বুধবার , ০১ নভেম্বর ২০১৭

আয়কর মেলায় আদায় হবে ৩ হাজার কোটি টাকা’

  বুধবার , ০১ নভেম্বর ২০১৭

এবারের আয়কর মেলায় প্রায় তিন হাজার কোটি টাকার কর আদায় হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান।আজ বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্মাণাধীন জাতীয় রাজস্ব ভবনে সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিআই এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম।

অনুষ্ঠানে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান সভাপতিত্ব করেন।অষ্টমবারের মতো আয়োজিত এ মেলা আগামী ৭ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে। আটটি বিভাগীয় শহর, ৫৬টি জেলা ও ৮৭টি উপজেলাসহ সারাদেশে মোট ১৫১টি জায়গায় এবারের মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।  অর্থ প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২০১০ সালে প্রথম আয়কর মেলায় ৬০ হাজার ৫০০ ব্যক্তি আর সর্বশেষ ২০১৬ সালে আয়কর মেলায় সেবা নিয়েছেন ৯ লাখ ২৯ হাজার ব্যক্তি। এই যে সেবা গ্রহীতা বাড়ছে এটা আমার কাছে সবচেয়ে বড় অর্জন মনে হয়েছে।তিনি বলেন, গত বছর দুই লাখ করদাতা রিটার্ন জমা দেওয়ার বিপরীতে দুই হাজার ১৩০ কোটি টাকা আয়কর দিয়েছেন। আমি আশা করি এবার তিন হাজার কোটি টাকা ছাড়াবে।আয়কর বিষয়ে স্কুলে পড়ানোর আহবান জানিয়ে শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, আমি বিদেশে পড়াশোনা করেছি। আমি ক্লাস টেনে থাকার সময় জেনেছি কিভাবে আয়কর দিতে হয়। আমার পাঠ্যবইয়ে সে বিষয় ছিল।অনুষ্ঠানে নজিবুর রহমান বলেন, যে পরিবারের সবাই দীর্ঘদিন ধরে আয়কর দিচ্ছে আমরা এবার তাদের পুরস্কার দিচ্ছি। আমরা তাদের কর বাহাদুর উপাধি দিচ্ছি। এবার আয়কর মেলার বাড়তি আকর্ষণ থাকবে করদাতাদের রিটার্ন দাখিলের সঙ্গে সঙ্গে ইনকাম ট্যাক্স আইডি কার্ড ও স্টিকার প্রদান। এটি এনবিআরের নতুন উদ্ভাবন।প্রতিমন্ত্রীর কথা উল্লেখ করে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, তিনি আমাকে পরামর্শ দিয়েছেন করদাতাদের পিন নম্বর দেওয়ার। যে ট্যাক্স পিন দিয়ে তাদের সনাক্ত করা যাবে। আমরা এ পদ্ধতি চালু করবো।নজিবুর রহমান বলেন, শুরুতেই মেলায় আমরা একটা ভিড় দেখতে পেলাম। এটা প্রমাণ করে দেশের জনগণ আয়কর দিতে উৎসাহী। আমরা আপনাদের সেবায় সর্বদা আছি। আপনাদের করের টাকাতেই দেশের উন্নয়ন হয়।

 অর্থ-বাণিজ্য থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ