সোমবার , ২৬ আগষ্ট ২০১৯ |

সাঁথিয়ায় বয়ষ্ক, বিধবা ও প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক   বৃহস্পতিবার , ০৮ আগষ্ট ২০১৯

পাবনা সংবাদদাতা:

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার আতাইকুলা ইউনিয়নে বয়স্ক, বিধবা, নির্যাতিতা নারী ও প্রতিবন্ধীদের মধ্যে ভাতার কার্ড বিতরণ করা হয়। বুধবার এ উপলক্ষে  আর- আতাইকুলা ইউনিয়ন পরিষদ ভবণ প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আর- আতাইকুলা ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মিরাজুল ইসলাম বিশ্বাস। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী, বর্তমানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু এমপি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন সাঁথিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল মাহমুদ দেলোয়ার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল হালিম, সাঁথিয়া উপজেলা পরিষদ এর মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা সেলিমা রহমান শিলা,  আওয়ামী লীগ নেতা সাঁথিয়া হাসান আলি খান, রবিউল করিম হিরু প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু এমপি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার জনবানন্ধব সরকার।

তিনি বলেন এ সরকার জনগণের উন্নয়নের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। অসহায় প্রান্তিক মানুষের জন্য সম্ভব সব কিছু করছে সরকার।সামাজিক নিরাপত্তা খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধি করার সুফল পাওয়া যাচ্ছে। কোন মানুষকে আজ না খেয়ে থাকতে হয়ন্ াবৃদ্ধ বা বিধবা বা পঙ্গু হলে অন্যের করুণার পাত্র হতে হচ্ছে না। সরকার তাদের ভাতার পরিমান ধীরে ধীরে বাড়িয়ে দিচ্ছেন। তিনি বর্তমানে ডেঙ্গু আতঙ্ক নিয়ে গুজব ছড়ানো বন্ধ করার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান। একই সাথে জানান, কেউ আক্রান্ত হেয় গেলেও  আতঙ্কিত না হয়ে চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, গ্রাম হবে শহর। এটা শেখ হাসিনার স্বপ্ন। এ স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে তিনি পরিবেশ সুন্দর রাখার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান। আর পরিবেশ সুন্দর ও নিরাপদ রাখতে হলে অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে ফেলার বিকল্প নেই বলে জানান।

  তিনি বলেন যারা অন্যায় ভাবে বছরের পর সরকারি জমি, জায়গা জবর দখল করেছেন সেসব অবৈধ দখলদাররা সরকারি জায়গা ছেড়ে দিন।  না হলে সরকার কঠোর হতে বাধ্য হবে। তিনি বলেন এরই মধ্যে পাবনা জেলার বিভিন্ন স্থানের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে এবং এ অভিযান চলমান রয়েছে। তিনি সাধারন জনগণকে বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ বুঝে নেয়ার আহবান। তিনি বলেন, এতে অনেক দুনীর্তি রোধ করা  সম্ভব। শেষে তিনি ১১০ জন বয়স্ক,  ৩৭ জন প্রতিবন্ধী আর  ৩০ জন বিধবার মধ্যে ভাতার কার্ড বিতরণ করেন।   

 সারা বাংলা থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ