বুধবার , ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭

মোঃ রহমত আলী, হবিগঞ্জ েেথকে॥
জেলায় কর্মরত সকল সাংবাদিকের জন্য হবিগঞ্জ প্রেসক্লাব উন্মুক্তকরণ, অসাংবাদিকদের বহিস্কার ও যোগ্যদের মূল্যায়নসহ ৫ দফা দাবিতে মৌন মানববন্ধন করেছেন জেলা সদরে কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় সাংবাদিকরা। বুধবার বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত স্থানীয় কালেক্টরেট প্রাঙ্গণে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় সাংবাদিকরা মুখে কালো কাপড় বেধে রাখেন। পরে তারা আগামী ১৮ ডিসেম্বর অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা দেন।
সাংবাদিকরা বলেন, গুটি কয়েক সাংবাদিক প্রেসক্লাবকে কুক্ষিগত করে রেখেছেন। যাদের অনেকেই বর্তমানে কোন মিডিয়ায় কর্মরত নেই। এমনকি তারা সাংবাদিকতা পেশায়ও নেই। ফলে প্রেসক্লাব একটি অকার্যকর প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। যাচাই বাছাই করে তাদেরকে প্রেসক্লাব থেকে বহিষ্কার করে জেলার সাংবাদিকদের জন্য অন্তর্ভূক্ত করতে হবে। প্রেসক্লাবের কম্পিউটারসহ অন্যান্য সরঞ্জামাদি সাংবাদিকদের ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করতে হবে। প্রেসক্লাবে বিভিন্ন সময় আর্থিক অনিয়ম হয়েছে বলে সন্দেহ পোষণ করে তারা সরকারিভাবে তা নিরিক্ষা করে জনসম্মুখে প্রকাশের দাবি জানান। এ ক্ষেত্রে আর্থিক অনিয়মের প্রমাণ পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা কমিটির বিরুদ্ধে আইননানুগ ব্যবস্থা নিতে হবে। যথাযথ দেখভাল না থাকায় সরকার প্রদত্ত প্রেসক্লাবের ভূমি পাশর্^বর্তী বাসিন্দারা অবৈধভাবে দখল করে নিয়েছেন। তারা উক্ত ভূমি মাজঝোক করে উদ্ধার করে প্রেসক্লাবকে বুঝিয়ে দেয়ার দাবি জানান। তারা বলেন, প্রেসক্লাবের তৃতীয় তলা সাংবাদিকদের ব্যবহারের জন্য রেস্ট হাউজ করতে হবে। বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের সর্বশেষ নীতিমালা অনুযায়ী সদস্য সংখ্যা বাড়িয়ে গণতান্ত্রিক পন্থায় নির্বাচনের মাধ্যমে কার্যকরি কমিটি গঠন করতে হবে। 
স্মারকলিপি প্রদান ও মতবিনিময়কালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক জনকণ্ঠের জেলা প্রতিনিধি রফিকুল হাসান চৌধুরী তুহিন, এটিএন বাংলা’র জেলা প্রতিনিধি আব্দুল হালীম, যমুনা টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি প্রদীপ দাশ সাগর, একাত্তর টিভি’র জেলা প্রতিনিধি শাকিল চৌধুরী, ডিবিসি বাংলা’র জেলা প্রতিনিধি আব্দুল্লাহ আল মামুন, এসএ টিভি জেলা প্রতিনিধি আব্দুর রউফ সেলিম, ডিটিভি বাংলা জেলা প্রতিনিধি মোঃ রহমত আলী, বিজয় টিভি প্রতিনিধি মাসুক আলী, ডেইলী ট্রাইব্যুনালের জেলা প্রতিনিধি মোঃ মুজিবুর রহমান, দৈনিক সংবাদের জেলা প্রতিনিধি মোঃ ফয়সল চৌধুরী, দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশের জেলা প্রতিনিধি মোঃ মামুন চৌধুরী, সিলেট টুডে জেলা প্রতিনিধি শাকিলা ববি, দৈনিক দিনের শেষে জেলা প্রতিনিধি শাহ কামাল সাগর, দৈনিক প্রভাকরের স্টাফ রিপোর্টার আজহারুল ইসলাম চৌধুরী মুরাদ, দৈনিক বিজয়ের প্রতিধ্বনি’র স্টাফ রিপোর্টার মোহাম্মদ সজলু, দৈনিক হবিগঞ্জের বাণী’র স্টাফ রিপোর্টার সাকিব কায়সার, আব্দুল কাদির প্রমূখ।
এর আগে গত ৩ ডিসেম্বর জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার এবং ৯ ডিসেম্বর স্থানীয় সংসদ সদস্যের কাছে এসব দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।  

 বিশেষ খবর থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ