রবিবার , ০৫ আগষ্ট ২০১৮

রকি আহমেদ, নড়িয়া ঃ 
নড়িয়া উপজেলায় ভূমখাড়া ইউনিয়নে জমিজমায় বসত  ঘর তোলার অভিযোগে দুই পক্ষের মারামারিতে আহত হয়াছে ৪ জন। গুরুত্বর আহত মোতালেব ছৈয়াল, মেম্বার নাসিমা বেগম, মনির ছৈয়াল ও বাবুল মাঝিকে নড়িয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মারামারির অভিযোগ এনে একটি মামলা করা হয়েছে। নড়িয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুইজনকে আটক করেছে ।  
মেম্বার নাসিমা বেগম বলেন, এই জমি হল আমার পৈত্রিক সম্পদ ভূমখাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বাবুল ঢালী, মাছুম ঢালী কিছু ভারাটে লোক দিয়ে আমার বাড়ির গাছগাছলা কেটে জোরপূর্বক একটি টিনের ঘর তুলতে থাকে আমি তাদের বাধা দিলে তারা আমাকে মারধোর করে। তিনি বলেন, আমার ভাইকে মেরে গুরুত্বর আহত করে ও বাড়ী লুটপাট করে।  
মাছুম ঢালী বলেন, আমার পিতা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা; আমার ৮০ শতাংশ জমিতে আমি আমার আতœীয় স্বজন মিলে ঘর তুলতে গেলে বাধা দেওয়া হয়। ক্রয় ও পৈত্রিক সম্পদ ৩ একর  জমি মেম্বার নাছিমা বেগম প্রভাব খাটিয়ে জোরপূর্বক ও স্থানীয়দের গুম মামলা দিয়ে ৯ বছর জেল খাটায় এবং তার সাথে কেউ কোন রকম কথা বলতে সাহস পায়না । 
নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম উদ্দিন বলেন, থানায় মামলা হয়েছে। এ ব্যাপারে দুই জনকে আটক করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেুফতার করার চেষ্টা চলছে।   

 সারা বাংলা থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ