মঙ্গলবার , ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ |

সৌদি হেলিকপ্টার ভূপাতিতের দাবি বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুতির

আন্তর্জাতিক ডেস্ক   শুক্রবার , ২৯ নভেম্বর ২০১৯

মধ্যপ্রাচ্যের প্রভাবশালী দেশ সৌদি আরবের একটি অ্যাপাচি হেলিকপ্টার ভূপাতিত ও এর দুই পাইলটকে হত্যার দাবি করেছেন ইরানঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানায়, শুক্রবার সৌদি আরব-ইয়েমেন সীমান্তের কাছে ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্রে ওই হেলিকপ্টারটি ভূপাতিত করা হয়। তবে অ্যাপাচি হেলিকপ্টার ভূপাতিতের বিষয়ে রিয়াদের তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

এক টুইটার বার্তায় হুতি বিদ্রোহীদের মুখপাত্র ইয়াহিয়া আসিরি লিখেন, ‘‘ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় সৌদি আরবের একটি অ্যাপাচি হেলিকপ্টার ভূপাতিত করা হয়েছে। এটি পুরোপুরি ভস্মীভূত হওয়ায় ভেতরে থাকা দুই চালকও মারা গেছেন।’’

মানব ইতিহাসের অন্যতম প্রাচীন বসতির দেশ ইয়েমেন। আরব বিশ্বের সবচেয়ে গরীব দেশও এটি। দেশটি উত্তর ও দক্ষিণ দুই ভাগে বিভক্ত থাকলেও ১৯৯০ সালে এক হয়ে একটি ইয়েমেন গড়ে ওঠে। তবে ২০১৫ সাল থেকে চলা গৃহযুদ্ধে পুরোপুরি বিপর্যস্ত দেশটি।

শিয়াপন্থি হুথি বিদ্রোহীদের সঙ্গে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন জোটের যুদ্ধে হতাহত হয়েছেন বহু মানুষ। দেশটিতে দেখা দিয়েছে ভয়াবহ খাদ্য সংকট। কলেরা, ডিপথেরিয়াসহ বিভিন্ন ধরনের রোগ ছড়িয়ে পড়ছে মহামারির মতো।

ইয়েমেনের নিরীহ মানুষদের ওপর হামলা চালিয়ে অকাতরে হত্যা করছে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট। তাদের হামলা থেকে বাদ যায়নি হাসপাতাল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ বেসামরিক আবাসিক এলাকায়। মূলত দেশটিতে নিজেদের প্রভাব খাটাতে এবং সুন্নি শাসক আবদ রব মনসুর হাদিকে টিকিয়ে রাখতে মানবতার বিরুদ্ধে নেমেছে সৌদি, আমিরাতের মত দেশগুলো।

দেশটিতে বর্তমান সৃষ্ট মানব সংকটকে 'বিশ্বের সবচেয়ে বড় মানব-সৃষ্ট মানবিক বিপর্যয়' বলে উল্লেখ করেছে জাতিসংঘ। এছাড়া বারবার যুদ্ধবিরতির চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছে জাতিসংঘ ও এর তিনটি অঙ্গ সংগঠন।

গত তিন বছরে ইয়েমেনে নয় হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে এবং প্রায় ৫৩ হাজার মানুষ আহত হয়েছে। যাদের বেশিরভাগই বেসামরিক নাগরিক। এছাড়া লক্ষ লক্ষ মানুষ ঘরছাড়া হয়েছে। তবে আসল সংখ্যা এর চেয়েও অনেক বেশি দাবি করে  সম্প্রতি ইয়েমেনের মানবাধিকার বিষয়ক মন্ত্রণালয় জানিয়েছিলো, সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের হামলায় ছয় লাখের বেশি মানুষ হতাহত হয়েছে।

ইয়েমেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধে সৌদি আরবের এক হাজারেরও বেশি সৈন্য নিহত হয়েছে বলে সম্প্রতি জানায় আল জাজিরা। ২০১৫ সালের মার্চে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট যখন ইয়েমেনের ওপর হামলা চালায় তখন থেকে এ পর্যন্ত এসব সৌদি সেনা নিহত হয়।

বলা হয়ে থাকে, ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীদের সাহায্য করছে ইরান। অপরদিকে সৌদি জোটকে সরাসরি সমর্থন দিচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স।

 সারাবিশ্ব থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ