বৃহস্পতিবার , ২২ আগষ্ট ২০১৯ |

স্কুলের টয়লেট কেমন, তাও দেখবে ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর

অনলাইন ডেস্ক   শুক্রবার , ১২ July ২০১৯

পণ্য বিপণনে বিভিন্ন অনিয়মের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর পাশাপাশি এবার ঢাকা শহরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থার দিকে নজর দিচ্ছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

এর অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার মোহাম্মদপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ছয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে বাজে স্যানিটেশন ব্যবস্থার কারণে সতর্ক করেছেন অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের আগামী রোববার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে ডাকা হয়েছে বলে অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আফরোজা রহমান জানান।

অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার এবং সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মণ্ডলও উপস্থিত ছিলেন প্রথম দিনের অভিযানে। আফরোজা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ঢাকা মহানগরীর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে পর্যাপ্ত পরিচ্ছন্ন টয়লেট ও হাত ধোয়ার ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে ভোক্তা অধিকার আইনের আওতায় এই অভিযান চালানো হচ্ছে।

প্রথম দিন মোহাম্মদপুর এলাকার সেন্ট জোসেফ স্কুল, মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি হাই স্কুল, সামার ফিল্ড স্কুল, ওয়াইডব্লিউসিএ স্কুল, পিপলস ইউনিভার্সিটি ও মোহাম্মদপুর সরকারি কলেজে তাদের তদারকি কার্যক্রম চলে। আফরোজা জানান, সেন্ট জোসেফ স্কুলের বেসিনে বমি ও ইউরিনালে কাপড় পড়ে থাকতে দেখা যায়। মোহাম্মদপুর সরকারি কলেজের টয়লেট ছিল খুবই অপরিচ্ছন্ন। অন্য প্রতিষ্ঠানগুলোতেও পরিচ্ছন্নতায় অবহেলার প্রমাণ পাওয়া যায়।

বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, “রোববার স্যানিটেশন বিষয়ে আলোচনা করতে এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের অধিদপ্তরের কার্যালয়ে ডাকা হয়েছে।” সহকারী পরিচালক আফরোজা রহমান বলেন, যে ১০টি সেবা নিশ্চিত করতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কাজ করছে, তার মেধ্যে পয়ঃনিষ্কাশন অন্যতম। আগামীতে ঢাকার অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও যাবেন তারা। ‍গত বছর কোরবানির পশুর হাটে স্বল্প মাত্রায় তদারকি করা হলেও এবার ভোক্তাদের বিভিন্ন স্বার্থ নিয়ে সারাদেশের পশুর হাটগুলোতে জোর তদারকি করা হবে বলে কয়েকদিন আগে জানিয়েছিলেন এ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা।  

 জাতীয় থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ