বুধবার , ২৭ জুন e ২০১৮

মোঃ সালমান হোসাইন, নাটোর সংবাদদাতাঃ
নাটোরের বাগাতিপাড়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মরত চিকিৎসক ডাঃ আয়েশা সিদ্দিকা আশা এক ভারতীয় নাগরিকের চিকিৎসা না করেই তাকে নাটোর সদর হাসপাতালে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
মঙ্গলবার (২৬শে জুন) সকালে ভারতীয় সেই নাগরিক নিতু রানা শারীরিক অসুবিধার জন্য চিকিৎসা নিতে বাগাতিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন। এসময় হাসপাতালে কর্মরত  স্টাফ মোঃ মুকুল রোগীকে দেখার জন্য ফোন দিয়ে কর্মরত ডাক্তারকে জরুরী বিভাগে আসতে বলেন। ডাক্তারের আসতে দেরি দেখে ওই স্টাফ বেশ কয়েকবার ডাক্তারকে ফোন দিলে কর্মরত ডাক্তার আয়েশা সিদ্দিকা আশা ব্যাস্ত আছি বলে রোগীকে নাটোর সদর হাসপাতালে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্টাফ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ডাঃ আয়েশা সিদ্দিকা আশা এর আগেও অনেক জরুরী রোগীকে চিকিৎসা না করে অন্যর্ত পাঠিয়েছেন। তাছাড়াও তার বিরুদ্ধে কমপ্লেক্সের অনেক অনিয়মের অভিযোগ করেছেন কর্মরত স্টাফ ও এলাকাবাসী।
আরোও জানা যায়, ভারতীয় সেই নাগরিক কলকাতার ক্ষ্যাতি সম্পন্ন আইনজীবি ও বাংলাদেশের নাটোর জজ কোর্টের আইনজীবি ও মানবাধিকার নেতা এ্যাডভোকেট সোহেল রানার স্ত্রী। 
এবিষয়ে মানবাধিকার নেতা এ্যাডভোকেট সোহেল রানা বলেন, যেখানে একজন ভারতীয় নাগরিক ডাঃ আয়েশার কাছ থেকে চিকিৎসা সেবা পায়নাই, সেখানে উপজেলার গরীব সাধারণ মানুষ কিভাবে সেবা পায়। যা আমাদের দেশের জন্য লজ্জা ও অপমান জনক। আমি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে কথা বলেছি ও বিষয়টি জানিয়েছি তিনি আমাকে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন।

 সারা বাংলা থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ