সোমবার , ০১ মার্চ ২০২১ |

এ প্রজন্ম ‘রেভিনিউ জেনারেশন’, তারা কর দিতে চায়: অর্থমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক   বৃহস্পতিবার , ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২১

বর্তমান প্রজন্মকে হচ্ছে ‘রেভিনিউ জেনারেশন’ উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, ‘সিস্টেম উন্নত করতে পারলে জনগণ করের আওতায় চলে আসবে। আমি বিশ্বাস করি দেশের মানুষ পারে না এমন কোনো কাজ নেই। তারা কর দিতে চায়।’

বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) এনবিআরের প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সেরা করদাতাদের ট্যাক্স কার্ড ও সম্মাননা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় মন্ত্রী আরও বলেন, ‘কর নিয়ে মানুষের মধ্যে অনেক ভয়ভীতি ছিল। যা অনেকটা দূর হয়েছে। এখন সিস্টেম উন্নত করা দরকার। আমরা সে জায়গায় পৌঁছতে পারি না। সমন্বয় করতে পারলে করের আওতা বাড়বে।’

অনুষ্ঠানে জাতীয় পর্যায়ে ১৪১ জন সেরা করদাতার মধ্য থেকে ১০ জন করদাতাকে ১টি সম্মাননা পত্র, ১টি ক্রেস্ট এবং ১টি আইডি কার্ড দেওয়া হয়। বাকি করদাতাদের নিজ নিজ কর অঞ্চল অফিস থেকে পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

কর দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে মুস্তফা কামাল বলেন, ‘নিজে কর দেবেন, অন্যকেও কর দিতে উৎসাহিত করবেন। আমাদের অনেকগুলো মেগা প্রকল্পের কাজ চলমান আছে। আরও মেগা প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এতকিছু করার সাহস আসে কর দাতাদের কাছ থেকে। এজন্য করের আওতা বাড়াতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।’

প্রতিবেশি দেশগুলোর সঙ্গে তুলনা করলে আমাদের কর জিডিপি অনুপাত এখনও অনেক কম উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের অন্তত ১৫ থেকে ১৭ শতাংশ কর জিডিপি হওয়া উচিত। এজন্য এনবিআরকে ডিজিটাল ব্যবস্থায় যেতে হবে। তা হলে যেসব খাত থেকে কর পাই তা আরও বেড়ে যাবে। নতুন নতুন খাত বের হয়ে আসবে। দেরি না করে কর ব্যবস্থাপনা ডিজিটাল করুন।’

প্রত্যক্ষ কর বেড়েছে এমন তথ্য উপস্থাপন করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘প্রত্যক্ষ কর বেড়েছে। আমাদের আরও বাড়াতে হবে। সেক্ষেত্রে করের হার না বাড়িয়ে আওতা বাড়াতে হবে। রেট না কমালে করের আওতা বাড়বে না। মোট কথা খাত বাড়াতে হবে, তা করতে পারলে আমারা লক্ষ্য পৌঁছতে পারব।’

অনুষ্ঠানে এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। অনুষ্ঠানে করদাতাদের সম্মাননাপত্র, আইডি কার্ড ও ক্রেস্ট ছাড়াও প্রথমবারের মতো উপহার হিসেবে করদাতাদের স্যুভেনির দেওয়া হয়।

এছাড়া একই দিনে সারা দেশের বিভিন্ন কর অঞ্চলে পুরস্কারপত্র করদাতাদের সম্মাননা দেওয়া হয়।

 অর্থ-বাণিজ্য থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ