শনিবার , ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

মেসি-রোনালদো ‘প্রতিবেশী

  শনিবার , ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

অনলাইন ডেস্ক:
আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় শুরু হবে বিশ্বকাপ। আসরে অংশ নেওয়া ৩২টি দলের থাকার জায়গা (বেসক্যাম্প) এরই মধ্যে জানিয়ে দিয়েছে ফিফা। এর মধ্যে পর্তুগাল ও আর্জেন্টিনা দলের ক্যাম্পের মধ্যকার দূরত্বটা জানলে প্রশ্নটা উঠতেই পারে, ফিফা কি ইচ্ছে করেই এটা করেছে!
আর্জেন্টিনা ক্যাম্প করবে মস্কোর ব্রোনিৎসিতে। সেখান থেকে মাত্র ২৯ কিলোমিটার দূরের শহর ক্রাতোভোয় তাঁবু খাটাবে পর্তুগাল। সব কটি বেসক্যাম্পের মধ্যে আর্জেন্টিনা ও পর্তুগালের মধ্যকার দূরত্বই সবচেয়ে কম। অর্থাৎ, রাশিয়া বিশ্বকাপে লিওনেল মেসি ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে শুধু প্রতিদ্বন্দ্বী নয়, প্রতিবেশীও!
বিশ্বসেরা দুই খেলোয়াড় একে অপরের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী। বিশ্বকাপে প্রতিদ্বন্দ্বিতার সেই ঝাঁজ দুজনেই বজায় রাখবেন—এটা তো জানা কথাই। কিন্তু নিজ নিজ জাতীয় দলের বেসক্যাম্পের অবস্থানের জন্য তাঁরা যে প্রতিবেশী বনে যাবেন! ইউরোপের সংবাদমাধ্যমে রসিকতা চলছে, চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বলে ফিফা ইচ্ছে করেই তাঁদের কাছাকাছি রেখেছে।
আর্জেন্টিনা ও পর্তুগাল ছাড়াও জার্মানির বেসক্যাম্পও মস্কোয়। রাশিয়ার রাজধানীতে মোট ১০টি দলের বেসক্যাম্প হবে। ব্রাজিল তাঁবু খাটাবে সোচিতে। বন্ধু একসময়ের বার্সেলোনা-সতীর্থ মেসির থেকে বেশ দূরেই থাকতে হবে নেইমারকে। সোচি থেকে ব্রোনিৎসির দূরত্ব যে প্রায় ১ হাজার ৬০০ কিলোমিটার!

 খেলাধূলা থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ