শনিবার , ১৪ July ২০১৮

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি অজয় সরকার : ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার সৈয়দ নূরুল ইসলাম ডিবির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আশিকুর রহমানের নির্দেশে গত শুক্রবার আনুমানিক বিকাল ৫ টায় সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা গাছতলা নামক স্থান থেকে ডিবি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এস.আই আকরাম হোসেন, এস.আই পরিমল চন্দ্র, এ.এস.আই মো: আতিক ময়মনসিংহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে কুখ্যাত মার্ডার মামলার আসামী মো: সাদ্দাম হোসেন, পিতা- সাইফুল ইসলাম বাবু, সাং- রুটিওয়ালা পাড়া সাদ্দামকে ধর্মপাশার গাছতলা থেকে আটক করে। উল্লেখ্য গত ২০.০৩.২০১৮ আনুমানিক সন্ধ্যা ৬ টায় স্বদেশ হাসপাতালে এস.এম খলিলুর রহমান বাড়ী সম্মুখে ১১ তলা বিল্ডিং এর নিচে স্বপন সরকার (২৫), পিতা- বেনু চন্দ্র সরকার, সাং- সেহড়া মুন্সীবাড়ী, ডিবি রোড, সাদ্দাম হোসেন স্বপন সরকারকে বাড়ী থেকে ডেকে এনে স্বদেশ হাসপাতালের নিচে পরিকল্পিতভাবে স্বপন কে হত্যা করে। ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানায় মামলা দায়ের হলে, মামলা নং-৮০, ২১.০৩.২০১৮ মোট সাদ্দাম হোসেন সহ ৬ জন আসামী করে মামলা রুজু করে। কোতোয়ালী মডেল থানায় মামলা হলেও মোট ৪ জন আসামী ধরে কোর্টে হস্তান্তর করে। বাকী ২ জন আসামী সাদ্দাম, এ.কে.এম আজাদ চৌধুরী দুইজন পলাতক থাকায় এই মামলাটি ডিবিতে হস্তান্তর করে। ডিবির এস.আই মো: আকরাম হোসেন, এ.কে.এম আজাদ চৌধুরী সহ ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী আদায় করে। মূল আসামী সাদ্দাম হোসেন হোন্ডা চক্রের আন্ত: জেলা ডাকাত এবং তিনি খুন খারাপী একজন দুধর্ষ আসামী। আসামী। তার বিরুদ্ধে অনেক মামলা রয়েছে। সাদ্দামের শ্বশুর শম্ভুগঞ্জের রুহুল ডাকাতের জামাতা। এছাড়াও সারদা ঘোষ রোডের শহীদকে স্টেপ করে এবং মহিলার বুক কর্তন করে। তার বিরুদ্ধে কোতোয়ালী থানায় আরো দুইটি মামলা রয়েছে। স্বপন সরকারের স্ত্রী সুবর্ণা সরকার এর একটি দুই বছরের সন্তান রয়েছে। দুই বছরের সন্তান বাবা বাবা বলে কেদে উঠে। সুবর্ণা সরকার ডিবির গোয়েন্দা ভারপ্রাপ্ত কমকর্তা আশিকুর রহমানের সামনে কান্নায় ভেঙ্গে পরে। আমার মত কোন সন্তানের যেন বুক খালি না হতে হয়। আমি ফাসির দাবী করছি। সাদ্দাম গ্রেফতায় হওয়ায় এলাকাবাসী মিষ্টি বিতরণ করেছেন এবং এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে জানিয়েছেন সাদ্দামকে পালানোর সহযোগিতা সাদ্দামের মামা মুখলেছু ও দিদার সহযোগিতা করেছে। তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হোক। এবং এলাকাবাসী আরো জানিয়েছেন তিনি টাকার বিনিময়ে মার্ডার করে গনশার মোড়ে আলিশান বাড়ী তৈরী করছেন।

 আইন-শৃংখলা থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ