বৃহস্পতিবার , ০৪ জানুয়ারী ২০১৮

মো. মনিরুল আলম ,কালীগঞ্জ (গাজীপুর)ঃ  
গত ৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় গাজীপুরের কালীগঞ্জে ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলামকে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বাড়ী ফেরার পথে হত্যার উদ্দ্যেশে  সন্ত্রাসীরা রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে কুপিয়ে ও হাত-পা ভেঙ্গে  বাড়ির পাশে পৌর এলাকা চৌড়া গ্রামে  ভিআইপি আদর্শ উন্নয়ন ক্লাবের সামনে ফেলে রেখে দুর্বৃত্তরা চলে যায়। সজনরা খবর পেয়ে  তাকে  আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপালে ভর্তি করলে একদিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারাযান।  পরে নিহতের স্ত্রী রোকেয়া বেগম বাদি হয়ে  জালালউদ্দিন জালু কোম্পানীর কথা মতো  জালুর বিরোধীদের  ৭ জনকে আসামী করে কালীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
 মামলার এজাহারভুক্ত ৩নং আসামি আল-আমিনের তথ্যের ভিত্তিতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা  পুলিশের এস, আই, মো. আলালউদ্দিন  সন্দেহজনক ভাবে  জালালউদ্দিন জালু কোম্পানীকে গত ২৭শে ডিসেম্বর  বুধবার রাতে গ্রেফতার করে। পরে আদালতে পাঠানোর হলে  মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতের রিমান্ড চাইলে আদালত একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ড পুলিশ জালালউদ্দিন জালু কোম্পানীকে জিজ্ঞ্যসা করলে তিনি বুকে ব্যথা বলে নাটক করেন জালালউদ্দিন জালু কোম্পানী।  রিমান্ড শেষে তাকে আবারও আদালতে পাঠানো হয় । 
এবিষয়ে  কালীগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি আলম চাদ মিডিয়া কর্মিদের জনান, আমরা যখনই তাকে জিজ্ঞ্যস করি তখই তিনি বুকে ব্যথা উঠছে বলে জানান, তবে আমাদেরকে কিছু তথ্য দিয়েছে নোট করে রেখেছি তদন্ত করে দেখবো।  এখন আবার আদালতে প্রেরন করতেছি, আবারও রিমান্ডে এনে জিজ্ঞ্যস করবো ।  
এ নিয়ে  উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও পৌর কাউন্সিল বাবু পরিমল চন্দ্র ঘোষ বলেন ব্যবসায়ী সাইফুল  হত্যার বিষয়ে  পুলিশ সাধারণ মানষকে হয়রানী না করে প্রকৃত হত্যাকারীকে খোজে বের করোক।  

 আইন-শৃংখলা থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ