বুধবার , ২৩ মে ২০১৮

সাদের হোসেন বুলু নবাবগঞ্জ (ঢাকা) সংবাদদাতা
ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলা সদরে অবস্থিত মেথর পট্রিতে অভিযান চালিয়ে বাংলা মদের কারখানাসহ মেথর পট্টির উচ্ছেদ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার সকালে উপজেলা সদরের কাশিমপুর এলাকায় বাংলা মদের এ কারখানায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. তোফাজ্জল হোসেন।
ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সদর কাশিমপুর মৌজায় ১নং খাস খতিয়ানের প্রায় ১০শতাংশ জমি দখল করে দিপক নামে এক মাদক ব্যবসায়ী বাংলা মদের ব্যবসা করে আসছিলো দীর্ঘদিন। তাকে বিভিন্ন সময় পুলিশ আটক করে মামলা দিয়ে আদালতে প্রেরণও করলেও তিনি আবার আইনের হাত থেকে ছাড়া পেয়ে ফের মদের ব্যবসায় শুরু করে ও সরকারের অনুমতি ছাড়াই খাস জমিতে পাঁকা ভবন নির্মাণ করেন । এরই পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. তোফাজ্জল হোসেন মাদক ব্যবসায়ীদের বাংলা মদের কারখানা উচ্ছেদ করেন। পরে কারখানটি সিলগলা করে পুলিশের হেফাজতে দেওয়া হয়।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তোফাজ্জল হোসেন বলেন,  মাদক ব্যবসা ছেড়ে দিতে বলেছি বেশ কয়েক বার। সরকারি জমি দখল ছেড়ে দেওয়ার জন্যও বেশ কয়েক বার নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তারা এ সবের কিছুই মনে করেন না। তাই মোবাইল কোর্ডের মাধ্যমে তাদের বাড়ি ঘর ও বাংলা মদের কারখানা ভেঙ্গে তাদেরকে সেখান থেকে উচ্ছেদ করে জায়গাটি সরকারের দখলে নেওয়া হয়েছে।  অভিযানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহনাজ মুন্নি মিথুন, নবাবগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মো. আশরাফুল আলম তালুকদার। 

 বিশেষ খবর থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ