বৃহস্পতিবার , ২১ নভেম্বর ২০১৯ |

পা হারানো রাসেল পেলেন আরও ৫ লাখ

অনলাইন ডেস্ক   সোমবার , ২৯ July ২০১৯

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বাসচাপায় পা হারানো প্রাইভেটকার চালক রাসেল সরকারকে ক্ষতিপূরণের আরও পাঁচ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করেছে গ্রিন লাইন কর্তৃপক্ষ। সোমবার বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ টাকা হস্তান্তর করা হয়। চেক রাসেলের হাতে তুলে দেন বাস কোম্পানি গ্রিন লাইনের আইনজীবী পলাশ চন্দ্র রায়।

এ সময় আদালত নির্দেশ দেয়, বাকি ৪০ লাখ টাকা প্রতি মাসে পাঁচ লাখ করে কিস্তিতে পরিশোধ করতে হবে। এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য আদালত ১৭ অক্টোবর দিন ধার্য করেছে।

গ্রিন লাইন কর্তৃপক্ষ এর আগে ১০ এপ্রিল রাসেলকে প্রথম দফায় ৫ লাখ টাকা দেয়। পরে হাইকোর্ট ২৫ জুন এক আদেশে বাকি ৪৫ লাখ টাকা প্রতি মাসে পাঁচ লাখ করে কিস্তিতে মোট ৯ মাসে পরিশোধ করতে গ্রিন লাইনকে নির্দেশ দেয়। প্রতি মাসের ৭ তারিখের মধ্যে ওই অর্থ রাসেলকে দিয়ে ১৫ তারিখের মধ্যে আদালতে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়। কিন্তু এরপর বেশ কয়ক দফায় সময় নেয় গ্রিন লাইন।

গত বছরের ২৮ এপ্রিল রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের ধোলাইপাড় এলাকায় গ্রিন লাইন পরিবহনের একটি বাস রাসেলের গাড়িকে ধাক্কা দেয়। এ নিয়ে বাসের চালক ও রাসেলের মধ্যে কথা-কাটাকাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে চালক কবির হোসেন বাস চালানো শুরু করলে রাসেল সরতে গিয়ে ফ্লাইওভারের রেলিংয়ে আটকা পড়েন। তার পায়ের ওপর দিয়েই বাস চলে যায়। পরে পথচারীরা রাসেলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে পুলিশ জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে গাড়িসহ চালক কবিরকে আটক করে। অন্যদিকে, রাসেলকে বাঁচাতে একটি পা কেটে ফেলতে বাধ্য হন চিকিৎসকরা। এ ঘটনায় রাসেলের জন্য ক্ষতিপূরণ চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেন সংরক্ষিত আসনের তৎকালীন সংসদ সদস্য আইনজীবী উম্মে কুলসুম স্মৃতি। রিটের চূড়ান্ত শুনানি করে গত ১২ মার্চ হাইকোর্ট রাসেলকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ দেয়। এ আদেশের বিরুদ্ধে পরিবহন কর্তৃপক্ষ আপিল বিভাগে গেলেও তাদের আবেদন খারিজ হয়ে যায়।

 আইন-আদালত থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ