বুধবার , ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ |

রাবি প্রতিনিধি:
রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের ফলিত পদার্থ ও ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (এপিইই) বিভাগকে ইলেক্ট্রিক্যাল ও ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে একীভূতকরণের দাবিতে আমরণ অনশনে ফলিত পদার্থ বিভাগের শিক্ষার্থীরা। প্রকৌশল অনুষদের সভায় একিভূত হচ্ছে না এমন সিদ্ধান্তের কথা জানতে পেরে  সোমবার বেলা ১১ টা থেকে আমরণ অনশনের ঘোষণা দেন তারা। এরই মধ্যে অনশনে অংশ নেওয়া ৫ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে জানা গেছে। এদিকে বিভাগ একিভূত হবে কি হবে না সে বিষয়ে আগামী ৫ ডিসেম্বর বুধবার একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় সিদ্ধান্ত হবে।
অসুস্থ শিক্ষার্থীরা হলেন, তৃতীয় বর্ষের রফিকুল ইসলাম, অনিকা তাবাসসুম পুস্প, সাবিরা খাতুন, ৪র্থ বর্ষের মধুসূদন গুপ্ত, মমিনুন প্রমুখ। 
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিশ^বিদ্যালয় প্রথম বিজ্ঞান ভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছেন তারা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত সেখানে অবস্থানেরও ঘোষণা দিয়েছেন। সেখানে মেয়ে শিক্ষার্থীদেরও অবস্থান করতে দেখা যায়। রাতেও অবস্থান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। 
এসময় অনশনরত শিক্ষার্থীদের মাঝে ‘দাবি পূরণ হবে না যতোদিন, একনাগাড়ে অনশন চলবে ততোদিন’সহ বিভিন্ন প্লাকার্ড দেখা যায়। 
বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী নাইম আহমেদ বলেন, রাত দিন ২৪ ঘন্টা এখানে অবস্থান করব আমরা। তবে ৫ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তাদেরকে হাসপাতালে নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে। দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। 
এ দিকে এপিইই শিক্ষার্থীদের বিপরীত পাশে বিভাগ একীভূতকরণের বিপক্ষে ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করে সকাল থেকে অবস্থান কর্মসূচী অব্যাহত রেখেছে ইলেক্ট্রনিক ও ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থীরা। তারা তাদের দাবির পক্ষে অনড়। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত দুই বিভাগের শিক্ষার্থীরা অবস্থান  করছিলেন।
এবিষয়ে বিশ^বিদ্যালয় প্রকৌশল অনুষদের ডিন একরামুল হামিদ বলেন, আমাদের সিদ্ধান্ত বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসনকে জানিয়েছি। এখন কিছু করার নেই। বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আগামী ৫ ডিসেম্বর সিদ্ধান্ত নিবেন। 

 রাজনীতি থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ