সোমবার , ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ |

ঘূর্ণিঝড় ‘বায়ু’র রাতারাতি গতিপথ পরিবর্তন

  বৃহস্পতিবার , ১৩ জুন e ২০১৯

দেশকাল অনলা্ইন : আরব সাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘বায়ু’ ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য গুজরাটে আঘাত হানার কথা ছিল। কিন্তু রাতারাতি গতিপথ পরিবর্তন হয়ে ‘বায়ু’ আবার সমুদ্রে ফিরে গেছে। তবে গতিপথ পরিবর্তন হলেও আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টার জন্য রাজ্যের পশ্চিম উপকূলে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি রয়েছে। কারণ, সমুদ্র এখনো উত্তাল-বিক্ষুব্ধ। পাশাপাশি উপকূলীয় এলাকাগুলোতে বয়ে যাচ্ছে ঝোড়ো হাওয়া।

এর আগে বুধবার (১২ জুন) আবহাওয়া অধিদফতরের বরাতে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো জানায়, ঘূর্ণিঝড় ‘বায়ু’ উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে গুজরাট উপকূলের কাছাকাছি অবস্থান করছে। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সকালে ঘণ্টায় ১৫৫ থেকে ১৭৫ কিলোমিটার বেগে ঘূর্ণিঝড়টি রাজ্যের পোরবন্দর ও মাহুভার মাঝামাঝি স্থানে আঘাত হানতে পারে।

শক্তিশালী এই ঘূর্ণিঝড়-তাণ্ডবের আশঙ্কায়  বুধবার (১২ জুন) গুজরাটের বিভিন্ন এলাকায় সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়। দুইদিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়, উপকূলীয় এলাকার স্কুল, কলেজ ও অফিস-আদালত। এছাড়াও উপকূলের প্রায় তিন লাখ মানুষকে প্রায় ৭০০ ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্রে সরিয়ে নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়।

‘বায়ু’র গতিপথ পুনরায় পরিবর্তন হলে সরকারিভাবে উদ্ধার ও ত্রাণ অভিযানের জন্য জাতীয় দুর্যোগ নিয়ন্ত্রণ বাহিনীর (এনডিআরএফ) ৫২টি দলকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রয়োজনে নৌ, সেনা, কোস্টগার্ড, বিএসএফ সদস্যদের বিমান বাহিনীর সাহায্য নেওয়া হবে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইট করে জানিয়েছেন, ‘বায়ু’র অবস্থা সম্পর্কে তিনি ক্রমাগত খোঁজখবর রাখছেন। এছাড়াও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ঝড়ের সার্বিক খোঁজ খবর রাখছেন। অন্যদিকে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীও টুইটে কর্মীদের প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।

 জাতীয় থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ