মঙ্গলবার , ১৫ অক্টোবর ২০১৯ |

রিজার্ভ ডেতে গড়াল ভারত-নিউ জিল্যান্ড লড়াই

অনলাইন স্পোর্টস ডেস্ক   বুধবার , ১০ July ২০১৯

কেন উইলিয়ামসনের লড়াই শেষ হয়ে গেছে বেশ আগেই। তখন লড়াই করছিলেন রস টেইলর। ভারতের দুর্দান্ত বোলিং সামলে চেষ্টা করছিলেন দলের রান যতটা সম্ভব বাড়াতে। কিন্তু এ দিন আর দেখা হলো না পরিণতি। বৃষ্টিতে থমকে যাওয়া ম্যাচ গড়াল রিজার্ভ ডেতে। ম্যানচেস্টারে মঙ্গলবার বিশ্বকাপের প্রথম সেমি-ফাইনালে নিউ জিল্যান্ড ৪৬.১ ওভারে ৫ উইকেটে ২১১ রান তোলার পর নামে বৃষ্টি। এরপর আর খেলা শুরু হতে পারেনি। নিয়ম অনুযায়ী বুধবার রিজার্ভ ডেতে খেলা শুরু হবে এখান থেকেই।

বৃষ্টির শঙ্কা নিয়েই শুরু হয়েছিল দিন। টসের সময়ও আকাশ ছিল মেঘলা। উইকেট নতুন। পরের দিকে বৃষ্টির শঙ্কা নিয়েও টস জিতে ব্যাটিংয়ের চ্যালেঞ্জে নামে নিউ জিল্যান্ড। তবে সেই চ্যালেঞ্জ জয় করার মতো ব্যাটিং তারা করতে পারেনি। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে এবারের বিশ্বকাপের ম্যাচগুলি ছিল বেশ রান প্রসবা। সেমি-ফাইনালের উইকেট যদিও মনে হয়ে একটু মন্থর। এরপরও ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন আপকে চ্যালেঞ্জ জানাতে এই শেষ কয়েক ওভারে ঝড় তুলতে হবে কিউইদের, এরপর বোলিংও হতে হবে দুর্দান্ত।

বিশ্বকাপে এবার এই মাঠে আগের সব ম্যাচই জিতেছে আগে ব্যাট করা দল। তবে দিনের প্রেক্ষাপটে নিউ জিল্যান্ডের সিদ্ধান্ত জাগাল প্রশ্ন। বিশেষ করে,শুরুর সহায়ক কন্ডিশনে ভারতের টপ অর্ডারে ছোবল মারার সুযোগ যেখানে ছিল। আগে ব্যাট করে বড় স্কোর করে ভারতকে চাপে ফেলার কাজটিও করতে পারেনি তারা। বরং শুরুতে ভুগেছে তারা জাসপ্রিত বুমরাহ ও ভুবনেশ্বর কুমারের আগুনে বোলিংয়ে।

নিউ জিল্যান্ডের ভোগান্তির শুরু ম্যাচের প্রথম বল থেকেই। ভুবনেশ্বরের বলে জোরালো আবেদনে বেঁচে যান মার্টিন গাপটিল। ভারত হারায় রিভিউ। তবে ভারতীয় বোলাররা হারায়নি ছন্দ। বুমরাহ ও ভুবনেশ্বরের দুর্দান্ত প্রথম স্পেলে হাঁসফাঁস করতে থাকে কিউই ব্যাটসম্যানেরা।


 খেলাধুলা থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ