রবিবার , ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯ |

কাশ্মীরে হচ্ছেটা কী! উদ্বিগ্ন ভারতের তারকারা

দেশকাল বিনোদন ডেস্ক:   সোমবার , ০৫ আগষ্ট ২০১৯

কাশ্মীরের চলমান পরিস্থিতিতে চিন্তিত ভারতের তারকারা। ছবি : সংগৃহীত

ভারতের জম্মু-কাশ্মীরে জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় উত্তেজনা বেড়েই চলছে। এরই মধ্যে জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক দুই মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাহকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে রাজ্যের শীর্ষ নেতা সাজাদ লোনসহ একাধিক নেতাকে। গতকাল রোববার রাত থেকে তাঁদের গৃহবন্দি করে রাখা হয়।

সাম্প্রতিক প্রতিবেদন বলছে, গতকাল গভীর রাত থেকে শ্রীনগরে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি থাকবে বলে জানানো হয়। জনসমাগম, সমাবেশ, এমনকি মোবাইল সেবাও বন্ধ করা হয়েছে। জম্মু, ঋষি, দোড়া, কাটুয়া ও উধমপুরে জেলার সব স্কুল ও কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

গত সপ্তাহ থেকেই রাজ্যে অতিরিক্ত আধা-সামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে। শুক্রবারই অমরনাথ তীর্থযাত্রী ও পর্যটকদের রাজ্য ছেড়ে চলে যেতে বলা হয়েছে। এর জেরে কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে নতুন করে সংকট তৈরি হলো।
যা হোক, কাশ্মীরের এই অশান্তিতে উদ্বিগ্ন ভারতের বিভিন্ন অঙ্গনের তারকারা। বলিউড তারকা দিয়া মির্জা, জাইরা ওয়াসিম, গওহর খান, অনুপম খের, শ্রুতি শেঠ, সাবেক ক্রিকেট তারকা ইরফান পাঠানসহ অনেকেই এই ইস্যুতে নিজের মত প্রকাশ করেছেন।

বলিউড অভিনেত্রী গওহর খান টুইটারে লিখেছেন, ‘কী হচ্ছে এসব? কাশ্মীরে আল্লাহ যেন প্রত্যেককে নিরাপদে রাখেন!’

বর্ষীয়ান অভিনেতা অনুপম খের লিখেছেন, ‘কাশ্মীর সমস্যার সমাধান শুরু।’

ভারতের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর দাবি, গত ফেব্রুয়ারিতে পুলওয়ামায় হওয়া জঙ্গি হামলার মতোই বড় ধরনের কোনো হামলা চালানোর ছক কষছে জঙ্গিরা। তারা তাদের একটি প্রচেষ্টা সফলও করে ফেলেছে। চার থেকে পাঁচ জঙ্গির একটি দল ভারতে প্রবেশ করেছে। গোয়েন্দা বাহিনী বলছে, এ পরিস্থিতিতে অমরনাথযাত্রা বন্ধ না করলে অনেক ঝুঁকি হয়ে যেত।

গত ফেব্রুয়ারিতে পুলওয়ামায় আধা-সামরিক বাহিনীর একটি কনভয়ে আত্মঘাতী হামলা চালায় জঙ্গিরা। ওই হামলায় ৪০ জন জওয়ান নিহত হয়েছিলেন। এমন পরিস্থিতিতে এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন পর্যটক ও তীর্থযাত্রীরা, যাঁদের মধ্যে রয়েছেন অনেক বিদেশি নাগরিক। সবাই কাশ্মীর ছাড়ার চেষ্টা করছেন।

ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোর খবর, কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা তুলে নিয়েছে কেন্দ্র সরকার। এর মধ্য দিয়ে জম্মু ও কাশ্মীর দুটি আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হলো। কাশ্মীর ইস্যুতে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিয়ে ইতিহাস তৈরির পথ প্রশস্ত করল নরেন্দ্র মোদির সরকার। শুধু ৩৭০ ধারা নয়, ৩৫-ক ধারাও বাতিল করেছে কেন্দ্র সরকার। এর বিরোধিতায় রাজ্যসভায় চলছে তুমুল হট্টগোল। সূত্র : ইন্ডিয়া টিভি

 বিনোদন থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ