বৃহস্পতিবার , ২৪ মে ২০১৮

এম এ রহিম,বেনাপোল:
দুদিনের সকাল-সন্ধায় বৃষ্টিতে স্থলবন্দর বেনাপোল মহাসড়কের দুপাশে সৃষ্টি হচ্ছে জলাবদ্ধতা। আটকে থাকছে গাড়ী বাড়ছে যানজট। ব্যাহত হচ্ছে আমদানি রফতানি বানিজ্য। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন ব্যাবসায়িরা। বেনাপোল বন্দর সড়কের পাশে সড়ক উন্নয়নের নামে দু-মাস ধরে রাস্তা খুড়ে রেখেছে পৌরসভা প্রকোশলী বিভাগ। ফলে সামান্য বৃষ্টি হলেই সৃষ্টি হচ্ছে জলাবদ্ধতা। পানিতে আটকে বিকল হচ্ছে প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাস সহ বিভিন্ন পরিবহন। দুর্ভোগ বাড়ছে পথচারিদের। এ থেকে পরিত্রান চান বন্দর ব্যাবহারকীসহ স্থানীয়রা। 
প্রতিদিন বেনাপোল স্থলপথে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে চলাচল করে প্রায় ৫থেকে ৭হাজার যাত্রী। ৩শতাধিক পন্যবাহি ট্রাক ও শতাধিক দুরপাল্লার পরিবহন সহ হাজারও পরিবহন। জনগুরুত্বপূর্ন সড়কটি দীর্ঘদিন খুড়ে রাখায় বাস ট্রাক ও মানুষ চলাচলে চরম বিড়ম্বনায় পড়তে হচেছ। সরু হয়ে গেছে সড়ক। ফলে যানজট বাড়ছেন বলে জানান ব্যাবসায়িরা। 
এসব বিষয়ে পথচারি ্অজগার আলী ও সমিরন নেসা বলেন,সড়কের উন্নয়ন কাজে সামান্য সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে তবে এটা দীর্ঘদিন হলে দুর্ভোগ বাড়ে। পৌর মেয়রের স ুদৃষ্টি কামনা করেন তারা। 
 বন্দর সড়কের দু পাশে পানি জমে পথচারিদের বেড়েছে দুর্ভোগের কথা সিকার করে বেনাপোল বন্দর পরিচালক আমিনুর রহমান বলেন পৌরসভার মেয়রকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। অচিরেই সমস্যার সমাধান হবে বলে জানান তিনি। তবে বন্দর গোডাউনে পন্য লোড আনলোড সহ বন্দর ও কাষ্টমসের সব কাজ স্বাভাবিক গতিতেই্ চলছে বলে জানান আমিনুর রহমান।   
 পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন বলেন,সড়কের দুপাশের রাস্তা ঢালায়ের কাজ চলছে। তবে উত্তর পাশের রাস্তার উাপর সব সময় চাপ থাকে বেশী। রাস্তাটির টেকসই বাড়াতে কয়েকদিন সময় নেওয়া হয়েছে। এ সপ্তাহের মধ্যেই রাস্তার কাজ শেষ করার চেষ্টা করা হচেছ বলে জানান তিনি। 

 নগর-মহানগর থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ