মঙ্গলবার , ২০ এপ্রিল ২০২১ |

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার ৬ নং পশ্চিম জোর কানন ইউনিয়নের ভাটপাড়া গ্রামের ইদু মিয়ার ছেলে নাদিমকে শুক্রবার সকাল ৯ টায় ঘুমন্ত অবস্থায় প্রথমে কুপিয়ে ও পরে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা । পারিবারিক সূত্রে জানা যায় নাদিমের সাথে নিজ গ্রামের ইলিয়াস সাহেবের উত্তরসূরী কিছু লোকের সাথে বিরোধিতা ছিল । এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার  ইনফর্মা দেওয়াকে কেন্দ্র করে নাদিমের  সাথে তাদের মারামারি হয়।

 এতে নাদিমের হাত পা এবং মাথা ফেটে যায় তাই গত দুইদিন নাদিম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন । আজ সকালে বাড়িতে ফিরে যখন ঘুমাচ্ছিলেন একটি দল দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র  নিয়ে নাদিমের  উপর এলোপাতারী  হামলা করে প্রথমে কুপিয়ে জখম এবং  পরে গলাকেটে হত্যা করা হয় ।এই সময় নাদিমের স্ত্রী,মা,ভাই  বাধা দিলে ,মায়ের  বা-হাতের কব্জি কেটে নেয় এবং  স্ত্রী ও ভাইকে মারাত্মক  জখম করে ।তাদের অবস্থা গুরুতর  ।

সদর দক্ষিন  মডেল  থানা পুলিশ  উপস্থিত  হয়ে নাদিমকে  কুমিল্লা মেডিকেল  কলেজ  হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত  ডাক্তার  তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নাদিমের  মা,স্ত্রী,ভাই  বর্তমানে চিকিৎসাধীন। প্রত্যক্ষদর্শী  জানিয়েছেন শুক্রবার সকাল ৯টায় নূরুল হক ও নূরুলহকের ছেলে এরশাদ (৩৩) খোকা (৩৮)ফারুক (২৮) বেলাল (৩৫)রুবেল (২৬) এবং রিপন(৩৫) মান্না (৩৫)হান্না বোবা ,আলআমিন (২৫)আলাউদ্দিন (২০)সুজন (৪০)ওয়াসিম  (২৫) এবং  আরও ১০-১৫ জনের  একটি  দল দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে নাদিমের  উপর হামলা করে ।মৃত্যুসজ্জায় নাদিমের আকুতি ছিল আমাকে একেবারে মারিস না আমি তোমাদের কোন ক্ষতি করব না ।

এলাকাবাসীর মতামতে দুর্বৃত্তরা নাদিমের ছোট্ট মেয়েটাকে আঘাত  করে দুইটি মোবাইল ও ঘরবাড়ি ভাগ্চুর  করে নগদ ৪লাখ টাকা ও  স্বর্ণালংকার  নিয়ে যায় । দুর্বৃত্তদের হুমকিতে মৃত্যুর  ভয়ে কেউ  মুখ  খোলে না ।সদর দক্ষিন মডেল থানায় গিয়ে দেখা যায়  মান্না নামের এক জন কে আটক  করা হয়েছে ।

জুয়েল আহমেদ

 আইন-আদালত থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ