রবিবার , ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ |

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর বাড়িতে আজও ঢুকতে পারেনি মশা নিধন টিম

অনলাইন ডেস্ক   বুধবার , ২৮ আগষ্ট ২০১৯

এডিস মশার লার্ভা নিধনে চলমান অভিযানে আবারও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর বাড়িতে ঢুকতে ব্যর্থ হয়েছে অভিযানিক দল। এ বিষয়ে একাধিকবার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করতে পারেননি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। বিষয়টিকে দুঃখজনক বলে অভিহিত করেছেন তিনি।

বুধবার (২৮ আগস্ট) দুপুরে রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনালে পরিচ্ছন্নতা অভিযানে এসে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র আতিকুল এ তথ্য জানান।

মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) রাজধানীর বারিধারা এলাকায় লার্ভা নিধন অভিযানে গিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের বাড়িতে প্রবেশ করতে চাইলে বাধার মুখে পড়েন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে আতিকুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। টিমের সঙ্গে এমনটা কেন হলো, তা জানতে আমি স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে গতকালও (মঙ্গলবার) কল করেছি, আজও (বুধবার) কল করেছি। কিন্তু তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারিনি। হয়তো কোনো মিটিংয়ে ব্যস্ত আছেন বলে সাড়া দেননি।

মেয়র আরও বলেন, তবে আমাদের টিম আজ বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর বাড়িতে গিয়েছে। সেখানে গিয়ে পরিবেশ সুন্দর পেয়েছে। এজন্য আমি নিজেই উনাকে ফোন করে ধন্যবাদ জানিয়েছি। কারণ কাজটা তো আমরা সবাই মিলেই করতে চাই। এটাই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ।

এসময় গাবতলী টার্মিনালের পেছনের অংশ অপরিচ্ছন্ন দেখতে পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন মেয়র আতিকুল। তিনি বলেন, সামনের অংশ যেমন পরিষ্কার, পেছনের অংশ তেমনি অপরিষ্কার। আমরা জানতে পারলাম, এখানে অনেক অবৈধ দোকান আছে, খাবারের দোকান আছে। এসব দোকানের ময়লা-আবর্জনাগুলোই এখানে ফেলা হয়। আমরা উচ্ছেদ করে দিচ্ছি।।আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তাকে এরই মধ্যে নির্দেশনা দিয়েছি। স্থানীয় সংসদ সদস্য দায়িত্ব নিয়েছেন। তিনি আমাকে আশ্বাস দিয়েছেন, তারা এই জায়গাটা পরিষ্কার রাখবেন।

পরে সাংবাদিকেদর এক প্রশ্নের জবাবে স্থানীয় সংসদ সদস্য আসলামুল হক বলেন, এখানে যেসব দোকান আছে সেগুলো রাজনৈতিক মদতপুষ্ট না। কেউ প্রমাণ দিতে পারলে আমরা প্রয়োজনের আমাদের দলের নেতাদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেব। আমরা মেয়র মহোদয়কে বলেছি একেবারেই উচ্ছেদ করে দিতে। এরপর আমরা দায়িত্ব নেব যেন কেউ বসতে না পারে।

 রাজধানী থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ