শনিবার , ১৪ July ২০১৮

মাহবুবুল আলম,গাজীপুর প্রতিনিধি:
গাজীপুরের কাশিমপুর কারা কমপ্লেক্সের মূল ফটক থেকে সাড়ে ৮৬হাজার জাল টাকাসহ শনিবার দুপুরে এক নারীকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ। আটক শিউলী বেগম (২৭), বরগুনা জেলার ফেরদৌস মিয়ার স্ত্রী এবং পিরোজপুর সদর উপজেলার শিকদার মল্লিকবাড়ি এলাকার মৃত  আফতাব উদ্দিনের মেয়ে। 
কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের ডেপুটি জেলার আলী আফজাল জানান, গাজীপুরের মাস্টারবাড়ি এলাকায় স্বপরিবারে বাসা ভাড়া থাকতো শিউলি বেগম। শনিবার দুপুর পৌণে ১২টার দিকে শিউলি বেগম কাশিমপুর কারাগার-২ এ বন্দি তার বড় ভাই আব্দুর রহিমের (৩৩) সঙ্গে দেখা করতে যান। এ সময় কারাগারের মূল ফটকে নারী চেক পোস্ট থেকে তল্লাশীকালে তার ব্যাগ থেকে ৪২টি ১০০০ টাকার জাল নোট এবং ৮৯ টি ৫০০ টাকার জাল নোটসহ শিউলি বেগমকে আটক করা হয়। পরে তাকে জয়দেবপুর থানা পুলিশে হস্তান্তর করা হয়েছে। আটক শিউলি বেগমের ভাই আব্দুর রহিম খিলগাঁও থানায় জাল টাকার মামলায় কাশিমপুর কারাগার-২ এ বন্দি রয়েছে। 
কাশিপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারের সুপার মো. শাহজাহান আটক শিউলীর বরাত দিয়ে জানান, কারাবন্দি রহিমের এক শ্যালিকা ওই টাকাগুলো শিউলীকে দিয়েছে। তার কাছেও জাল মনে হওয়ায় শনিবার দুপুরে টাকাগুলো ব্যাগে ভরে ভাই রহিমকে দেখাতে কারাগারে যাচ্ছিলেন। পরে কারাগার ঢুকার আগে কারাফটকে তল্লাশীর সময় কারারক্ষীরা তার কাছে ওই টাকা পেয়ে পুলিশে দিয়েছেন। 
জয়দেবপুর থানার কোনাবাড়ী পুলিশ ক্যাম্পের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. আকরাম হোসেন জানান, শিউলি বেগমকে মোট ৮৬ হাজার ৫০০ জাল টাকাসহ কারা কর্তৃপক্ষ আটক করে। পরে কারা ফটকে গিয়ে তাকে আটক করে থানাায় পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে জয়দেবপুর থানায় মামলা হয়েছে।

 আইন-শৃংখলা থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ