সামনে বড় বড় দলগুলোর সঙ্গে খেলতে হবে। টি-টোয়েন্টি খেলা, কখন কী হয়ে যায় তা বলা কঠিন। তবে একবার ছন্দ পেয়ে গেলে ভাল হয়। সামনে চার পাঁচদিন খেলা নাই। এ ধরনের সময়ে দ্রুত খেলা পেলে ভাল হয়। আমাদের এখন ধৈর্য ধরে অপেক্ষা করতে হবে।’

 খেলাধূলা থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ