সোমবার , ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮


অজয় সরকার : নেত্রকোনা জেলার সংসদীয় আসন-৫ পূর্বধলা থানারোড সংলগ্ন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠানে ইঞ্জিনিয়ার তুহিন আহাম্মদ খানকে প্রধান অতিথি করায় থানা রোডে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯ তম জন্মবার্ষিকী ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে পূর্বধলার সংসদ সদস্য ওয়ারেসাতুল বেলালের ক্যাডার গতকাল আনুমানিক সাড়ে ১১ টায় সময় সাবেক যুবলীগের আহবায়ক মাসুদ আলম টিপু, নূরুল আমিন, কামরুজ্জামান উজ্জল এর নেতৃত্বে দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে থানারোড ১০০ গজ দূরত্বে পূর্বধলা থানার সামনে অতর্কিতভাবে অফিসের চেয়ার ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি ভাংচুর করে ফেলে যায় এবং থানা রোডের সন্ত্রাসীরা তান্ডবলীলা চালায়। উল্লেখ্য একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লন্ডন প্রবাসী ইঞ্জিনিয়ার তুহিন আহমেদ খান পূর্বধলায় সংসদ সদস্য প্রার্থী হিসেবে দলীয় হাইকমান্ড তাকে গ্রীন সিগন্যাল দেওয়া হয়। ১৭ মার্চ পূর্বধলার সংসদ সদস্যর ইশারায় এবং লন্ডন প্রবাসী ইঞ্জিনিয়ার তুহিন আহমেদ খান সংসদ প্রার্থী হিসেবে শোনার পর সংসদ সদস্যের ক্যাডাররা ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রæপের ছেলেদের ১৭ মার্চ অনুষ্ঠান বানচাল করে এবং ক্যাডারদের আক্রমনে পূর্বধলা সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: কসম উদ্দিন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শহীদ ডিগ্রী কলেজের সহ-সভাপতি মো: শফিকুল ইসলাম, যুগ্ম আহবায়ক আলমগীর ইসলাম, স্বপন চন্দ্র সরকার, আনিসুর রহমান জুয়েল গুরুত্বর আহত হয়। পূর্বধলা থানার অফিসার ইনচার্জ অভি রঞ্জন দেবকে সাংবাদিকরা মুঠোফোন করলে থানার ২০০ গজ দূরত্বে যুবলীগের অনুষ্ঠান পন্ড হয়েছে এবং যুবলীগের কর্মীদের মারধোর করা হয়েছে, অফিসের চেয়ার ও বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুর করা হয়েছে। তিনি প্রশ্নের জবাবে বলেন এটি সংসদ সদস্যের গ্রæপের কাজ। আমি বাইরে আইন শৃঙ্খলার কাজে নিয়োজিত ছিলাম। তাৎক্ষনিক ঘটনা শোনার পর আইন শৃঙ্খলা এখন নিয়ন্ত্রনে রয়েছে । একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার তুহিন আহমেদ খান ময়মনসিংহ পলিটেকনিক কলেজের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। ১৯৯৪/৯৫ সালে জোট সরকারের আমলে তিনি অনেক মামলায় জড়িয়ে পড়েন। পরবর্তীতে তিনি লন্ডনে প্রবাস জীবন শুরু করেন। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি । দলের সিগন্যাল পাওয়ার পর তিনি পূর্বধলা বাসীর মনের কোঠায় নিজেকে পরিচিত করেছেন। মসজিদ, মন্দির, মাদরাসা, অনুদান, স্বা¯’্যসেবা এবং দরিদ্রদের মাঝে চিকিৎসা সেবা সহ আর্থিক সাহায্য দিয়ে আসছেন। পূর্বধলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম সুজন বলেন ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও শিশু দিবস অনুষ্ঠানে দোয়া, মিলাদ মাহফিল ও কেক কাটার পূর্বে পূর্বধলা থানা রোড সন্ত্রাসী কর্তৃক যুবলীগ অফিস ভাঙ্গায় এবং পুলিশের ভূমিকা নিয়ে তিনি প্র¤œ তুলেন এবং ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সামনেই এ ঘটনাটি ঘটেছে।

 সারা বাংলা থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ