শনিবার , ২৭ অক্টোবর ২০১৮

চট্টগ্রাম অফিসঃ
নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে ভোটারদের অভ্যস্ত করতে হবে। নতুন ও আধুনিক প্রযুক্তি হওয়ায় এটি সবার কাছে ভীতিকর মনে হতে পারে। তা দূর করতে হবে। নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের মাধ্যমে ভোট কারচুপি ও দখলের কোন সুযোগ নেই। স্মার্ট কার্ড, ভোটার কার্ড ও ভোটারের উপস্থিতি ছাড়া ভোট দিতে পারবে না।’
তিনি গতকাল শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে ইভিএম প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
 সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ আরো বলেন, ২০১০ সালে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে প্রথম ইভিএম ব্যবহার করা হয়েছে। ‘পরবর্তীতে কুমিল্লা, নরসিংদী, টাঙ্গাইলসহ আরও বেশ কয়েকটি জেলা শহরে ইভিএম ব্যবহার করা হয়েছে। কোন অসুবিধে হয়নি। ভোটাররা সুষ্ঠুভাবে নির্বাচনে দ্রুত সময়ের মধ্যে ভোট দিয়েছেন। 
 তিনি বলেন, অনেকে ইভিএম নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করছেন। নতুন প্রযুক্তিতে আসলেই প্রথম দিকে ভয় কাজ করে। প্রথম দিকে মোবাইল ব্যবহারে নানা সমস্যা দেখা দিলেও, বর্তমানে মোবাইল ছাড়া প্রায় সবাই অচল। কেননা, মোবাইল দ্রুত যোগাযোগের এখন অন্যতম বাহন। আমাদের মধ্যে আস্থার অভাব, পরষ্পরের মধ্যে সন্দেহ আছে। 
 আরপিও (গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ) সংশোধন হলে জাতীয় নির্বাচনে সীমিত পরিসরে শহর এলাকায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হবে।
 পরে ইসি সচিব ফিতা কেটে ইভিএম প্রদর্শনীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন এবং ইভিএম মেলার স্টল পরিদর্শন করেন।

 জাতীয় থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ