বৃহস্পতিবার , ১৮ July ২০১৯ |


আফগানিস্তানের গজনিতে নিরাপত্তা বাহিনীর কম্পাউন্ডে তালেবান হামলায় অন্তত আট নিরাপত্তা সদস্য ও ছয় বেসামরিক নিহত হয়েছেন। রোববারের এ হামলায় আরও ১৪০ জনেরও বেশি আহত হয়েছেন বলে আফগানিস্তানের কর্মকর্তাদের বরাতে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। এ দিন সকালের ব্যস্ত সময়ে গজনি শহরে আফগানিস্তানের প্রধান গোয়েন্দা ইউনিট ন্যাশনাল ডিরেক্টরেট অব সিকিউরিটির (এনডিএস) দপ্তরের কাছে গাড়ি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় তালেবান জঙ্গিরা।

এক বিবৃতিতে হামলার দায় স্বীকার করে তালেবান মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ বলেছেন, “বিস্ফোরণে বহু এনডিএস কর্মকর্তা নিহত অথবা আহত হয়েছেন।”  গজনির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আট এনডিএস কর্মকর্তাসহ ১৩ জন পূর্ণবয়স্ক ও একটি শিশু নিহত হয়েছে; অন্তত ২৭টি শিশুসহ ১৪০ জন আহত হয়েছেন।

জাহের শাহ নেকমাল নামের গজনি প্রদেশের এক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বলেছেন, “শক্তিশালী ওই বিস্ফোরণে যারা আহত হয়েছেন তাদের বিষয়ে এটিই শেষ প্রতিবেদন নয়, হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।” প্রায় প্রতিদিন আফগানিস্তানের বিভিন্ন এলাকায় হামলা চালাচ্ছে তালেবান বিদ্রোহীরা। সর্বশেষ এ হামলাটি গজনির জনাকীর্ণ এলাকায় চালানো হলো। জঙ্গি এ গোষ্ঠীটি এখন আফগানিস্তানের প্রায় অর্ধেক এলাকা নিয়ন্ত্রণ করছে।

১৮ বছর ধরে চলা আফগানিস্তানের লড়াই শেষ করতে একটি শান্তি চুক্তিতে পৌঁছানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ক্রমবর্ধমান উদ্যোগ সত্বেও তালেবান আফগানিস্তানের সরকারি বাহিনীগুলোর ওপর হামলার তীব্রতা বাড়িয়ে চলছে। এক সপ্তাহ আগে রাজধানী কাবুলে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কম্পাউন্ডের সামনে গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ ঘটানোর পর দীর্ঘ সময় ধরে বন্দুকযুদ্ধ চালিয়ে গেছে তালেবান যোদ্ধারা। ওই হামলায় ছয় জন নিহত ও একটি স্কুলের ৬০ জন শিশু শিক্ষার্থীসহ শতাধিক লোক আহত হয়েছিল।  

 সারাবিশ্ব থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ