রবিবার , ০৮ July ২০১৮

গাজীপুর প্রতিনিধি:
গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক ইউনিয়নের বরাব ও সাকাশ্বর এলাকায় গরু চুরির হিড়িক পড়েছে। গত এক মাসে ওই দুই গ্রামে কমপক্ষে ৬০ থেকে ৭০টি গরু চুরি হয়েছে। উপজেলার বরাব এলাকার মৃত আনসার আলী সিকদারের ছেলে শাহজাহান সিকদার বৃহস্পতিবার গরু চুরির বিষয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। এলাকার কৃষকদের মাঝে গরু চুরির বিষয় নিয়ে আতংক ও ক্ষোভ হতাশা বিরাজ করছে।
খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার বরাব এলাকায় বুধবার রাতে গোয়াল ঘরের তালা ভেঙ্গে কৃষক শাহজাহান সিকদারের দুটি ষাড় বাছুর ও দুটি গাভী চুরি করে নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মুল্য ছয় লাখ টাকা বলে জানা গেছে। এ ছাড়া বরাব ও সাকাশ্বর এলাকার দক্ষিন এলাকায় এক রবিউল নামে এক কৃষকের ৪টি, আনসার আলীর ৩টি, নাসির উদ্দিনের ২টি ,কামাল উদ্দিনের ২টি, আকবর আলী দুটিসহ ৬০ থেকে ৭০টি ষাড় ও গাভী গরু চুরি হয়েছে। অপরদিকে ওই এলাকার  ওয়াকিয়া ফাউন্ডেশন মালিক এমদাদুল হক সিকদার তার খামারে ২২টি গরু রয়েছে তিনি ওই খামারের গরু চুরির আতংকে রয়েছে। সংঘবদ্ধ গরু চোরেরা  রাতের আধারে ওই এলাকায় গিয়ে কৃষকের গোয়াল ঘর থেকে গরু চুরি করে নিয়ে যায়। ওই চোরেরা কর্ভাটভ্যান ও ট্রাক ভর্তি করে ওই গরু চুরি করে নিয়ে যায়। ফলে রাত জেগে পাহারা দিয়েও কোন সমাদান হচ্ছেনা।
এমদাদ হক সিকদার ও শাহজাহান সিকদার জানান, ওই এলাকায় গরু চুরি বৃদ্ধি পেয়েছে। গোয়াল ঘরে বাস করেও গরু রক্ষা করা যাচ্ছেনা। বিষয়টি আমাদের এলাকার কৃষকের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। আমরা দ্রæত এর সমাদান চাই। থানা প্রশাসন তৎপর হলে গরু চুরি রোধ করা যাবে।
কালিয়াকৈর থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ মাসুদ আলম বলেন, গরু চুরির বিষয়টি সর্ম্পকে কিছু জানা নেই। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 পাঁচমিশালি থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ