মঙ্গলবার , ২১ নভেম্বর ২০১৭

সঞ্জয়লীলা বানশালীর ইতিহাস নির্ভর 'পদ্মাবতী' সিনেমা নিয়ে শুরু থেকেই চলছে নানা বিতর্ক।   শ্যুটিং সেটে ঘটেছে হামলার ঘটনা।

  সিনেমাটি নির্মাণের পর থেকেই একের পর এক হুমকি-ধামকি চলছে ভারতের বিভিন্ন স্থানে।

পেছানো হয়েছে ছবি মুক্তির দিনক্ষণও। জীবনসঙ্কটে দীপিকা পাড়ুকোন ও বানশালী! মাথা কেটে নেওয়ার হুমকির পর এবার দীপিকাকে জীবন্ত জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি এল।  

এর আগে দীপিকা পাড়ুকোন এবং পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালীর মুণ্ডপাতে মিলবে ১০ কোটি টাকা এমন পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছিল।  

হরিয়ানার বিজেপি নেতা সূরজ পাল আমুরেরে দীপিকার মাথা কেটে নেওয়ার হুমকির ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই এই জীবননাশের হুমকি দেওয়া হল।  

অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভার নেতা ভুবনেশ্বর কুমারের ঘোষণা, "জীবন্ত জ্বলে যাওয়ার অনুভূতি কেমন, তা দীপিকার বোঝা উচিত। রানির আত্মত্যাগ অভিনেত্রী কোনও দিনই বুঝতে পারবেন না। যে ব্যক্তি তাঁকে জীবন্ত জ্বালিয়ে দিতে পারবে তাঁকে ১ কোটি টাকা দেওয়া হবে। " 'ইতিহাসকে বিকৃত করা হয়েছে', বিজেপির করা অভিযোগেই নতুন মাত্রা যোগ করেছে ক্ষত্রিয় মহাসভা।

'আত্মত্যাগ'-এর বদলে পদ্মাবতী ছবিতে রানির চরিত্রের 'ভুল ব্যাখ্যা' করা হয়েছে, এই অভিযোগ করেছে তারা।  

এর আগেও একাধিকবার দীপিকাসহ টিম 'পদ্মাবতী'র উদ্দেশে হুমকি এসেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক মহল থেকে। উগ্র হিন্দুতবাদী সংঠন তো বটেই, পদ্মাবতী অভিনেত্রীর মাথা কাটার মতো হুমকি দিয়েছে দেশের শাসক দলের নেতারাও। এই ইস্যুতে অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনের নিরাপত্তা বাড়ালেও 'অভিযুক্ত'দের বিরুদ্ধে এখনও কোনও পদক্ষেপ নেওয়ার খবর সংবাদমাধ্যমে আসেনি।    

যদিও 'পদ্মাবতী' বিতর্কের জন্য ছবির রিলিজ পিছিয়েছে। আগামী ১ ডিসেম্বর ছবি রিলিজের কথা থাকলেও প্রযোজকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে সেন্সর বোর্ডের সার্টিফিকেশন পাওয়ার পরই ছবি মুক্তির পরবর্তী তারিখ জানিয়ে দেওয়া হবে।

 বিনোদন থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ