বুধবার , ২৭ জুন e ২০১৮


বিশ্বের ব্যয়বহুল শহরের তালিকায় স্থান পেয়েছে ঢাকা। গতকাল মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক মানবসম্পদ প্রতিষ্ঠান মার্কার এই তালিকা প্রকাশ করেছে। ২০৯টি নগরীর সেই তালিকায় বিশ্বের অনেক উন্নত এবং ধনীদেশের বড় বড় নগরীকে পেছনে ফেলে ঢাকার অবস্থান ৬৬ নম্বরে।

মার্কার ব্যয়বহুল নগরীর এই সূচক তৈরি করে কোন নগরীতে বিদেশিদের জীবনযাত্রার খরচের তুলনা করার জন্য। মোট ২শ’ জিনিসের ব্যয় বিবেচনায় নেয়া হয়। এর মধ্যে আছে বাসস্থান, যাতায়াত, খাবার, বিনোদন থেকে শুরু করে নানা কিছুর দাম। এক কাপ কফি, এক বোতল পানি, এক লিটার পেট্রোল বা এক লিটার দুধ। মানদণ্ড হিসেবে ধরা হয় নিউ ইয়র্ক নগরীকে। আর খরচের হিসেব তুলনা করা হয় মার্কিন ডলারে। এসব খরচ বিবেচনায় বিদেশিদের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল নগরী হংকং। দ্বিতীয় স্থানে টোকিও। তিন থেকে পাঁচ নম্বরে আছে যথাক্রমে জুরিখ, সিঙ্গাপুর এবং সিউল।

প্রথম দশটি স্থানে আরো আছে সাংহাই, এনডজামেনা, বেইজিং এবং বার্ন। বিদেশিদের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল পাঁচটি নগরীর চারটিই আছে এশিয়াতে। সেখানে চীনের বড় বড় শহরগুলিই আছে উপরের দিকে। সবচেয়ে কম ব্যয়বহুল নগরী হচ্ছে তাশখন্দ। তিউনিস আর বিশকেকের পর তাদের অবস্থান।

সূচকে দক্ষিণ এশিয়া থেকে একমাত্র নগরী মুম্বাই (৫৫) ঢাকার উপরে। ভারত বা পুরো দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য নগরীগুলো ঢাকার অনেক পেছনে। ইয়াংগুন আছে ৯১ নম্বরে, দিল্লি ১০৩ নম্বরে, কলম্বো ১০৮, চেন্নাই ১৪৪, কলকাতা ১৮২, ইসলামাবাদ ১৯০ আর করাচি ২০৫ নম্বরে।

 জাতীয় থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ