রবিবার , ০৫ July ২০২০ |

গন্ডারের চামড়া বলে বলিউডে টিকে আছি: মনোজ বাজপেয়ী

অনলাইন ডেস্ক   সোমবার , ২৯ জুন e ২০২০

মনোজ বাজপেয়ী ও সুশান্ত সিং রাজপুত

‘বলিউড এমন সব প্রতিভাকে পিষে নষ্ট করেছে যে, তারা আজ অন্য দেশে জন্মালে নিঃসন্দেহে খ্যাতনামা অভিনেতা হতে পারতেন! বলিউড যদি নিজের এই অভ্যাস ত্যাগ না করে, তাহলে কিন্তু খুব শিগগিরই মানুষের শ্রদ্ধা, ভালোবাসা হারিয়ে ফেলবে।’

বলিউডে নেপোটিজম বা স্বজনপোষণ নিয়ে এমনই বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন শক্তিশালী অভিনেতা মনোজ বাজপেয়ী। তাকে সাধারণত কোনও ইস্যু নিয়েই খুব একটা সরব হতে দেখা যায় না। কাজ ছাড়া কথাবার্তাও খুব মেপে বলেন। তার মতো বড় মাপের সেই অভিনেতাই কিনা ২০ বছর ধরে মুম্বাই ইন্ডাস্ট্রিতে স্বজনপোষণের শিকার হয়ে আসছেন।

অবিশ্বাস্য, মনে হলেও বিষয়টি যে সত্যি, তা মনোজ বাজপেয়ীর কথাতেই বোঝা গেল। তিনি বলেন, ‘বিশ বছর ধরেই আমি বলে আসছি, বলিউডের চিন্তাধারা কীরকম একটা মাঝারি গোছের। শুধু বলিউডই কেন, গোটা দেশই তো এই একই ধ্যান-ধারণায় চলে। আসলে আমাদের মূল্যবোধ আর চিন্তাধারাতেই কোথাও একটা বিরাট খামতি রয়েছে, জানেন! প্রতিভা দেখলেই আমরা হয় তা অবজ্ঞা করি কিংবা পিষে দিয়ে সেই মেধাকে দূরে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করি। খুবই ঘৃণ্য এই চিন্তাধারা।’

প্রসঙ্গত, সুশান্ত সিং রাজপুতের সঙ্গে ‘সোনচিড়িয়া’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন মনোজ। আর অভিনেতার এমন মর্মান্তিক পরিণতি যে তাকেও ভাবিয়ে তুলেছে, তা স্পষ্ট তার বক্তব্যে। বলিউডে টিকে থাকতে গেলে কি শুধু অভিনয়ের দক্ষতা থাকলেই হয়? এই প্রশ্নের উত্তরে মনোজ বাজপেয়ী যা বললেন, তা সকলের কাছেই শিক্ষামূলক।

তিনি বলেন, ‘আমার গণ্ডারের চামড়া বলে টিকে রয়েছি ইন্ডাস্ট্রিতে। আর অন্য মায়ের ছেলে বলে! নাহলে টিকে থাকতে পারতাম না। ছোট বাজেটের সিনেমাগুলির সেভাবে প্রচারই করা হয় না বলিউডে। আর কন্টেন্টের জন্য যদিও বা হলে ভালো চলতে শুরু করে, তাহলে পরক্ষণেই সিনেমা হল থেকে সেগুলো তুলে দেওয়া হয়।’ এভাবেই ক্ষোভ ঝারলেন অভিনেতা।

 বিনোদন থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ