সোমবার , ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

খালেদার আপিল শুনানি: আদালত প্রাঙ্গণে নিরাপত্তা জোরদার

  বৃহস্পতিবার , ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

নিজস্ব প্রতিনিধি:

জিয়া অর্ফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার সাজার বিরুদ্ধে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার করা আপিলের গ্রহণযোগ্যতার শুনানির দিন ধার্য রয়েছে আজ (বৃহস্পতিবার)। শুনানিকে কেন্দ্র করে হাইকোর্ট প্রাঙ্গণ, অ্যানেক্স ভবন ও এর আশপাশে এলাকার নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ। এছাড়া আদালত কক্ষে মামলা সংশ্লিষ্টদের পরিচয় নিশ্চিত করে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে।

নিরাপত্তা ব্যবস্থার বিষয়ে পুলিশের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, খালেদা জিয়ার বিচারকার্যক্রমের শুরু থেকেই অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন ছিল। আদালতের চাহিদা অনুযায়ী পুলিশ সরবরাহ করা হয়। এছাড়া আজ তার (খালেদা জিয়া) আপিল আবেদনের শুনানির দিন রয়েছে।

হাইকোর্টের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চের কার্যতালিকায় খালেদা জিয়ার আপিল আবেদন রয়েছে ৬ নম্বরে। এদিকে সরজমিনেও দেখা গেছে, অন্যান্য দিনের চেয়ে আজ (বৃহস্পতিবার) হাইকোর্ট এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশের উপস্থিতি রয়েছে।

গত মঙ্গলবার খালেদা জিয়ার কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপলি করেছেন তার আইনজীবীরা। হাইকোর্টে দায়ের করা আপিলের গ্রহণযোগ্যতার ওপর শুনানির জন্য আজ (বৃহস্পতিবার) দিন ধার্য রয়েছে। মঙ্গলবার হাইকোর্টের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ দিন ঠিক করেন।

আপিল শুনানিতে মোট ৫৩ জন অাইনজীবী নিয়োগ দিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদকে প্রধান করে করা আইনজীবী প্যানেলের ৫৩ সদস্যই ওকালতনামায় স্বাক্ষর করেছেন।

এছাড়া আজ (বৃহস্পতিবার) খালেদা জিয়ার আপিল আবেদন গ্রহণের পর তার জামিন আবেদন করবেন আইনজীবীরা। ব্যারিস্টার আতিকুর রহমান ও ব্যারিস্টার ফাইয়াজ জিবরান জানান, খালেদা জিয়ার জামিনের জন্য মোট ৮৮০ পৃষ্ঠার জামিন আবেদন প্রস্তুত করা হয়েছে। আজ (বৃহস্পতিবার) ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) আপিল আবেদন গ্রহণ করার পরই আদালতে জামিন আবেদন করা হবে।

 রাজনীতি থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ