বুধবার , ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭

 স্টাফ রিপোর্টার :
সাভার : সাভার,আশুলিয়া,ধামরাইসহ আশে-পাশের এলাকায় একের পর এক ডিবি উত্তরের অভিযানে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্যসহ অস্ত্র উদ্ধার এবং বিভিন্ন অপরাধী চক্র ধরা পড়ার পর অনেকটাই কোনঠাসা হয়ে পড়েছে এই অঞ্চলের মাদক ও অস্ত্রের সিন্ডিকেট সহ বিভিন্ন অপরাধী চক্র। গতকালও (মঙ্গলবার) ঢাকা জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি উত্তর) উপ-পরিদর্শক (এসআই) জহুরুল ইসলামের নেতৃত্বে সহঃ উপ-পরিদর্শক (এএসআই) এনায়েত হোসেন ও মোঃ সাজ্জাদ অভিযান চালিয়ে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের রেডিও কলোনী এলাকা থেকে ১৫০০ পিস ইয়াবার চালানসহ মিজান পাটোয়ারী (২৮) ও শাহজালাল ওরফে সাগর (২০) নামে দুই মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত প্রাইভেট কার (ঢাকা মেট্রো-গ ২৯-৩৮৩১ ) আটক করেন। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে এসআই জহুরুল ইসলাম জানান, ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক হয়ে একটি প্রইভেট কারে মাদকের চালান আসছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযানকারী দল প্রথমে গাড়িটিকে সাভার বাস স্টান্ড এলাকায় থামানোর চেষ্টা করলে গাড়িটি দ্রুতবেগে নবিনগরের দিকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় ডিবি পুলিশের দলটিও গাড়িটিকে ধাওয়া করে রেডিও কলোনী এলাকায় থামাতে সক্ষম হলে গাড়িটি তল্লাশী করে গাড়ির বিভিন্ন অংশে লুকানো অবস্থায় মোট ১৫০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এসময় আটককৃতরা মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। তারা উভয়ই দীর্ঘদিন যাবত আশুলিয়া থানাধীন ডেন্ডাবর এলাকায় থেকে পুলিশের চোখ ফাকি দিয়ে মাদক সরবরাহ করে আসছিল। এদের মধ্যে মিজান পাটোয়ারী চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ থানার মান্দারতলী গ্রামের দুলা মিয়ার ছেলে। অন্যদিকে আটক শাহজালাল আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাদক নিয়ন্ত্রন আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
এছাড়াও গত ২ দিনে ডিবি উত্তরের পৃথক পৃথক অভিযানে বিভিন্ন এলাকা থেকে ৩২১০ পিস ইয়াবা, ৫০০ পুরিয়া হেরোইনসহ ৫ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে দু’জন নারী।
উল্লেখ্য ঢাকা জেলা পুলিশের উত্তর গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) বিভিন্ন অভিযানে শুধুমাত্র গত ৮ মাসেই রেকর্ড পরিমান মাদকদ্রব্য উদ্ধার হয়েছে। তাছাড়া বিভিন্ন স্থান থেকে অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে মোট ১২টি। ডিবি উত্তরের এসকল সফল কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চাইলে ডিবি উত্তরের অফিসার ইনচার্জ এ.এফ.এম সায়েদ বলেন,”মাদক ও সন্ত্রাসের বিরূদ্ধে আমরা জিরো টলারেন্স নীতি নিয়ে কাজ করছি। যতদিন অপরাধী চক্র গুলো সম্পূর্নরুপে নিশ্চিহ্ন না হবে, ততদিন আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 আদালত থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ