মঙ্গলবার , ১৪ জানুয়ারী ২০২০ |

কাশ্মীরের দুই অংশে তুষারধসে নিহত অন্তত ৬৭

অনলাইন ডেস্ক   মঙ্গলবার , ১৪ জানুয়ারী ২০২০

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে তুষারধসের ঘটনায় গত ২৪ ঘণ্টায় অন্তত ৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। পাশের দেশ ভারতের নিয়ন্ত্রণে থাকা কাশ্মীরে মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে আরও দশজনের।

ভারি বৃষ্টিপাতের পর নিলম উপত্যকায় এ তুষারধসে অনেক গ্রামবাসী আটকাও পড়েছেন বলে মঙ্গলবার দুই কর্মকর্তার বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। ভারি বৃষ্টিপাতের পর ওই এলাকায় ভূমিধসের ঘটনাও ঘটেছে। তুষারধস ও ভূমিধসে অনেকে নিখোঁজ বলেও এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলেও শঙ্কা তার।

ডনের এক প্রতিবেদনে কেবল রোববার ও সোমবারই বেলুচিস্তান, পাঞ্জাব ও পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ভূমিধস, তুষারধস ও ভারি বৃষ্টিপাতজনিত কারণে অন্তত ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

ভারি বর্ষণের পর ভূমিধস ও তুষারধসে আজাদ জম্মু ও কাশ্মীর, গিলগিট-বালতিস্তান, মালাকান্ড ও হাজারা বিভাগের প্রধান প্রধান সড়ক ও মহাসড়কগুলো বন্ধ হয়ে গেছে। বন্ধ হওয়ার তালিকায় কারাকোরামের মহাসড়কটিও আছে। অন্যদিকে তুষারপাতের কারণে খাইবার পাখতুনখোয়ার চিত্রল এলাকাটি প্রদেশটির অন্যান্য এলাকা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

হতাহতদের বেশিরভাগই কাশ্মীরের নিলম উপত্যকা এবং বেলুচিস্তানের পার্বত্য এলাকার বাসিন্দা বলে জানিয়েছে ডন। বৃষ্টি ও তুষারধস এ দুই এলাকার দুই ডজনেরও বেশি বাড়িঘর, বেশকিছু দোকান ও একটি মসজিদ ধ্বংস করেছে। সেনাবাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় নিয়োজিত কর্মকর্তারাও স্থানীয় প্রশাসনের উদ্ধার অভিযানে সহযোগিতা করছে।

 সারাবিশ্ব থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ