সোমবার , ২১ অক্টোবর ২০১৯ |

পুশ না করে ইনজেকশন খাওয়ালেন নার্স, নবজাতকের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক   মঙ্গলবার , ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সুস্থ ভাবে জন্ম জন্ম নেয়া এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে নার্সের দায়িত্বজ্ঞানহীন কাণ্ডে। শরীরে দেয়ার একটি ইনজেকশন সদ্যোজাত শিশুটিকে খাইয়ে দেন তিনি। সকাল সাতটায় ভূমিষ্ট শিশুটি পৃথিবীর আলো দেখতে না দেখতেই ঢলে পড়ে মৃত্যুর কোলে।

সদ্য ভূমিষ্ট সন্তানের এমন মৃত্যুতে ওই প্রসূতি দিশাহারা হয়ে পড়েছেন। এদিকে ভুক্তভোগী পরিবারের সঙ্গে ঢামেক হাসপাতালের লোকজন দুর্ব্যবহার করেছেন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১১২ নং ওয়ার্ডে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। তবে যে নার্স এমন কাণ্ড করেছেন তিনি ঘটনার পরপরই ডিউটি বদল করে চলে যান। ফলে তাৎক্ষণিকভাবে তার নামও জানা যায়নি।

নবজাতকটির বাবার বাড়ি কুমিল্লার হোমনা উপজেলায়। তবে তিনি পরিবার নিয়ে ঢাকার লালবাগে বসবাস করেন। আরিফের বোন সোনিয়া আফরিন এ প্রতিবেদককে জানান, ‘আমার ভাইয়ের স্ত্রী আজ সকালে সিজারের মাধ্যমে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। জন্মের পর বাচ্চাটি সুস্থই ছিল।’

‘পরে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী নার্স নবজাতকের শরীরে ‘কে-ওয়ান এম এম’ নামের একটি ইনজেকশন পুশ করার বদলে তাকে খাইয়ে দেন। ফলে তাৎক্ষণিকভাবে আমার ভাইপোর মৃত্যু হয়।’ এদিকে শিশুটি সুস্থ জন্ম নিলেও সিজারের অস্ত্রোপচারের সময় নবজাতকের  হাতের কিছু অংশও কেটে যায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নবজাতকটির মৃত্যুর ঘটনায় স্বজনরা প্রতিবাদ জানালে ঢামেক হাসপাতালের প্রসূতি ওয়ার্ডের চিকিৎসক ও নার্সরা তাদের সঙ্গে চরম দুর্ব্যবহার করেছেন।

-  ঢাকাটাইমস

 রাজধানী থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ