সোমবার , ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭

যোগ্যতার ভিত্তিতে উপাচার্য নিয়োগ করা উচিত

  সোমবার , ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭

একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য না থাকলে সে ক্ষেত্রে উপ-উপাচার্য থাকাটা আবশ্যক। এগুলো না থাকাটা নিয়মবহির্ভূত। অনেক বেসরকারি বিশ্বদ্যিালয়ের উপাচার্য, উপ-উপাচার্য, কোষাধক্ষ্য এসব পদে নিজেদের আত্মীয়-স্বজন, পছন্দ মাফিক লোকদের নিয়োগ দিয়ে থাকে। এসব পদে অবশ্যই যোগ্যতার ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া উচিত। স্বজনপ্রীতি ও অযোগ্য লোকেদের নিষিদ্ধ করা উচিত। একাডেমিক নিয়মের মাধ্যমেই পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য যেমন কোয়ালিটি, কোয়ালিফিকেশন থাকে সেই সব দিক বিবেচনা করে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, উপ-উপাচার্য নিয়োগ দেওয়া উচিত। আত্মীয়-স্বজনদের মধ্য থেকে নিজেরাই চ্যান্সেলর হয় ভাইস চ্যান্সেলর হয়, এগুলো টোটালি বন্ধ করা উচিত। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের কারিকুলামগুলো কেবলমাত্র এমবিএ, বিবিএ বিষয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে এর পাশাপাশি লিটারেচার, সায়েন্স, আইআইটি এসব বিষয়ও সিলেবাসে রাখতে হবে।
পরিচিতি: শিক্ষাবিদ

 সাক্ষাৎকার থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ