রবিবার , ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯ |

নগরকান্দা প্রতিনিধিঃ 
ফরিদপুরের নগরকান্দায় সরকারি খালের ভিতর অংশ দখল করে নির্মিত অবৈধ বসতি উচ্ছেদ করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। গত বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন নগরকান্দা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত), সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আহসান মাহমুদ রাসেল। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে এবং নগরকান্দা থানা পুলিশের সহায়তায় এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয় বলে জানা গেছে। উপজেলার তালমা ইউনিয়নের শাকপালদিয়া গ্রাম ও লস্করদিয়া ইউনিয়নের কালিবাড়ী বাজারের পাশের শাকপালদিয়া খালের বেদখল হয়ে যাওয়া অংশ থেকে দখলদার মোজাহার সরদার ওরফে মোজাম এবং তার ছেলে ফারুক সরদার ও সেলিম সরদারের অবৈধ বসতবাড়ি  উচ্ছেদ করা হয়।
এলাকাবাসী জানান, শাকপালদিয়া খালের ভিতরের অংশে মাটি ভরাট করে বাড়ী তৈরী করে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছে ওই গ্রামেরই মোজাহার সরদার ওরফে মোজাম এবং তার ছেলে ফারুক সরদার ও সেলিম সরদার। সরকারি খালের জায়গায় মোজাহার সরদার গংরা বাড়ি তৈরী করে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ধরনের  অসামাজিক কাজ ও মাদকের ব্যবসা চালিয়ে এলাকার পরিবেশ ও যুব সমাজ নষ্ট করছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। এলাকাবাসী আরো জানায়, মোজাহার সরদার শারিরীক প্রতিবন্ধী হওয়ার সুযোগ নিয়ে নির্ভিগ্নে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে।   তাই এলাকার পরিবেশ রক্ষার স্বার্থে এবং সরকারি খালের জায়গা দখলমুক্ত করতে, ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক ও পানি উন্নয়নবোর্ড সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকাবাসী।
নগরকান্দা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ও সহকারী কমিশনার (ভুমি) আহসান মাহমুদ রাসেল বলেন, নদী রক্ষা কমিশন আইন অনুসারে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সদস্যদের উপস্থিতিতে এবং পুলিশের সহায়তায় সরকারি খালের জায়গা থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।
সরকারি খালের জায়গা থেকে অবৈধ বসতি উচ্ছেদের সময় মোজাহার সরদার ও তার পরিবারের সদস্যরা উচ্ছেদ অভিযানে প্রতিবন্ধকতা তৈরী করে বিভিন্ন মনগড়া  কাহিনির অবতারণা করে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান।
মোজাহার সরদার বলেন,আমাদের ঘর বাড়ি ভেঙ্গে উচ্ছেদ করায়- এখন খোলা আকাশের নিচেই বসবাস করতে হবে। আমি প্রতিবন্ধী মানুষ জেনেও আমাকে উচ্ছেদ করা হলো।

 সারা বাংলা থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ