মঙ্গলবার , ১৬ অক্টোবর ২০১৮

‘বাংলাদেশে জঙ্গি সন্ত্রাসীরাই সংখ্যালঘু

  মঙ্গলবার , ১৬ অক্টোবর ২০১৮

অনলাইন ডেস্ক:
বাংলাদেশে কোনো সংখ্যালঘু নাই। এদেশে একমাত্র সংখ্যালঘু হচ্ছে জঙ্গি, সন্ত্রাসীরা, অপরাধীরা। আর কেউ এদেশে সংখ্যালঘু নাই। এদেশের সংবিধান সমস্ত নাগরিক অধিকার, মানবাধিকার, তাদের সার্বিক মৌলিক অধিকার সংবিধানে নিশ্চয়তা দিয়েছে। আমাদের দেশ অসাম্প্রদায়িক দেশ।’
মঙ্গলবার দুপুরে মহাসপ্তমীতে বাগেরহাটের শিকদার বাড়ির দুর্গাপুজা পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের কাছে র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ একথা বলেন।
তিনি আরও বলেন, নির্বাচন গণতান্ত্রিক দেশের স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। প্রতি পাঁচ বছর পরপর নির্বাচন হবে। ওই নির্বাচনে যারা বিজয়ী হবে তারা নতুন সরকার ক্ষমতায় আসবে এটাই স্বাভাবিক। এটাকে কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষের শঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। আমরা প্রত্যাশা করব এদেশে ১৮ কোটি মানুষের মধ্যে যারা ভোটার হয়েছেন তারা আগামী নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রে যাবেন ভোট দেবেন। নির্বাচনের যে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া সবাই সম্মিলিতভাবে সাহসের সঙ্গে অংশ গ্রহণ করবেন। 
দেশ আমাদের, গণতন্ত্র আমাদের এর সুরক্ষা আমরা সম্মিলিতভাবে নিশ্চিত করব। সনাতন ধর্মাবলম্বীরা যাতে নির্বিঘ্নে পূজা উদযাপন করতে পারে সেজন্য দেশব্যাপী আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। দূর্গাপুজার গুরুত্বপূর্ণ মণ্ডপগুলোতে বিশেষ পর্যবেক্ষণে রেখেছি। সেগুলোতে গোয়েন্দা নজরদারিতে রয়েছে। ধর্ম যার যার উৎসব সবার এই মন্ত্রে দীক্ষিত হয়ে এদেশের সব সম্প্রদায়ের মানুষ ধর্মীয় উৎসব পালন করে আসছে। কিন্তু গুটি কয়েক অপরাধী চক্র এ ধরনের উৎসবকে নস্যাৎ করার অপচেষ্টা করে থাকে। বিগত দিনে ওই চক্রকে জনগনকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিরোধ করা হয়েছে। ভবিষ্যতেও করার চেষ্টা করে তাহলে তাদেরও নিশ্চিহ্ন করা হবে বলে হুঁশিয়ারী দেন দেন র‌্যাবের মহাপচিালক।  
যদি কেউ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উষ্কানিমূলক গুজব ছড়ালে তাতে কান না দিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে জানাবেন। আমরা তাদের ধরে আইনের আওতায় আনব। 
এসময়ে র‌্যাব-৬ এর অধিনায়ক উইং কমান্ডার হাসান ইমাম আল রাজীব, বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায়সহ র‌্যাবে কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পরে র‌্যাবে মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ হেলিকপ্টারে করে বাগেরহাট ত্যাগ করেন।

 বিশেষ খবর থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ