শনিবার , ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

দোহার-নবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলায় গণিত পরীক্ষার নৈব্যক্তিক প্রশ্ন ও উত্তর বিনিময়কালে রনি মিয়া (২৬) ও সোহেল রানা (২৯) নামে দুই শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। 
শনিবার সকাল ৯টা ২০ মিনিটে উপজেলা সদর নবাবগঞ্জ পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রর ফটক থেকে তাদের আটক করা হয়। এদের মধ্যে সোহেল রানা কেন্দ্রের ১১নং কক্ষের দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষক ছিলেন বলে পুলিশ জানায়।
রনি মিয়া বক্সনগর উচ্চ বিদ্যালয় ও সোহেল রানা বাহ্রা ওয়াসেক মেমোরিয়াল হাই স্কুলের শিক্ষক। রনি উপজেলার বক্সনগর ইউনিয়নের বর্ধনপাড়া গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে। সোহেল রানা কেরানীগঞ্জ উপজেলার কলাতিয়া ইউনিয়নের তালেপুর গ্রামের আজম খানের ছেলে।
নবাবগঞ্জ থানার উপপরির্শক আবুল হোসেন জানান, শনিবার সকাল ৯টা ২০ মিনিটে উপজেলা সদর নবাবগঞ্জ পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রর ফটকের কাছে ১৫/২০ জনকে জড়ো হতে দেখা যায়। এতে সন্দেহ হলে কাছে গিয়ে দেখা যায়। তারা মোবাইলের সফটওয়্যার শেয়ারইটের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র ও উত্তর লেনদেন করছেন। এসময় শনিবারের গণিত পরীক্ষর ‘খ’ সেটের নৈব্যত্তিক প্রশ্নপত্র ও উত্তরসহ শিক্ষক রনি মিয়া ও সোহেল রানাকে আটক করা হয়। 
 উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফারুক আহমেদ ও নবাবগঞ্জ পাইলট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ নাজমুন নাহার বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেছেন। 

 নগর-মহানগর থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ