বৃহস্পতিবার , ২১ নভেম্বর ২০১৯ |

জাঁকালো বিপিএল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

দেশকাল স্পোর্টস ডেস্ক:   বুধবার , ০৬ নভেম্বর ২০১৯

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকীর কাউন্টডাউন শুরু হবে ৮ ডিসেম্বর। জমকালো আয়োজনে সেদিনই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে পর্দা উঠবে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’র। এবারের বিপিএল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান এতটাই জমকালো হবে যা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড এযাবতকালে করে দেখাতে পারেনি। বোঝাই যাচ্ছে ইতিহাসের সেরা উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখতে যাচ্ছে বিপিএল সপ্তম আসর।

এদিকে টুর্নামেন্ট মাঠে গড়াবে ১১ ডিসেম্বর থেকে। আর প্লেয়ার্স ড্রাফট অনুষ্ঠিত হবে চলতি মাসের ১৭ তারিখে। অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা বিগত আসরের মতোই সাতটি থাকছে। এর মধ্যে ৫টি স্পন্সর ইতোমধ্যেই চূড়ান্ত হয়ে গেছে। বাকি যে দুটি তা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। এমনও হতে এই দুটি দল বিসিবি নিজের তত্ত্বাবধানে রাখবে।

বুধবার (৬ নভেম্বর) বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের অভ্যর্থনা কক্ষে এ ঘোষণা দিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

তিনি বলেন, ‘আগে আমাদের খেলাটা শুরু হওয়ার কথা ছিল ৬ ডিসেম্বর। কিন্তু আমরা একটা উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করব বলে ঠিক করেছি। সেটা কবে করব এ ব্যাপারে একটু চিন্তায় ছিলাম। আগেও বলেছিলাম এবারের বিপিএল একটু পিছিয়ে যেতে পারে। বেসিক্যালি আমরা আনন্দিত একটা ব্যাপারে, আপনারা জানেন যে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী কাউন্টডাউটন শুরু হচ্ছে ৮ ডিসেম্বর থেকে। এটা ইতোমধ্যেই সরকার ঘোষণা করেছে। এবং প্রথম দিন সেই ৮ তারিখেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’ উদ্বোধন করার জন্য আমাদের সম্মতি দিয়েছেন। এবং উনি এসে উদ্বোধন করবেন। আমরা মনে করি এটা আমাদের জন্য একটি বিরাট পাওয়া। এদিকে ৮ ডিসেম্বর উদ্বোধন করলে স্বাভাবিকভাবেই ৪-৫ দিন পেছানোরই কথা। প্লেয়ার্স ড্রাফটটা হবে ১৭ নভেম্বর। খেলা শুরু হচ্ছে ডিসেম্বরের ১১ তারিখ।’

‘উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কি হবে না হবে এটা নিয়ে কাজ করলাম। যেহেতু বঙ্গবন্ধুর নামে হচ্ছে খুবই জাঁকজমকপূর্ণভাবে হওয়া উচিত। আমরা আশা করছি আমাদের ক্রিকেট বোর্ডের ইতিহাসে এত জাঁকজমকপূর্ণভাবে আমরা এর আগে কখনো করিনি। সেটাই আজকে ফাইনাল করলাম।’

‘দর্শক কোথায় আসবে, কোথায় বসবে সেটাও ফাইনাল করেছি। সাতটি দল ছিল। সাতটি দলই খেলবে। আমরা ইতোমধ্যেই ৫টি স্পন্সর সিলেক্ট করে ফেলেছি যাদেরকে আমরা দিতে পারি বা দেব। কিন্তু আমাদের কাছে আবেদন এসেছে আরও বেশি। আরও দুটি খালি আছে। আমরা একটু অপেক্ষা করছি। হয় ওই দুইটা আমরা কাউকে দিব। তবে সবচাইতে বেশি সম্ভাবনা হল বিসিবি এই দুটো নিজেদের তত্বাবধানে চলবে। কোন দুটো এটা এখনো ঠিক করিনি।’

এর আগে ৪ ডিসেম্বর বিপিএল উদ্বোধনের কথা ছিল। আর টুর্নামেন্টে মাঠে গড়ানোর দিন নির্ধারিত হয়েছিল ৬ ডিসেম্বর এবং প্লেয়ার্স ড্রাফট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল চলতি মাসের ১২ তারিখে।

 খেলাধুলা থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ