শনিবার , ০৪ নভেম্বর ২০১৭

নিরব অভিনীত ত্রিভুজ প্রেমের ছবি ‘গেম রিটার্নস’। ছবিটি নিয়ে বেশ আশাবাদী তিনি। গতকাল সারা দেশের ৪৫টি হলে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। নিরবের বিপরীতে এই ছবিতে নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করেছেন তমা মির্জা ও লাবণ্য। ছবির বিভিন্ন দিক নিয়ে নিরবের সঙ্গে কথা বলেছেন তুহিন খান নিহাল

‘গেম রিটার্নস’ দেখতে হলে গিয়েছিলেন?

অবশ্যই। ঢাকার কয়েকটি হলে গিয়েছিলাম। দর্শকদের প্রত্যাশিত সাড়া পেয়েছি। আশা করছি ছবিটি দর্শক গ্রহণ করবে। আজও কয়েকটি হলে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

‘গেমের’ পর ‘গেম রিটার্নস’-আপনার মন্তব্য কী?

অনেকেই মনে করতে পারেন হয়তো ‘গেমের’ সিক্যুয়েল ‘গেম রিটার্নস’। কিন্তু না, দুটিই আলাদা ছবি। নামের সামঞ্জস্যতা থাকলেও এখানে সিক্যুয়েলের কিছু নেই। দুটি ছবিতেই রয়েছে ভিন্ন গল্প।

‘গেম রিটার্নস’ ছবি সম্পর্কে কিছু বলুন?

‘গেম রিটার্নস’ একটি অ্যাকশন-থ্রিলারধর্মী ছবি। সে সঙ্গে প্রেম-ভালোবাসাও রয়েছে। এক কথায় চমৎকার গল্পে নির্মিত হয়েছে ছবিটি। যা সব শ্রেণির দর্শকের প্রত্যাশা পূরণ করবে। অর্থাৎ এই ছবিতে দর্শক যা চাইবে তা-ই পাবে।

এ ছবিতে আপনাকে কোন চরিত্রে দেখতে পাবে দর্শক?

আমি একটি কন্ট্রাক কিলারের চরিত্রে অভিনয় করেছি। একটি এজেন্সির হয়ে কাজ করি। আমার সহযোগী হিসেবে থাকে লাবণ্য। আমরা দুজনই মিশা সওদাগরের দলের সদস্য হয়ে কাজ করি। কোনো এক সময়ে তমা মির্জার সঙ্গে দেখা হয়। সেখান থেকেই গল্প অন্যদিকে মোড় নেয়।

আগের তুলনায় এ ছবিতে নিরবের নতুন চমক কী?

এই ছবিতে আমি নিজেকে নতুনভাবে উপস্থাপনের চেষ্টা করেছি। দর্শক যেমন অ্যাকশন হিরো হিসেবে দেখবেন আমাকে, আবার রোমান্টিক দৃশ্যেও পাবেন। আমার মনে হয়, এর আগে যে নিরবকে দর্শক দেখেছে, এই ছবিতে নতুন এক নিরবকে দেখবে সবাই।

সহশিল্পীদের সঙ্গে কাজের রসায়নটা কেমন ছিল?

তমার প্রথম কাজ আমার সঙ্গেই ‘বলনা তুমি আমার’ ছবির মাধ্যমে। ‘গেম রিটার্নস’ ছবির মধ্য দিয়ে আমরা পঞ্চমবারের মতো জুটি হয়েছি। আমার সঙ্গে তার ফ্রেন্ডলি সম্পর্ক। সে হিসেবে বলব, আমাদের কাজের ক্ষেত্রে রসায়নটা অবশ্যই ভালো। অন্যদিকে লাবণ্যের সঙ্গে আমার প্রথম কাজ। সে খুব ভালো অভিনয় করেছে, যা দর্শক হলে গেলে দেখতে পাবে।

ছবিটি নিয়ে আপনি কতটুকু আশাবাদী?

এই ছবিতে দর্শকের পালস বোঝার চেষ্টা করছি, ছবিটি শেষ করার পর মনে হয়েছে যেমনটি চেয়েছিলাম তার সবই আছে এ ছবিতে। দর্শককে পুরোপুরি বিনোদন দেওয়ার জন্য সময়োপযোগী করে বানানো হয়েছে ছবিটি, গান আর ট্রেলার দেখে অনেকেই প্রশংসা করেছেন। মনে হচ্ছে ভালো মানের ছবির জোয়ার আবার শুরু হলো। সবার কাছে অনুরোধ, হলে এসে ছবি দেখুন, ভালো-মন্দ বিচার করুন।

 বিনোদন থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ