সোমবার , ১৯ আগষ্ট ২০১৯ |

অনলাইনডেক্স : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের সবনাগরিকের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা ও জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেওয়ারপ্রত্যয় নিয়ে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এ লক্ষ্যে আমাদের কাজ অব্যাহত থাকবে। মঙ্গলবারবঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা ও জাতীয় পুষ্টিসপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীবলেন, চিকিৎসাসেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে ডাক্তার ও নার্সদেরআরও যত্নবান হতে হবে। বিশেষায়িত নার্স তৈরি করতে তাদের প্রশিক্ষণ দিতে হবে। এরইমধ্যে দেশের বাইরে পাঠিয়ে তাদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আমরা চাই দেশেওএমন প্রশিক্ষণ চালুর জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হোক। তিনি আরও বলেন, সারাদেশের হাসপাতালগুলোরশয্যাসংখ্যা বৃদ্ধিসহ চিকিৎসক, নার্স ও অন্যান্যসাপোর্টিং স্টাফ নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। মেডিকেল শিক্ষার প্রসারে নতুন নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে। শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের দেশে হোমিওপ্যাথিক,ভেষজ ও আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা ব্যবস্থা রয়েছে, এগুলোও গুরুত্বপূর্ণ। তাই এই ধরনের ব্যবস্থার দিকেও বিশেষ দৃষ্টি রাখতেহবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের মানুষের গড়আয়ুছিল ৬৬ বছর। আর এখন তা ৭২ বছরে উন্নীত হয়েছে। আমরা মা ও শিশু মৃত্যুহার কমিয়েছি।  শেখ হাসিনা আরও বলেন,সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতেগ্রামাঞ্চলে ওয়ার্ড পর্যায়ে কমিউনিটি ক্লিনিক চালু করা হয়েছে। সেখানে মানুষপ্রাথমিক চিকিৎসা পাচ্ছে। তবে উপজেলা হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক কম রয়েছে। আমরাসেগুলো বাড়ানোর চেষ্টা করছি। এছাড়া ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনের রূপকল্প বাস্তবায়নেমোবাইল ফোন ও টেলিমেডিসিন পদ্ধতির মাধ্যমেও স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া হচ্ছে।

 



 জাতীয় থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ