বুধবার , ১৩ নভেম্বর ২০১৯ |

চট্টগ্রামে ডিভাইন আইটির ভ্যাট ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার বিষয়ক সেমিনার

চট্টগ্রাম ব্যুরো   শুক্রবার , ০১ নভেম্বর ২০১৯

ডিভাইন আইটি লিমিটেড এনবিআর তালিকাভুক্ত একটি সফটওয়্যার কোম্পানি। গত ২৩ অক্টোবর চট্টগ্রামের স্থানীয় একটি হোটেলে বাংলাদেশ রাজস্ব বোর্ডের অন্তর্ভুক্ত স্থানীয় প্রতিষ্ঠানসমূহের জন্য ভ্যাট ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যারের ওপর একটি সেমিনারের আয়োজন করে।

বাংলাদেশ রাজস্ব বোর্ড কর্তৃক নিবন্ধিত কোম্পানিসমূহ হতে ভ্যাট ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যারের মাধ্যমে মুসক ৯.১ প্রদানের যে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে, সেই সম্পর্কে সচেতনতা বাড়ানোই ছিল সেমিনারের মূল লক্ষ্য।

ডিভাইন আইটি লিমিটেড, চট্টগ্রামের অপারেশন ম্যানেজার দেবাশিস মজুমদারের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠান এ মূল বক্তব্য প্রদান করেন ডিভাইন আইটি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইকবাল আহমেদ ফকরুল হাসান রাসেল।

রাসেল জানান, যে কোনো ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান তাদের লেনদেন ও টার্নওভারের তথ্য এতদিন ইচ্ছামতো সংরক্ষণ করলেও এখন তা নিয়ন্ত্রণে আনছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

বছরে ৫ কোটি টাকা বা তার বেশি টার্নওভার হলে প্রতিষ্ঠানের বিক্রয় বা লেনদেন তথ্য এনবিআর অনুমোদিত সফটওয়্যার বা কম্পিউটার সিস্টেমে সংরক্ষণ করতে হবে। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ন্যায্য ভ্যাট আদায় সফটওয়্যারভিত্তিক ডিজিটাল পদ্ধতিতে বাধ্যতামূলক করে দিয়েছে এনবিআর।

মূলত অধিকাংশ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভোক্তাদের কাছ থেকে ভ্যাট আদায় করলেও তা এনবিআরকে ঠিকমতো পরিশোধ করে না বলে অভিযোগ রয়েছে। এ ছাড়া অধিকাংশ প্রতিষ্ঠান বুক রেজিস্টার বা ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে হিসাব সংরক্ষণ করায় তা নিরীক্ষা করে সঠিক তথ্য পাওয়া যায় না।

কিছু প্রতিষ্ঠান ইলেক্ট্রনিক ক্যাশ রেজিস্টার (ইসিআর) কিংবা নিজস্ব সফটওয়্যার ব্যবহার করলেও তার যথার্থতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। এসব কারণেই নির্দিষ্ট সফটওয়্যার ব্যবহার বাধ্যতামূলক করছে এনবিআর। ডিভাইন আইটি লিমিটেড কর্তৃক প্রস্তুতকৃত সফটওয়্যার ও প্রিজম ভ্যাট এনবিআর অনুমোদিত সফটওয়্যার।

আর এই প্রিজম ভ্যাট নিয়ে অনুষ্ঠানে প্রেজেন্টেশন প্রদান করেন উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক আশরাফ উদ্দিন মুকুট। সবশেষে প্রিজম ভ্যাটের লাইভ উপস্থাপনা প্রদান করেন প্রোডাক্ট পরিচালক ইশতিয়াক আবীর। পরবর্তীতে উপস্থিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান হতে আগত অংশগ্রহণকারীগণ প্রিজম ভ্যাট সফটওয়্যার এবং এর প্রয়োগ সম্পর্কে বিভিন্ন প্রশ্ন করেন।

সেমিনারে চট্টগ্রামের শীর্ষস্থানীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের আইটি এবং হিসাব ও ভ্যাট বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ডিভাইন আইটি ১২টির মতো প্রোডাক্ট দিয়ে দেশ বিদেশে ক্লাউডকে সার্ভিস দিচ্ছে। ইআরপি, সাপ্লাই চেইন, এইচআর অ্যান্ড পেরোল সিস্টেম, সিআরএম, ভ্যাট, ম্যাসেঞ্জার কমিউনিকেশন, ইনক্রিপডেট কল সিস্টেম, মার্চেন্ডাইজ ম্যানেজমেন্টসহ আরও কিছু ব্যাংকিং সফটওয়্যারও আছে।

যেমন ইন্টিগ্রেটেড সুপারভিশন সিস্টেম, চেক প্রিন্টার টুল, চেক বুক রিকিউজিশনসহ গ্যাস বিলিং সফটওয়্যার রয়েছে। এগুলো ব্যবহারে রয়েছে কাস্টমারের সন্তুষ্টি।

এখানে উল্লেখ্য ডিভাইন আইটি লিমিটেড আইটি খাতে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি এবং গুণগতমানের পণ্য তৈরির জন্য শিল্প মন্ত্রণালয় কর্তৃক ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি অ্যান্ড কোয়ালিটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৫ ও ২০১৮ সালে মাঝারি শিল্প ক্যাটাগরিতে প্রথম পুরস্কার অর্জন করেছে।

 অর্থ-বাণিজ্য থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ