বুধবার , ১১ মার্চ ২০২০ |

জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধি:  
জয়পুরহাট শহরের দেওয়ান পাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে অনলাইন প্রতারক চক্রের ৭ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব। মঙ্গলবার রাতে প্রতারনা কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি সহ তাদের আটক করা হয়। আটককৃত প্রতারক চক্রের সদস্যরা হলেন- জয়পুরহাট সদর উপজেলার গতন শহরের বেলাল উদ্দীনের ছেলে শিবলী নোমানী (২৩), একই উপজেলার রাঘবপুরের সায়েম উদ্দীন প্রামাণিকের ছেলে হাবিবুল বাশার (১৭), ক্ষেতলাল উপজেলার আয়মাপুর গ্রামের তৌহিদুল ইসলামের ছেলে মারুফ শাহরিয়ার (২০), দিনাজপুরের ফুলবাড়ি উপজেলার দলদনিয়া গ্রামের আফফার মন্ডলের ছেলে রনিক হোসেন (১৮), গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার শিবরামপুর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে আব্দুল্লাহ আল আদনান (২০), একই উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামের মনসুর আকন্দের ছেলে মামুনুর রশিদ প্রান্ত (২২) ও বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার নিজামত কুড়িগ্রামের টুকু মিয়ার ছেলে সাব্বির রহমান (২১)। র‌্যাব-৫, জয়পুরহাট ক্যাম্পের অধিনায়ক (সহকারী পুলিশ সুপার) এম এম মোহাইমেনুর রশিদ জানান, আটককৃতরা দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধভাবে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভুয়া নামে বিভিন্ন সফটওয়্যার ও ওয়েব সাইট ব্যবহার করে মেয়েদের নামে ফেইক আইডি তৈরি করে ডিজিটাল প্রতারণা, ডিজিটাল জালিয়াতি, জ্ঞাতসারে ডিজিটাল ছদ্মবেশধারণ করে ওইসব আইডি দিয়ে বিভিন্ন অবৈধ সার্ভার ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) ব্যবহার করে একাধিক অ্যাডাল্ট সাইটে অজ্ঞাতনামা আইডিধারীদের সঙ্গে ইরোটিক ম্যাসেজিং (অ্যাডাল্ট চ্যাটিং) ও অবৈধভাবে অর্থ উপার্জন করে আসছিল। মঙ্গলবার জয়পুরহাট শহরের নতুন হাট দেওয়ান পাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি বাড়ি থেকে অনলাইন প্রতারক চক্রকে হাতে নাতে আটক করা হয়। তাদের কাছ থেকে ১০টি কম্পিউটার সেট, ১০টি রাউটার, বিভিন্ন ধরনের ক্যাবল, মাল্টিপ্লাগ, ৬টি মোবাইল সেট, ১২টি সিম কার্ড ও ৩টি মেমোরি কার্ড উদ্ধার করা হয়েছে। আটককৃতদের প্রতারনা কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি সহ জয়পুরহাট সদর থানায় সোপর্দ্দ করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। 

 আইন-আদালত থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ