শুক্রবার , ২২ মার্চ ২০১৯ |

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি অজয় সরকার :

ময়মনসিংহ জেলা ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার পল্লী গ্রাম কবীর ভুলসোমা, ফজলুল হক গং মো: আলী নেওয়াজ গং দের সাথে দীর্ঘদিন যাবত জমির সংক্রান্ত নিয়ে ঈশ্বরগঞ্জ সহকারী জজ আদালতে মামলা নং- ১৯৯,  উভয় পক্ষের মামলা দায়ের হলেও জমির পরিমান ১ একর ২৭ শতাংশ ও ৭ একর জমি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত তার চাচাতো ভাই মো: নেওয়াজ আলী গং দের সাথে বিরোধ চলে আসছে এবং জমি সংক্রান্ত ব্যাপারে উভয় পক্ষে মামলা দায়ের হয়। এই মামলাকে ভিন্ন খাতে নেওয়ার জন্য গত ১৪.০৭.২০১৮ রোজ শনিবার সন্ধ্যা আনুমানিক সাড়ে ৬ টায় মৃত আ: বারেক মেয়ে মো: হেলাল উদ্দিনকে পরিকল্পিতভাবে পানি ছিটানোকে কেন্দ্র করে বিচার সালিস বসে। ঐ এলাকার চেয়ারম্যান ও  ৪ নং ওয়ার্ড মেম্বার মো: হিরণ এলাকার প্রতাপশালী ব্যক্তিরা দরবার শালিসে বসে। দরবার সালিশে মো: হেলাল উদ্দিনকে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা ধরা ধরে। সাদা কাগজে টিপ সই নিয়ে যায়। কোর্টে মামলা হওয়ায় মো: আব্দুল মজিদ গংদের সহিত এই নিরীহ পরিবারদের প্রতি অন্যায় অত্যাচার নিপীড়ন করে আসছে। এলাকাবাসী ভূক্তভোগী নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গত ১৪ তারিখের ঘটনার আনুমানিক প্রায় ৫০ হাজার টাকা, বাড়ী ঘরে হামলায় আসবাবপত্র সহ ক্ষতিগ্রস্থ হয়।  বিগত ভূমি জরিপে সিএস-১১, আরওআর-৯, দাগ নং- ১,৪০,১৬৫/৩০০। প্রকৃত ফজলুল হক ৪.৫৫ একর জমির মালিক। এই জমিকে উপেক্ষা করে ফজলুল হকের পরিবারকে মৃত্যুর হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। ঈশ্বরগঞ্জ থানায় পরিবারের নিরাপত্তার দাবীতে একটি সাধারণ ডায়েরী করেন এবং এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে জানিয়েছে দুই পক্ষের মামলা দায়ের হলেও কোর্টের র্য়া হলে তা উভয় পক্ষকে মানতে হবে।

 পাঁচমিশালি থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ