মঙ্গলবার , ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক

সিলেটের জৈন্তাপুরে ওয়াজ নিয়ে সুন্নি ও ওয়াহাবি মতাদর্শীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে এক মাদ্রাসা ছাত্র নিহত হয়েছেন। 

নিহতের নাম মোজাম্মেল হোসেন, তিনি হরিপুর মাদ্রাসার দাওয়ারা হাফসির শেষ বর্ষের ছাত্র। 

সোমবার রাতে জৈন্তাপুরের আমবাড়িতে সুন্নী মতাদর্শীদের আয়োজিত একটি ওয়াজ মাহফিলকে ঘিরে এ সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। আহত হয়েছেন ১৫ জন। আহতদের কয়েকজনকে জৈন্তাপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে সংঘর্ষের জেরে আমবাড়ি, ঝিঙ্গাবাড়ি ও কাঠাল বাড়ি নামের তিনটি গ্রামের বিভিন্ন বাড়িতে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে জৈন্তাপুর উপজেলার বাংলাবাজার আমবাড়ি এলাকায় ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করে সুন্নী মতাদর্শের লোকজন। ওয়াজ চলাকালে রাত ১১টার দিকে সুন্নীবিরোধি ওয়াহাবি মতাদর্শের লোকজন হামলা চালালে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। কিছুক্ষণের মধ্যেই এ সংঘর্ষ বৃহৎ আকার ধারণ। দু'পক্ষের হাজারো লোক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। সংঘর্ষের জের ধরে রাত দুইটায় মুসল্লীরা সিলেট-তামাবিল সড়ক অবরোধ করে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়।

এ ব্যাপারে জৈন্তাপুর থানার ওসি খাঁন মো. মঈনুল জাকির জানান, আমবাড়িতে রাতে একটি ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করে সুন্নি মতাদর্শের লোকজন। এক পর্যায়ে ওয়াজকে কেন্দ্র করে ওই সমাবেশের মধ্যে ওয়াহাবি মতাদর্শের লোকদের সঙ্গে সুন্নি মতাদর্শের লোকদের সংঘর্ষ হয়। এতে মোজাম্মেল হোসেন নামে এক মাদ্রাসার ছাত্র ঘটনাস্থলেই নিহত হয়।

 ধর্মতত্ত্ব থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ