বৃহস্পতিবার , ২১ নভেম্বর ২০১৯ |

চার ইয়াবা কারবারির ১৫ বছরের সাজা

অনলাইন ডেস্ক   বুধবার , ০৬ নভেম্বর ২০১৯

ঢাকার যাত্রাবাড়ীতে তিন বছর আগে ছয় লাখ ইয়াবার চালানসহ গ্রেপ্তার চারজনকে ১৫ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মো. রবিউল আলম বুধবার আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা বলছেন, ঢাকার আদালতে এত বড় মাদকের চালান নিয়ে এটাই প্রথম রায়। দণ্ডিত আসামিরা হলেন- নারায়নগঞ্জের রুপগঞ্জের পূর্বগ্রামের মো. মুক্তার হোসেন, চট্টগ্রামের আনোয়ারার মো. মিজানুর রহমান বাবু, বাগেরহাটের মোল্লারহাটের মো. সোহেল আহমেদ এবং ঢাকার ডেমরা বাজারের মো. জনি।

তাদের প্রত্যেককে ১৫ বছরের সশ্রম কারদণ্ডের পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৬ সালের ১৭ অক্টোবর যাত্রাবাড়ীর কাজলা এস শাহ সিএনজি ফিলিং স্টেশনের সামনে থেকে একটি কভার্ড ভ্যান আটক করে পুলিশ।

ওই ভ্যান তল্লাশি করে চালকের আসনের পেছনে টুলবক্সে প্লাস্টিকের বস্তায় ৬ লাখ ইয়াবা পাওয়া যায়, যার বাজার মূল্য ১৮ কোটি টাকা। পরে পুলিশ জানায়, কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে ইয়াবার ওই চালান নিয়ে ঢাকা আসছিল কভার্ড ভ্যানটি। মাদক চোরাচালানের অভিযোগে চারজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশের তখনকার পরিদর্শক বিপ্লব কিশোর শীল গ্রেপ্তার চারজনের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন যাত্রাবাড়ী থানায় । তদন্ত শেষে একমাস পর অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই নৃপেণ কুমার ভৌমিক।

রাষ্ট্রপক্ষে ১০ জনের সাক্ষ্য শুনে বিচারক বুধবার চার আসামির সবাইকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় দেন বলে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি মোহাম্মদ সালাউদ্দিন হাওলাদার জানান।

 আইন-আদালত থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ