মঙ্গলবার , ২৪ মার্চ ২০২০ |

পরিবারের উদ্যোগেই সাময়িক মুক্তি খালেদা জিয়ার

অনলাইন স্পোর্টস ডেস্ক   মঙ্গলবার , ২৪ মার্চ ২০২০

দল ও দলের আইনজীবীরা ব্যর্থ হয়েছেন। অবশেষে পরিবারের উদ্যোগ ও প্রচেষ্টায় সাময়িক মুক্তি পেলেন বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার দেশ রূপান্তরকে এ কথা জানিয়েছেন খালেদা জিয়ার এক স্বজন।

তিনি বলেন, সরকার রাজনৈতিক উদ্দেশে রাজনৈতিক মামলায় খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় দুই বছরের অধিক সময় কারাগারে রেখেছে। বিএনপি নেতারা রাজনৈতিক আন্দোলন সংগ্রামের মাধমে তাকে মুক্তি দিতে বাধ্য করতে পারেননি। পরে পরিবারকেই উদ্যোগ নিতে হয়।

ওই স্বজন বলেন, সরকারের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হয়। অবশেষে সরকারের নির্বাহী আদেশে মুক্তি পেলেন খালেদা জিয়া। অবশ্য খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিগত দুইবছর নেতাকর্মীরা নানা কর্মসূচি পালন করেছে বলে স্বীকার করেন তার ওই স্বজন।

এর আগে সাজা স্থগিত করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে শর্তসাপেক্ষে ছয় মাসের জন্য মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানায় সরকার। গুলশানে নিজ বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ছয় মাসের জন্য বিএনপি চেয়ারপারসনের সাজা স্থগিত করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, দুইটি শর্তে তাকে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে। সেগুলো হলো- এই সময়ে তার ঢাকায় নিজের বাসায় থাকতে হবে এবং তিনি বিদেশে যেতে পারবেন না। আনিসুল হক বলেন, ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ (১) ধারায় তার সাজা ছয় মাসের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত কাগজপত্র স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার বয়স ও মানবিক অবস্থা বিবেচনায় তার সাজা স্থগিত করে তাকে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে। এই সময়ে খালেদা জিয়া গুলশানের নিজ বাসভবনে থেকে চিকিৎসা নেবে।

 রাজনীতি থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ