বুধবার , ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ |

টঙ্গী থেকে, জাহাঙ্গীর আকন্দ ঃ
টঙ্গীতে গাজীপুর-২ আসনে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলহাজ¦ জাহিদ আহসান রাসেল এমপির নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে তার সহধর্মীনি খাদিজা রাসেলের মতবিনিময় সভা গতকাল মঙ্গলবার রাতে টঙ্গীর মিলগেইট তৃর্ণমূল জনসংগঠনের উদ্যোগে টঙ্গীর মন্নু টেক্সটাইল মিলস উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সংগঠনের সভাপতি মিন্নত আলী মিনুর সভাপতিত্বে এবং সাংগঠনিক সম্পাদক সাদেক হোসেন খানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গাজীপুর-২ আসনের আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলহাজ¦ জাহিদ আহসান রাসেল এমপির সহধর্মীনি খাদিজা রাসেল। 
অন্যান্যেও মধ্যে বক্তব্য রাখেন, টঙ্গী আঞ্চলিক শ্রমিক লীগের সভাপতি, নিউ অলিম্পিয়া টেক্সটাইল মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মতিউর রহমান বি কম,টঙ্গী থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক, সাধারণ সম্পাদক রজব আলী, সহ-সভাপতি আলহাজ¦ মনির আহমেদ, টঙ্গীস্থ বৃহত্তর নোয়াখালী ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, নিউ মন্নু ফাইন কটন মিলস্ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ¦ মিজানুর রহমান, চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশিদ, টঙ্গী সরকারী বিশ^বিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, গাজীপুর মহানগর মহিলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক নাজমা হোসেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মহিলা কাউন্সিলর রাখী সরকার, টঙ্গীস্থ বৃত্তর ময়মনসিংহ সমন্বয় পরিষদের চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন মাষ্টার, মহাসচিব মোস্তাফিজুর রহমান টিটু, অলিম্পিয়া টেক্সটাইল মিলের পরিচালক হাসানুজ্জামান মল্লিক, যুবলীগ নেতা কাইয়ুম মাষ্টার, ফারুক হোসেন, সোলায়মান মিয়া, শাহজাহান সিরাজ সাজু, জাকির হোসেন, রঞ্জু হোসেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন, ৫৫নং ওয়ার্ড মহিলা আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক রাশেদা বেগম, ছালেহা বেগম, হারুন-অর-রশিদ, রবিউল ইসলাম, নূরুল ইসলাম প্রমুখ। 
তৃর্ণমূল জনসংগঠনের সভাপতি মিন্নত আলী মিনু বলেন, টঙ্গীতে ১৯টি বস্তি রয়েছে। এই ১৯টি বস্তির ভোট জাহিদ আহসান রাসেলের নৌকা প্রতীকে পড়বে। আমরা সকল বস্তিবাসীর সাথে মিটিং করেছি এবং সকলে ঐক্যবদ্ধভাবে বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় জাহিদ আহসান রাসেলের নৌকা প্রতীকে ভোট দেয়ার আশা ব্যক্ত করেছি। উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখার জন্য নৌকা প্রতীকে আমরা ভোট দিব। গাজীপুর-২ রাসেল এমপি ব্যাপক উন্নয়ন করেছে স্কুল কলেজ, রাস্তাঘাট, ড্রেন, কালভার্ট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য জাহিদ আহসান রাসেলকে চতুর্থ বারের মতো নৌকা প্রতীকে ভোট দিব। রাসেলের বাবা শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার আমাদের বস্তিবাসীদের তার বংশধর হিসেবে জানতেন। এক শ্রেণীর অসাধু ব্যক্তিরা বস্তি উচ্ছেদ করতে আসার পর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার বুলডোজারের সামনে দাঁড়িয়ে বলছে এরা আমার বংশধর, এদেরকে উচ্ছেদ করতে হলে আমার রক্তের উপর দিয়ে যেতে হবে। পিতার মতো রাসেলও আমাদের বস্তিবাসীদের বংশধর হিসেবেই জানেন। তাই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ও আমাদের বস্তিবাসীদের স্বার্থে আমরা জাহিদ আহসান রাসেলকে চতুর্থ বারের মতো নৌকা প্রতীকে ভোট দিব। 

 রাজনীতি থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ